সেন্টমার্টিনে সাড়ে ৪ লাখ ইয়াবা উদ্ধার

প্রকাশ: ২০১৯-০৩-১৪ ৪:১৮:৩২ পিএম
সুজাউদ্দিন রুবেল | রাইজিংবিডি.কম

কক্সবাজার প্রতিনিধি : বঙ্গোপসাগরে কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার সেন্টমার্টিন উপকূলের গভীর সাগরে ‘পাচারকারীদের ধাওয়া’ দিয়ে সাড়ে ৪ লাখ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করেছে কোস্টগার্ডের সদস্যরা।

তবে এ সময় পাচারকারীরা পালিয়ে যাওয়ায় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি।

বৃহস্পতিবার সকালে টেকনাফের সেন্টমার্টিন দ্বীপের উপকূলবর্তী গভীর সাগরে অভিযান চালানো হয় বলে জানান কোস্টগার্ড টেকনাফ স্টেশনের ইনচার্জ লেফটেন্যান্ট কমান্ডার রায়হান তারিক।

পাচারকারীরা ইয়াবার চালান সাগরের পানিতে ফেলে দিয়ে ট্রলার নিয়ে মিয়ানমারের জলসীমায় ঢুকে পড়ায় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি বলে জানান তিনি।

লেফটেন্যান্ট কমান্ডার তারিক বলেন, সকালে টেকনাফের সেন্টমার্টিন উপকূলবর্তী গভীর সাগরে মিয়ানমার দিক থেকে আসা ট্রলার জলসীমার শূণ্যরেখা অতিক্রম করে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে ঢুকে পড়ে। এ সময় কোস্টগার্ডের টহলদলের সদস্যরা সন্দেহজনক ট্রলার দেখতে পেয়ে থামার সংকেত দেয়।

‘‘কিন্তু ট্রলারে থাকা লোকজন না থেমে দ্রুত চালিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। কোস্টগার্ড সদস্যরাও পিছু ধাওয়া দিলে ট্রলারের লোকজন পলিথিন মোড়ানো মাঝারি আকারের একটি বস্তা পানিতে ফেলে মিয়ানমারের জলসীমায় ঢুকে পড়ে। এতে কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি।’’

কোস্টগার্ডের এ কর্মকর্তা বলেন, ‘‘পরে সাগরের পানিতে ফেলে যাওয়া বস্তা উদ্ধার করা হয়। সেটি খুলে পাওয়া যায় ৪ লাখ ৫৫ হাজার পিস ইয়াবা ট্যাবলেট।’’

উদ্ধার করা ইয়াবা কোস্টগার্ডের টেকনাফ স্টেশন অফিসে রাখা হয়েছে বলে জানান লেফটেন্যান্ট কমান্ডার তারিক।



রাইজিংবিডি/কক্সবাজার/১৪ মার্চ ২০১৯/সুজাউদ্দিন রুবেল/বকুল

     


Walton AC

আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

কুড়িগ্রামে বিরল বনরুই উদ্ধার

২০১৯-০৫-২৪ ৭:৪৩:৫২ পিএম

১৯তম রোজার সাহরি ও ইফতার সময়

২০১৯-০৫-২৪ ৭:২৯:০৬ পিএম