শেষ বলের চারে ১ উইকেটের জয়

প্রকাশ: ২০১৮-০৩-০৪ ৭:৪৭:২৮ পিএম
আবু হোসেন পরাগ | রাইজিংবিডি.কম

নাটকীয় এক ম্যাচের সাক্ষী হলো মিরপুর শের-ই-বাংলা স্টেডিয়াম। ছবি: মিলটন আহমেদ

ক্রীড়া প্রতিবেদক : শেষ ওভারের নাটকীয়তায় লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জকে হারিয়েছে শাইনপুকুর ক্রিকেট ক্লাব। শেষ বলে চার হাঁকিয়ে শাইনপুকুরকে ১ উইকেটের জয় এনে দিয়েছেন রায়হান উদ্দিন।

শেষ ওভারে জয়ের জন্য শাইনপুকুরের প্রয়োজন ছিল ৭ রান, হাতে ২ উইকেট। মোহাম্মদ শহীদের করা প্রথম বলে মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন নিতে পারেন ১ রান। দ্বিতীয় বলটা শহীদ ডট দিলেও তৃতীয় বলে চার হাঁকান রায়হান। পরের বলে আসে ১ রান, স্কোর লেভেল। ২ বলে চাই ১। কিন্তু পঞ্চম বলে রান আউটে কাটা পড়েন সাইফউদ্দিন। শেষ বলে চার হাঁকিয়ে শাইনপুকুরকে নাটকীয় জয় উপহার দেন রায়হান।

ওয়ালটন ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে সপ্তম ম্যাচে এটি শাইনপুকুরের চতুর্থ জয়। সমান ম্যাচে রূপগঞ্জের চতুর্থ হার। 



মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে রোববার টস হেরে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৩ উইকেটে ২৬৮ রান করেছিল রূপগঞ্জ। সর্বোচ্চ ৯৩ রান করেন মোহাম্মদ নাঈম। ১৩০ বলে ৮ চার ও এক ছক্কায় ইনিংসটি সাজান এই ওপেনার।

শেষ দিকে ৬৬ বলে অপরাজিত ৮৮ রানের ঝোড়ো ইনিংস খেলেন ভারতীয় ব্যাটসম্যান পারভেজ রসুল। তার ইনিংসে ছিল ১১টি চার ও ২টি ছক্কার মার। এ ছাড়া অধিনায়ক নাঈম ইসলাম ৩৮ ও ওপেনার আব্দুল মজিদ করেন ২৫ রান। শাইনপুকুরের নাঈম ইসলাম জুনিয়র, শুভাগত হোম ও রায়হান নেন একটি করে উইকেট।

লক্ষ্য তাড়ায় ৬২ রানেই ৩ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় শাইনপুকুর। চতুর্থ উইকেটে ওপেনার সাদমান ইসলাম ও উদয় কউলের ১২১ রানের জুটিতে ঘুরে দাঁড়ায় তারা। যদিও ১৭ রানের মধ্যে ফিরে যান দুজনই। সাদমান ৫ রানের জন্য সেঞ্চুরি মিস করেছেন, ৯৫। আর কউল করেন ৬১।



এরপর আফিফ হোসেন (২৯), শুভাগত (১৮) দলকে এগিয়ে নিলেও ম্যাচ শেষ করে আসতে পারেননি। সেই দায়িত্বটা পালন করেন রায়হান। ৫ বলে ১০ রানে অপরাজিত ছিলেন তিনি। ম্যাচসেরা হয়েছেন সাদমান। 

রূপগঞ্জের হয়ে শহীদ ৫০ রানে নেন ৩ উইকেট। ২টি করে উইকেট নেন রসুল ও মোশাররফ হোসেন।




রাইজিংবিডি/ঢাকা/৪ মার্চ ২০১৮/পরাগ

   
 



আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

বার্সার রেকর্ড রাজস্ব আয়

২০১৮-০৭-১৭ ৫:০২:১১ পিএম

যে ৮ বিষয় গুগলে খুঁজবেন না

২০১৮-০৭-১৭ ৪:৪৩:৫২ পিএম

শতাধিক প্রেক্ষাগৃহে ‘সুলতান’

২০১৮-০৭-১৭ ৪:০৩:৪৬ পিএম