বাণিজ্য মেলায় ওয়ালটন প্যাভিলিয়নে ১০ শতাংশ ছাড়

প্রকাশ: ২০১৮-০২-০৪ ৮:৪৯:৩৭ এএম
নাসির উদ্দিন | রাইজিংবিডি.কম

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক : ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার শেষদিনে ক্রেতাদের চাহিদার কথা চিন্তা করে সব মডেলের ফ্রিজ, টিভি ও এসিতে ১০ শতাংশ ছাড় দিচ্ছে দেশের শীর্ষ ইলেকট্রনিক্স, অটোমোবাইল এবং হোম অ্যাপ্লায়েন্স পণ্য উৎপাদন ও বাজারজাতকারী প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন।

পাশাপাশি ১০ শতাংশ ছাড়সহ ডিজিটাল রেজিট্রেশনের মাধ্যমে সর্বোচ্চ এক লাখ টাকা ক্যাশ ভাউচার জেতার অফার। তবে ১০ হাজার টাকার পণ্য কিনলেই ক্রেতারা ডিজিটাল রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন।

প্যাভিলিয়ন কর্তৃপক্ষ জানান, ক্রেতা-দর্শনার্থীদের কাছে ‘মেড ইন বাংলাদেশ’ খ্যাত আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন প্রযুক্তি পণ্য তুলে ধরতেই ওয়ালটনের এতো সব চমক। এবার মেলায় বিশ্বের সর্বাধুনিক প্রযুক্তিতে তৈরি আইওটি বেজড স্মার্ট ফ্রিজ ও এসি, এলইডি টেলিভিশনসহ বেশকিছু নতুন মডেলের হোম ও কিচেন অ্যাপ্লায়েন্স এনেছে ওয়ালটন। এসিতে নতুন যুক্ত হয়েছে আয়োনাইজার প্রযুক্তি। যা বিশুদ্ধ বায়ু প্রবাহ নিশ্চিত করে। যেহেতু আজ মেলায় শেষ দিন তাই আজ ক্রেতাদের ফ্রিজ, টিভি ও এসির ওপরে এ ছাড় দেওয়া হচ্ছে।

 


এদিকে শনিবার বাণিজ্য মেলায় ওয়ালটন প্যাভিলিয়নে গিয়ে দেখা যায়, শেষ মুহূর্তে প্যাভিলিয়নে চলছে পণ্য বিক্রির ধুম। সাশ্রয়ী দামে উচ্চ গুণগতমানের হওয়ায় প্রদর্শিত সব পণ্যের সামনেই ক্রেতা ভিড় ছিল চোখে পড়ার মতো। প্রত্যেকেই পছন্দের ফ্রিজ, টিভিসহ বিভিন্ন পণ্য বাছাইয়ে ব্যস্ত।

রাজধানীর বাড্ডা থেকে গতকাল মেলায় এসেছিলেন শফিকুল ইসলাম। ঘুরে দেখছেন ওয়ালটন প্যাভিলিয়ন। কথা হয় তার সঙ্গে। তিনি বলেন, ওয়ালটন বাংলাদেশি ব্র্যান্ড হলেও এটি এখন বহুজাতিক কোম্পানি হয়ে উঠেছে। বাংলাদেশের বাজারে নতুন নতুন ইলেকট্রনিক্স পণ্য বিক্রিতে তারাই শীর্ষে। এজন্য সবার নজর থাকে ওয়ালটনে কী চমক আছে তা দেখার। কেনার ক্ষেত্রেও এখন মানুষের প্রথম পছন্দ ওয়ালটন।

এদিকে ওয়ালটন প্যাভিলিয়নে থেকে ফ্রিজ কিনেছেন হারুন-অর-রশিদ। তিনি বলেন, ওয়ালটন আমাদের দেশের কোম্পানি। এছাড়া অন্যান্য ফ্রিজের চেয়ে ওয়ালটনের দাম অনেক কম, তবে মান একই। যে কারণে আমি ওয়ালটনের ফ্রিজ কিনেছি। আর মেলা থেকে কিনে দশ শতাংশ ছাড় পাওয়াসহ পল্লবী আমার বাসায় পৌঁছে দেওয়ার দায়িত্বও নিয়েছে তারা। এমন সুবিধা অন্য সব প্রতিষ্ঠান দিচ্ছে কি-না আমার ধারণা নেই।

