সেরা করদাতা গ্যালারি চালু করল এলটিইউ

প্রকাশ: ২০১৮-০৪-১১ ৯:৫১:৩০ পিএম
এম এ রহমান | রাইজিংবিডি.কম

অর্থনৈতিক প্রতিবেদক : সর্বোচ্চ করদাতা ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের জন্য প্রথমবারের মতো করদাতা গ্যালারি চালু করল এনবিআরের বৃহৎ করদাতা ইউনিট (এলটিইউ)।

বুধবার বিকেলে এনবিআর চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া ওই গ্যালারির উদ্বোধন করেন।

একই সঙ্গে এলটিইউর নিজস্ব লোগো, ক্রেস্ট, ডায়েরি, কোট পিন ও ড্রেসের উদ্বোধন করা হয়।

করদাতা গ্যালারিতে ব্যক্তি শ্রেণিতে জ্যেষ্ঠ নাগরিক হিসেবে বীর প্রতীক গোলাম দস্তগীর গাজী, তরুণ ক্যাটাগরিতে নাফিস সিকদার, সাংবাদিক হিসেবে মাহফুজ আনামের নাম প্রদর্শিত হচ্ছে।

অন্যান্য ক্যাটাগরিতে এম সাহাবুদ্দিন আহমেদ, মো. নজরুল ইসলাম মজুমদার ও আবু মোহাম্মদ জিয়া উদ্দিন খাঁনের নাম রয়েছে। এছাড়া এই গ্যালারিতে ২০১৭ সালে ট্যাক্স কার্ড পাওয়া খাত ওয়ারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের নামও শোভা পাচ্ছে।

এলটিইউ কমিশনার অপূর্ব কান্তি দাসের সভাপত্বিতে এলটিইউর আওতাধীন ট্যাক্স কার্ড পাওয়া ও বড় করদাতা প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা অংশ নেন।

আলোচনায় অংশ নিয়ে বক্তারা বলেন, দেশী ব্যাংকের চেয়ে বিদেশী ব্যাংকে কর বেশি। ডাবল ট্যাক্স ছাড়াও কোনো কোনো ক্ষেত্রে তৃতীয়বার পর্যন্ত কর রয়েছে। বন্ড মার্কেট এখনো তেমনভাবে গড়ে ওঠেনি। দেশ থেকে বিদেশী ই-কমার্স (অ্যামাজন) সাইটগুলো আয় করে নিলেও তাদেরকে কোনো কর দিতে হচ্ছে না।

এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, অনেকেই বলছেন, করপোরেট কর কমালেও রাজস্ব কমবে না। বরং বাড়বে। এটা অনেকেরই অভিমত। তাই এ দাবিটি পর্যালোচনা করা হবে। দেশী-বিদেশী বিনিয়োগের অসামঞ্জস্যতা দূর করতেও উদ্যোগ নেওয়া হবে। ডাবল ট্যাক্স ও বন্ডে জিরো কুপন না থাকার বিষয়ে কাজ চলছে। ব্যাংকের পরিচালকদের ট্যাক্স কার্ড দেয়া যায় কি না তা পর্যালোচনা করা হবে।

মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া বলেন, ট্যাক্স জিডিপি অনুপাত এখনো আমাদের জন্য একটি চ্যালেঞ্জ। তাই কর হার কমিয়ে রাজস্ব বাড়ানোর বিষয়টিই আগামী বাজেটে প্রাধান্য পাবে। আয়কর আদায়ে কিছুটা ভালো অবস্থা লক্ষ করা গেলেও ভ্যাটের ক্ষেত্রে তা খুবই খারাপ। অনেক ব্যবসায়ী গ্রাহকের কাছ থেকে ভ্যাট আদায় করে কিন্তু সরকারের কোষাগারে জমা দেয় না। এটি যদি নিশ্চিত করা যায় তাহলে নিম্ন হারেও বেশি রাজস্ব আদায় হবে।

তিনি আরো বলেন, ভ্যাটের জন্য একটা রেট না করে কয়েকটি রেট করা হবে। তা হবে সহনীয় মাত্রার এবং বাজেট হবে জনকল্যাণমুখী।

বড় করদাতাদের মধ্যে ব্র্যাক ব্যাংক লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও আর এফ হোসাইন, আমেরিকান ইন্সুরেন্স কোম্পানি লিমিটেডের কান্ট্রি হেড সাঈদ হাম্মাদুল করিম, আইডিএলসি ফাইন্যান্স লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও আরিফ খান, সিটি ব্যাংক এনএর ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং সিটি কান্ট্রি অফিসার এন রাজাশেকারান শেকর উপস্থিত ছিলেন।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১১ এপ্রিল ২০১৮/এম এ রহমান/রফিক

   
 



আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

সিনেমায় অভিষেক হচ্ছে কোহলির

২০১৮-০৯-২১ ৮:০২:১৯ পিএম

১৬ হাজার টাকা মজুরি ঘোষণার দাবি

২০১৮-০৯-২১ ৬:১৮:০৭ পিএম