গোপালগঞ্জের বশেমুরবিপ্রবিতে পিঠা উৎসব

প্রকাশ: ২০১৮-০২-০৪ ৫:৪৭:০৯ পিএম
বাদল সাহা | রাইজিংবিডি.কম

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি : হরেরকম পিঠা দিয়ে পিঠা উৎসবের আয়োজন হয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (বশেমুরবিপ্রবি)।

বাংলা ও বাঙালির ঐতিহ্যকে ফুটিয়ে তোলার মাধ্যমে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শেখ হাসিনা চত্বরে বাংলা বিভাগ এই বর্ণিল পিঠা উৎসবের আয়োজন করে। এ সময় হরেকরকম পিঠায় উৎসবে মেতে উঠেছিল পুরো বিশ্ববিদ্যালয়।

রবিবার সকালে এ পিঠা উৎসবের উদ্বোধন করেন রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর ড. বিশ্বজিৎ ঘোষ। এ সময় জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. হিমেল বরকত, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. শিপ্রা সরকার, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের সভাপতি মো. আব্দুর রহমান, বাংলা বিভাগের শিক্ষক জাকিয়া সুলতানা মুক্তা, মুমতাহানা মৌ, সানজিদা হক মিশুসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক ও শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন।



গ্রামবাংলার নানা ধরনের পিঠাসহ স্টলগুলোয় ছিল প্রায় ৭০ প্রকারের পিঠার সমাবেশ। এর মধ্যে উল্লেখযোগ্য হলো- চিতই, ভাপা, পুলি, তক্তি, নকশি পিঠা, ডিমের পুডিং, পাটি সাপটা, ঝাল চন্দ্রকোনা, চন্দনকুলি, দুধ খেঁজুর, নারকেলের চিড়া, রসপান, হৃদয়হরণ, গোকুল পিঠা।

বাংলা বিভাগের সভাপতি আব্দুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, ‘এ উৎসবের লক্ষ্য পাশ্চাত্য আকাশ সংস্কৃতি থেকে বাংলা বিভাগের শিক্ষার্থীসহ সকলকে মুক্ত করে সবার মাঝে বাঙালি ঐতিহ্যকে ধারণ করার একটি প্রবণতা গড়ে তোলা। এ সংস্কৃতির ধারক, বাহক ও রক্ষার দায়িত্ব আমাদের সবার। এই রঙ-বেরঙের পিঠা তৈরিতে নিয়োজিত শিক্ষার্থীসহ যারা এই পিঠা উৎসবে যোগ দিয়েছে তাদের সবাইকে জানাই প্রাণঢালা অভিনন্দন।



রাইজিংবিডি/গোপালগঞ্জ/৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮/বাদল সাহা/মুশফিক

   
 



আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

শোডাউন ছাড়া কোনো চমক নেই এরশাদের

২০১৮-১০-২০ ৮:৫৯:২৫ পিএম

রূপসায় হেইয়ো হেইয়ো, পাড়ে করতালি

২০১৮-১০-২০ ৮:৪৮:৫৪ পিএম