এ বিষয়ে ওয়ালটন প্যাভিলিয়নের সমন্বয়ক শাহ শহীদ চৌধুরী বলেন, মানুষের জীবনযাত্রাকে আরো সহজ করে তুলতে ওয়ালটন ক্রেতাদের জন্য সব সময়ই বিভিন্ন ধরনের পণ্য নিয়ে এসেছে এবং আগামীতেও আরো নতুন নতুন পণ্য সাশ্রয়ী মূল্যে পৌঁছে দিতে কাজ করছে প্রতিষ্ঠানটি। বলতে গেলে বর্তমানে সবার মাঝে প্রাপ্তির আশা বাড়িয়ে দিয়েছে ওয়ালটন।


এদিকে ওয়ালটন ব্র্যান্ডের নতুন মডেলের ফ্রিজের মধ্যে রয়েছে ৩২০ লিটারের গ্লাস ডোর রেফ্রিজারেটর। এছাড়া ৩১৭ লিটার ও ৩৬৫ লিটারের ফ্রস্ট ফ্রিজ, ৩২৩ লিটারের স্মার্ট ইন্টেলিজেন্ট ইনভার্টার প্রযুক্তির কম্প্রেসার সম্বলিত ডিজিটাল ডিসপ্লে, সাইড বাই সাইড নন-ফ্রস্ট ফ্রিজ ও ব্যাচেলর ফ্রিজ ক্রেতাদের নজর কেড়েছে বেশ।

এছাড়া দেশের আবহাওয়া উপযোগী অসংখ্য মডেলের এসিও বাজের এনেছে ওয়ালটন। এর মধ্যে বিশ্বের লেটেস্ট আয়নাইজার প্রযুক্তির এসি রয়েছে। WSN-24K-0101-SCWWB মডেলের ২৪ হাজার বিটিইিউর (ব্রিটিশ থারমাল ইউনিট) ও WSI-18K-0101-SCWWC মডেলের ১৮ হাজার বিটিইউর ইন্টেলিজেন্ট ইনভার্টার প্রযুক্তির এ এসির দাম যথাক্রমে ৫৬ হাজার ৯০০ এবং ৬৩ হাজার পাঁচশত টাকা। আরো রয়েছে WSN-18K-0101-SCWWA মডেলের আয়নাইজার ১৮ হাজার বিটিইউর প্রযুক্তির এসি। যার মূল্য ৪৯ হাজার নয়শত টাকা।

তিনি বলেন, আয়নাইজার হচ্ছে উচ্চ প্রযুক্তির ডিভাইস। যা নেগেটিভ আয়ন সৃষ্টি করে রুমের বাতাস থেকে ধূলা, ব্যাকটেরিয়া ও বাজে গন্ধ ফিল্টারিং করে নিশ্চিত করে স্বাস্থ্যকর ও বিশুদ্ধ বাতাস। এই প্রযুক্তিকে তিনি ‘লাং ডাক্তার’ নামে অভিহিত করেছেন।

এসির কনডেনসারে অ্যান্টি করোসিভ হাইড্রফিলিক গোল্ডেন কালার ফিন প্রযুক্তি ব্যবহার করছে ওয়ালটন। গোল্ডেন ফিন হলো এসির কনডেন্সারে হিট এক্সেঞ্জারের পৃষ্ঠতলে ক্ষয় ও মরিচারোধক হাইড্রফিলিক আবরণ। যা ধুলো, ময়লা, বাতাসের আর্দ্রতা ও উষ্ণতার কারণে সৃষ্ট ক্ষয় রোধ করে। সে সঙ্গে তা কনডেন্সারে হিট এক্সেঞ্জারের স্থায়িত্ব ও কার্যকারিতা বাড়ায়। এটি ব্যবহারের ফলে ক্রেতাকে ঘনঘন এসি পরিষ্কার বা মেরামতের ঝামেলা পোহাতে হয় না।
 


