ওয়ালটন কারখানা পরিদর্শন করলেন পুলিশের ছয় শতাধিক এসআই

প্রকাশ: ২০১৮-০৪-১২ ৪:৩৪:৪৬ পিএম
অগাস্টিন সুজন | রাইজিংবিডি.কম

অগাস্টিন সুজন : গাজীপুরের চন্দ্রায় ওয়ালটন কারখানা পরিদর্শন করেছেন বাংলাদেশ পুলিশের একটি প্রতিনিধিদল। তারা এ সময় ওয়ালটনের বিভিন্ন প্রযুক্তি পণ্যের উৎপাদন প্রক্রিয়া দেখে মুগ্ধ হন।

ওয়ালটনকে ‘বাংলাদেশের গর্ব’ হিসেবে অভিহিত করে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা আশা প্রকাশ করেন, খুব শিগগিরই ওয়ালটন বিশ্বের অন্যতম ব্র্যান্ড হিসেবে নিজের অবস্থান করে নেবে।

প্রতিনিধিদলে ছিলেন টাঙ্গাইল পুলিশ ট্রেনিং সেন্টারের বিভাগীয় ক্যাডেট কোর্সের ১৫তম ব্যাচের ৬২৯ জন এসআইসহ (সাব ইন্সপেক্টর) প্রায় সাড়ে ছয়শ পুলিশ সদস্য। গতকাল বুধ এবং আজ বৃহস্পতিবার দুই দলে ভাগ হয়ে তারা ওয়ালটন ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্ক পরিদর্শন করেন। প্রতিনিধিদলের নেতৃত্ব দেন টাঙ্গাইল পুলিশ ট্রেনিং সেন্টারের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মাহমুদুল হাসান ফেরদৌস।



এ প্রতিবেদককে মাহমুদুল হাসান ফেরদৌস জানান, দেশীয় ইলেকট্রনিক্স শিল্প এবং এর অভাবনীয় অগ্রগতি সম্পর্কে বাস্তব ধারণা লাভ করতে প্রশিক্ষণের অংশ হিসেবে তারা ওয়ালটন কারখানা পরিদর্শন করেন। দেশেই টিভি-ফ্রিজ-এসির মতো উচ্চমানের ইলেকট্রনিক্স পণ্যের উৎপাদন প্রক্রিয়া দেখে তারা রোমঞ্চিত।

এর আগে ওয়ালটন কারখানায় পৌঁছালে তাদের শুভেচ্ছা জানান ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর (প্রোডাকশন) আলমগীর আলম সরকার। এ সময় উপস্থিত ছিলেন এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম, ডেপুটি এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর মোহাম্মদ ইউসুফ আলী, অপারেটিভ ডিরেক্টর মোহাম্মদ শাহাজাদা সেলিম প্রমুখ।



প্রতিনিধিদলের সদস্যরা প্রথমে ওয়ালটনের বিভিন্ন পণ্যের উৎপাদন প্রক্রিয়ার ওপর নির্মিত ডকুমেন্টারি উপভোগ করেন। এরপর যান প্রোডাক্ট ডিসপ্লে সেন্টারে। পরে তারা বিভিন্ন উৎপাদন ইউনিট ঘুরে দেখেন। সরেজমিনে প্রত্যক্ষ করেন এইচএফসি গ্যাসমুক্ত ইন্টেলিজেন্ট ইনভার্টার প্রযুক্তির রেফ্রিজারেটর উৎপাদন ইউনিট, বিশ্বের লেটেস্ট প্রযুক্তি ও মেশিনারিজের সমন্বয়ে উৎপাদিত ওয়ালটন কম্প্রেসর কারখানাসহ অন্যান্য উৎপাদন ইউনিট। এ সময় তারা ওয়ালটনের সুবিশাল এবং অত্যাধুনিক কারখানা দেখে গর্ববোধ করেন।

পরিদর্শন শেষে প্রতিনিধিদলের নেতা মাহমুদুল হাসান ফেরদৌস বলেন, ‘দেশেই যে প্রযুক্তিপণ্যের এত বড় কারখানা রয়েছে, তা আমাদের জানা ছিল না। শুধু ওয়ালটনের রেফ্রিজারেটর উৎপাদন ইউনিট দেখতেই আমাদের ৪ ঘণ্টা সময় লেগেছে। এতদিন বিদেশি বিভিন্ন ব্র্যান্ডের পণ্যের প্রতি আমাদের আকর্ষণ ছিল। কিন্তু ওয়ালটন কারখানা পরিদর্শন করে বুঝতে পেরেছি বাংলদেশে তৈরি ইলেকট্রনিক্স পণ্যের মান তাদের চেয়ে কোনো অংশে কম নয়।’



তিনি আরো বলেন, ‘এক সময় শুধু তৈরি পোশাক শিল্পে বাংলাদেশের সুনাম ছিল। কিন্তু ওয়ালটন প্রমাণ করেছে ইলেকট্রনিক্স পণ্য উৎপাদনেও বাংলাদেশ পিছিয়ে নেই। আমরা আশা করি, ওয়ালটন খুব শিগগিরই বিশ্ব খ্যাত ব্র্যান্ড হিসেবে বহিঃর্বিশ্বে বাংলাদেশের নাম উজ্জ্বল করবে।’

পরিদর্শন শেষে ওয়ালটন হাই-টেক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের পরিচালক এস এম মাহবুবুল আলম প্রতিনিধিদলের সঙ্গে মতবিনিময় করেন। পরিদর্শনে আসার জন্য তিনি পুলিশ সদস্যদের ধন্যবাদ জানান।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১২ এপ্রিল ২০১৮/সুজন/সাইফ

   



আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

পাবনায় অটোরিকশা ধর্মঘট অব্যাহত

পাবনায় অটোরিকশা ধর্মঘট অব্যাহত

২০১৮-০৪-২১ ৭:৩২:৩০ পিএম
শাকিবকে নিয়ে নায়িকার আফসোস

শাকিবকে নিয়ে নায়িকার আফসোস

২০১৮-০৪-২১ ৬:৫৯:৪০ পিএম
‘মুভি মোগল এ কে এম জাহাঙ্গীর খান’

‘মুভি মোগল এ কে এম জাহাঙ্গীর খান’

২০১৮-০৪-২১ ৬:৪৬:১৩ পিএম