খেলাপি ঋণ কমাতেই হবে: অর্থমন্ত্রী

প্রকাশ: ২০১৯-০২-০৭ ৩:২৫:০১ পিএম
হাসিবুল ইসলাম | রাইজিংবিডি.কম

নিজস্ব প্রতিবেদক : অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, ব্যাংক খাতের খেলাপি ঋণ আমাদের কমাতেই হবে।

বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের এনইসি সম্মেলন কক্ষে তিনি এ কথা বলেন।

এর আগে সকাল সাড়ে ১০টায় বাণিজ্য সংগঠন ও ব্যবসা-বাণিজ্য সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে এই আলোচনা শুরু হয় সরকারের।

দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে ব্যবসা ও শিল্প-বাণিজ্যের অনুকূল পরিবেশ সৃষ্টির লক্ষ্যে করণীয় নির্ধারণ করতে ধারাবাহিক আলোচনায় বসেছিলেন অর্থমন্ত্রী ও প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান এফ রহমানসহ দেশের ব্যবসায়ীদের বিভিন্ন সংগঠনের প্রতিনিধিরা।

বৈঠক শেষে অর্থমন্ত্রী বলেন, ব্যাংক খাতের খেলাপি ঋণের সংখ্যা আমাদের কমাতেই হবে। নয়তো বাংক খাত দিন দিন দুর্বল হয়ে পড়বে। তাই আমি আগেও বলেছি আজ আবারো বলছি খেলাপি ঋণ অনেকাংশে কমিয়ে আনতেই হবে।

মন্ত্রী বিলেন, ব্যবসায়ীদের কথা আমি খুব গুরুত্ব সহকারে শুনেছি। তাদেরকে আমি আশ্বস্ত করেছি যে তাদের যে দাবি দাওয়া আছে তা মানা হবে।  

রাজস্ব আদায়ে সরকারের লক্ষ্যমাত্রা পূরণ করলে ব্যবসায়ীরা যেভাবে চাইবে সেভাবেই তাদেরকে সহযোগিতা করা হবে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

মন্ত্রী বলেন, ‘ব্যবসায়ী সংগঠনগুলোর সঙ্গে আমরা ফলপ্রসূ আলোচনা করেছি। কার কী সমস্যা আমরা শুনেছি। তাদের একটা অভিযোগ হলো, আমরা প্রত্যেক বছর তাদেরকে আশ্বস্ত করি, কিন্তু ফাইনালি আমরা সেগুলো বাস্তবায়ন করি না। তবে এবার আমরা তাদেরকে বলেছি, আমরা এগুলো বাস্তবায়ন করব।’

তিনি বলেন, ‘আমরা তাদেরকে যে কথা বলার চেষ্টা করেছি, আমাদের কথা হচ্ছে, কাউকে কষ্ট দেয়া না। কাউকে কষ্ট না দিয়ে আমরা কীভাবে আমাদের রাজস্ব অর্জন করতে পারি। রেভেন্যু আমাদের বাড়াতে হবে এজন্য, কারণ সরকারের চাহিদা অনেক বেড়ে গেছে। আগামীতে চাহিদা আরো অনেক বাড়বে। সেটা মোকাবিলা করার জন্য রাজস্ব আহরণ ছাড়া আর কোনো হাতিয়ার নেই। রাজস্ব আহরণ করার জন্য আমরা যাব, তারা পরিশোধ করবে।’

তিনি বলেন, ‘আমরা গেলাম তারা দিল না, তাহলে রাজস্ব আহরণ হবে না। আমি তাদেরকে কথা দিয়েছি, তাদের সমস্যা আমরা শুনব, আমাদের যে রাজস্ব লক্ষমাত্রা আছে, সেটা তারা পূরণ করবে। আমাদের এ বছর রাজস্ব লক্ষ্যমাত্রা হচ্ছে ২ লাখ ৯৬ হাজার কোটি টাকা। আপনারা আমাদের চাহিদা পূরণ করেন, আর আপনারা যেভাবে চাইবেন, আমরা সেভাবে আপনাদের সহযোগিতা করব। আমরা একটা উইন উইন সিচুয়েশনে যাচ্ছি, তারাও জিতবে আমরাও জিতব। এই মানসিকতা নিয়ে আমরা বসেছিলাম।’

‘আজকে আশা করি, কোনো ব্যবসায়ীই অভিযোগ করবেন না যে, তারা আমাদের কাছে এসেছেন আর আমরা তাদেরকে সাহায্য-সহযোগিতার হাত আমরা প্রশারিত করি নাই’, যোগ করেন অর্থমন্ত্রী।

তিনি বলেন, ‘আমি বলছি, আর খেলাপি ঋণ বাড়বে না। যদি বেড়ে থাকে তাহলে বলেন যে, বাড়ছে। ডেইলি বেসিসে তো আর খেলাপি ঋণ বের করা যায় না। বের করতে হলে ছয় মাস বা এক বছর লাগবে।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯/হাসিবুল/ইভা/সাইফ   

   
 


Walton AC

আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

মাতৃভাষা দিবস ও একুশের চেতনা

২০১৯-০২-২১ ৬:২৭:৪৫ পিএম

শিশুদের কলাগাছের শহীদ মিনার

২০১৯-০২-২১ ৫:০৯:৪১ পিএম

চকবাজারের ঘটনায় তারকাদের শোক

২০১৯-০২-২১ ৪:৫৪:০৭ পিএম

চুড়িহাট্টা এখন মৃত্যুপুরী

২০১৯-০২-২১ ৪:৩১:৩৫ পিএম

স্বজনরা লাশ বুঝে নিচ্ছেন

২০১৯-০২-২১ ৪:০৩:২৭ পিএম