ইন্টেলিজেন্ট ইনভার্টার প্রযুক্তি সম্পর্কে শাহ শহীদ আরো বলেন, ইনভার্টার প্রযুক্তির এসিতে সেন্সর থাকায় ঘরের ভেতরের তাপমাত্রা বুঝে সেই অনুযায়ী রেফ্রিজারেন্ট সরবরাহ করে এবং ঘর ঠান্ডা হয়ে গেলে কম্প্রেসার ঘুমন্ত অবস্থায় থাকে। প্রয়োজন অনুযায়ী তাপমাত্রা সরবরাহ করে বিধায় এতে বিদ্যুৎ খরচ অনেক কম হয়। কম্প্রেসারের স্থায়ীত্বও বাড়ে।

আমাদের আরো বেশ কয়েকটি মডেলের এসি রয়েছে। যা সুন্দর ডিজাইন ও আকর্শণীয় রংয়ের। এগুলো হল-WSN-21K-0101-ECXXB, WSN-21K-0101-RXXXB, WSI-18K-0101-SCWWC, WSN-18K-0102-FTXXA, WSN-18K-0101-ECXXA, WSN-18K-0103-ECXXA, WSN-18K-0101-RXXXA, WSN-18K-0102-RXXXA, WSN-12K-0101-RXXXA, WSN-12K-0102-RXXXA যা সর্বনিম্ন ৩৫ হাজার টাকা (১০৫০০ বিটিইউর) থেকে ৬৫ হাজার (১৮ হাজার বিটিইউর) টাকায় পাওয়া যাচ্ছে এবং WSI-18K-0101-SCXXC মডেলের (১৮ হাজার বিটিইউর) লিমিটেড ভার্সন পাওয়া যাচ্ছে যার মূল্যও ৬৫ হাজার টাকা।

এছাড়া অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ও মাল্টি-টাচ সম্বলিত বড় পর্দার কম্পো টেলিভিশনসহ ২৭ মডেলের এলইডি টেলিভিশন প্রদর্শন ও বিক্রি করছি আমরা। এর মধ্যে ক্রেতা চাহিদায় রয়েছে- WD326JX, W55E3000AS, W49E3000AS, WD1-JX32-TS100, WD1-JX32-BC200 Silver, WE4MX43SB100 ইত্যাদি। সর্বনিম্ন ১২ হাজার ৪৫০ টাকা থেকে সর্বোচ্চ এক লাখ ১৫ হাজার টাকার মধ্যে পাওয়া যাচ্ছে এসব টেলিভিশন।

প্রসঙ্গত, ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলার (ডিআইটিএফ) দেশের সর্ববহৎ পণ্য মেলা হিসেবে পরিচিত। মেলায় সেরা ভ্যাট দাতার পুরস্কার চালু করার পর থেকে প্রতি বছর মেলায় সেরা ভ্যাটদাতার সম্মান পাচ্ছে ওয়ালটন। এছাড়া প্রায় প্রতি বছরই সেরা প্যাভিলিয়নের পুরস্কার পেয়ে আসছে ওয়ালটন।


রাইজিংবিডি/ঢাকা/৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮/নাসির/সাইফ

   
 



আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

বেন স্টোকস ইন, টম কুরান আউট

২০১৮-০৮-১৭ ৮:১৪:৪৮ পিএম

সিলেটে সাড়ে ৬ বছরের শিশুকে ধর্ষণ

২০১৮-০৮-১৭ ৮:১৩:৩৪ পিএম

তামিমের পরবর্তী সঙ্গী হচ্ছেন কে?

২০১৮-০৮-১৭ ৮:০০:৫৪ পিএম

সবচেয়ে বেশি আয় স্কারলেটের

২০১৮-০৮-১৭ ৬:৩৬:২৬ পিএম

রিয়ালকে নিয়ে আত্মবিশ্বাসী রামোস

২০১৮-০৮-১৭ ৬:২৬:২৫ পিএম