কয়লাবাহী জাহাজ ডুবি: তদন্ত কমিটি গঠন

প্রকাশ: ২০১৮-০৪-১৫ ৭:৫৯:৪৩ পিএম
আলী আকবর টুটুল | রাইজিংবিডি.কম

বাগেরহাট সংবাদদাতা : মংলা বন্দরের হারবাড়িয়া এলাকায় ৭৭৫ মেট্রিক টন কয়লা নিয়ে এমভি বিলাস নামে লাইটার জাহাজ ডুবির ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত কমিটি সুন্দরবনে কী পরিমাণ ক্ষতি হয়েছে, তা খতিয়ে দেখবে।

বাগেরহাটের পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মো. মাহমুদ হাসান জানান, সুন্দরবনের মধ্যে পশুর নদীর হারবাড়িয়ার থেকে এক কিলোমিটার নিচে বঙ্গোপসাগরের দিকে কয়লা বোঝাই জাহাজ ডুবির ঘটনায় সুন্দরবনের কী পরিমাণ ক্ষতি হয়েছে, তা নিরূপণ করতে এক সদস্যের কমিটি গঠন করা হয়েছে। চাঁদপাই রেঞ্জের সহকারী বন সংরক্ষক (এসিএফ) মো. শাহিন কবিরকে বিষয়টির তদন্ত করবেন।

রোববার দুপুর থেকে তদন্ত কমিটি সরেজমিন তদন্ত শুরু করেছে বলে জানান তিনি।

এর আগে শনিবার দিনগত রাত ৩টার দিকে মংলা বন্দর থেকে প্রায় ৬০ নটিক্যাল মাইল দূরে হারবাড়িয়া ৫ নম্বর এ্যাংকরে ডুবোচরে আটকে ৭৭৫ মেট্রিকটন কয়লা বোঝাই লাইটার জাহাজটি ডুবে যায়। ডুবে যাওয়া জাহাজটি দেখা যাচ্ছে। এতে হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

কয়লা আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান সাহারা এন্টারপ্রাইজের ব্যবস্থাপক (অপারেশন) মো. লালন হাওলাদার বলেন, গত ১৩ এপ্রিল লাইবেরিয়ার পতাকাবাহী এমভি অবজারভেটর জাহাজ সাড়ে ২৪ হাজার মেট্রিকটন কয়লা নিয়ে মংলা বন্দরের হারবাড়িয়ার ৬ নম্বর এ্যাংকরে নোঙ্গর করে। ওই জাহাজ থেকে ৭৭৫ মেট্রিকটন কয়লা নিয়ে লাইটার জাহাজ এমভি বিলাস শনিবার দুপুর ১২টার দিকে ঢাকার মিরপুরের উদ্দেশ্যে রওনা হয়।

তিনি বলেন, লাইটার জাহাজের মাস্টার ডুবোচর থেকে উদ্ধার পাওয়ার জন্য মংলা বন্দরের সাহায্য চান। বন্দর কর্তৃপক্ষের উদ্ধারযান ঘটনাস্থলে পৌছেও তা রক্ষা করতে পারেনি। প্রবল জোয়ারের চাপে কয়লা বোঝাই জাহাজ কাত হয়ে ডুবে গেছে।

সেভ দ্যা সুন্দরবন ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ড. শেখ ফরিদুল ইসলাম বলেন, পশুর নদীতে কয়লা বোঝাই জাহাজ ডুবিতে সুন্দরবনের গাছের শ্বাসমূলসহ জীববৈচিত্র্য ও জলজ-প্রাণির ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হবে। তিনি দ্রুত জাহাজটি উদ্ধারের দাবি জানান।



রাইজিংবিডি/বাগেরহাট/১৫ এপ্রিল ২০১৮/আলী আকবর টুটুল/বকুল

   
 



আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

রোনালদোর পাশে জুভেন্টাস সভাপতি

২০১৮-০৯-২১ ৪:৪২:১২ পিএম

বিরাটের বড় পর্দায় অভিষেক?

২০১৮-০৯-২১ ৪:৩৩:১৪ পিএম

‘ইন্দ্র দা খুবই হেল্পফুল’

২০১৮-০৯-২১ ৩:৪৬:৫৪ পিএম