শেষ হাসি সুবর্ণা মুস্তাফার

প্রকাশ: ২০১৯-০২-০৯ ২:০৯:০৯ পিএম
রাহাত সাইফুল | রাইজিংবিডি.কম

সুবর্ণা মুস্তাফা

বিনোদন প্রতিবেদক : জনপ্রিয় অভিনেত্রী সুবর্ণা মুস্তাফা জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনে মনোনীত হয়েছেন। উল্লেখ করার মতো বিষয় হলো, তারকা শিল্পীদের মধ্যে একমাত্র তাকেই এজন্য দল বিবেচনা করেছে। অথচ একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ও জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনের জন্য এবার দেশের শোবিজ অঙ্গনের বিশ জনের অধিক তারকা মনোনয়ন কিনেছিলেন। এই তালিকায় ছিলেন সাবেক সাংসদ কবরী সারোয়ার, সাবেক তথ্য প্রতিমন্ত্রী ও অভিনেত্রী তারানা হালিম, অভিনেত্রী সুজাতা, ফাল্গুনী হামিদ, রোকেয়া প্রাচী, শমী কায়সার, নুজহাত চৌধুরী, চিত্রনায়িকা নূতন, অঞ্জনা সুলতানা, নিপুণ, মৌসুমী, অপু বিশ্বাস, অরুণা বিশ্বাস, তারিন জাহান, শাহানুর, জ্যোতিকা জ্যোতি, মিষ্টি জান্নাত ও কণ্ঠশিল্পী সুমি আক্তারসহ অনেকে। লম্বা এই তালিকা থেকে সাংসদ হওয়ার দৌড়ে টিকে রয়েছেন একমাত্র সুবর্ণা মুস্তাফা।

গতকাল শুক্রবার রাতে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে আওয়ামী লীগের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ডের সভা শেষে দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত মহিলা আসনে মনোনীত ৪১ জনের নামের তালিকা ঘোষণা করেন।

সফল অভিনেত্রী ও প্রযোজক সুবর্ণা মুস্তাফা অভিনয়ে বিশেষ অবদান রাখার জন্য গত ৬ ফেব্রুয়ারি রাষ্ট্রের অন্যতম শীর্ষ মর্যাদা একুশে পদকে ভূষিত হয়েছেন। তিন দশকেরও বেশি সময় ধরে অভিনয়ের আঙিনায় মুগ্ধতা ছড়িয়ে যাচ্ছেন নন্দিত এই অভিনেত্রী। বাংলাদেশের নাট্যজগতে বিশেষ মর্যাদার স্থান অধিকার করে আছেন তিনি। আশির দশকে ছিলেন দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় টিভি অভিনেত্রী। বিশেষ করে আফজাল হোসেন, হুমায়ুন ফরীদি ও আসাদুজ্জামান নূরের সঙ্গে তার জুটি ব্যাপক দর্শকপ্রিয়তা পেয়েছিল। সেইসাথে হুমায়ূন আহমেদের নাটক ও চলচ্চিত্রে দারুণ সব চরিত্রে কাজ করে সুবর্ণা পৌঁছে গিয়েছেন সব শ্রেণির মানুষের কাছে।

প্রখ্যাত অভিনেতা গোলাম মুস্তাফার মেয়ে সুবর্ণা মুস্তাফা ১৯৫৯ সালের ২ ডিসেম্বর জন্মগ্রহণ করেন। তিনি পড়াশোনা করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগে। আসাদুজ্জামান নূর অভিনীত  বাকের ভাইয়ের নায়িকা ‘মুনা’ চরিত্রে দেখা যায় সুবর্ণাকে। এতে অভিনয় করে বেশ প্রশংসা পান তিনি। তারপর নিয়মিতভাবেই তাকে হুমায়ূন আহমেদের নাটকে কাজ করতে দেখা যায়। তারমধ্যে দারুণ জনপ্রিয়তা পায় ‘আজ রবিবার’ নাটকটি।

১৯৯২ সালে মুক্তি পাওয়া হুমায়ূন আহমেদের উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত মুস্তাফিজুর রহমানের ‘শঙ্খনীল কারাগার’ সিনেমায় অভিনয় করেও দর্শক মনে দোলা দিয়েছিলেন তিনি। তবে চলচ্চিত্রে সুবর্ণার অভিষেক ঘটে ১৯৮০ সালে সৈয়দ সালাউদ্দিন জাকী পরিচালিত ‘ঘুড্ডি’র মাধ্যমে। নাটকের পাশাপাশি চলচ্চিত্রে সাফল্য পেলেও তিনি নিয়মিত গড়পড়তা চলচ্চিত্রে অভিনয় করেননি। কিছু জীবন ঘনিষ্ঠ চলচ্চিত্রে তার উপস্থিতি দেখা গেছে।

তবে মূলধারার কিছু সিনেমাতেও তার উপস্থিতি লক্ষ্যণীয়। ‘নয়নের আলো’ সিনেমাতে তার অভিনয় সব শ্রেণির দর্শককে নাড়া দিয়েছিল। ১৯৮৩ সালে ‘নতুন বউ’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করে তিনি শ্রেষ্ঠ সহ-অভিনেত্রী হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পান।




রাইজিংবিডি/ঢাকা/৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯/রাহাত/মারুফ

   
 


Walton AC

আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

বইমেলায় বক্তৃতা শেখার বই

২০১৯-০২-২০ ১০:১৪:৪৪ পিএম

বিএনপিতে নতুন নেতৃত্ব আনার দাবি

২০১৯-০২-২০ ৮:২৩:৫৭ পিএম