বাংলা ভাষার শত্রু খাজা নাজিমুদ্দিন

প্রকাশ: ২০১৮-০২-০৩ ৯:৪৪:৪০ এএম
শাহ মতিন টিপু | রাইজিংবিডি.কম

শাহ মতিন টিপু : বায়ান্ন’র মাতৃভাষা রক্ষার আন্দোলনে উর্দুর পক্ষে ভূমিকার জন্য ছাত্র-জনতার রোষের মুখে পড়েছিলেন তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী খাজা নাজিমুদ্দিন।

সে রোষ কাটাতে ১৯৫২ সালের ফেব্রুয়ারির ৩ তারিখে খাজা নাজিমুদ্দিন সাংবাদিক সম্মেলন আহ্বান করেন। কিন্তু এই সম্মেলনে প্রদত্ত বক্তব্য কোনোভাবেই ছাত্রদের কাছে গ্রহণযোগ্য মনে হয়নি।

মূলত, ফেব্রুয়ারির সেই উত্তাল দিনে উর্দু ভাষার পক্ষে বেফাঁস কথা বলে মহাসমস্যায় পড়েন প্রধানমন্ত্রী খাজা নাজিমুদ্দিন। আন্দোলনের মুখে খাজা নাজিমুদ্দিন অবস্থান থেকে সরে আসতে বাধ্য হন।

রাষ্ট্রভাষা বিষয়ে তার বক্তব্য ও অবস্থান ব্যাখ্যার জন্যই তিনি ৩ ফেব্রুয়ারির সাংবাদিক সম্মেলনের আয়োজন করেন ।

খাজা নাজিমুদ্দিন জানান, পল্টন ময়দানে রাষ্ট্রভাষা সম্পর্কে যা বলেছেন তা সবই কায়েদে আজমের কথা, তার নিজের কথা নয়। এরপরও তিনি রাষ্ট্রের নিরাপত্তা, প্রাদেশিকতার বিপদ ইত্যাদি নিয়ে তাদের বহুকথিত বক্তব্যই তুলে ধরেন। আসলে রাজনৈতিক জীবনের গোটা সময়টাতে তিনি ছিলেন কায়েদের ভক্ত, কায়েদের অনুসারী। আর সেজন্য কায়েদে আজমও তাকে সোহরাওয়ার্দীর চেয়েও বিশ্বস্ত ভক্ত হিসাবে কাছে টেনেছেন।

শেষ পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী খাজা নাজিমুদ্দিন রাষ্ট্রভাষা বিষয়ক তার সব বক্তব্যের দায় কায়েদের ওপর চাপিয়ে দিয়ে সাংবাদিকদের এমন কথাও বলেন যে, তিনি কায়েদের নীতিতে দৃঢ় বিশ্বাসী। তবে এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবার অধিকার মাত্র গণপরিষদেরই রয়েছে। ব্যস, সব চুকে-বুকে গেল। এমন ধারণা নিয়ে তিনি পরদিন ঢাকা ত্যাগ করেন। কিন্তু বুঝতে পারেননি যে, গত কয়েক বছরে জমা ক্ষোভের শুকনো বারুদে স্ফুলিঙ্গপাত ঘটিয়ে গেছেন তিনি।

ভাষা সংগ্রামী আহমদ রফিক এ প্রসঙ্গে লেখেন, তিনি হয়তো ভুলে গিয়েছিলেন, চার বছর আগে পূর্ববঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী থাকাকালে ভাষা আন্দোলন তাকে কী সংকটেই না ফেলে দিয়েছিল। অনেক কাঠখড় পুড়িয়ে সে পরিস্থিতির দায় থেকে মুক্তি, তবে পূর্ণ মুক্তি ঘটেছিল তাদের 'কায়েদে আজম'-এর কল্যাণে। তিনি আট দফা চুক্তি খারিজ করে দিয়ে খাজা সাহেবকে বন্ধনমুক্ত করেছিলেন। সে ঋণ ভুলে যাবার নয়। এবারও তিনি পরিস্থিতি বুঝে পূর্ব পরিত্রাতার দিকেই হাত বাড়িয়ে দেন।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮/টিপু

   
 



আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

আবার দক্ষিণ আফ্রিকায় আইপিএল?

২০১৮-০৯-২২ ১০:৫২:৩৮ পিএম

লিভারপুলের জয়রথ চলছেই

২০১৮-০৯-২২ ১০:৩০:৪৮ পিএম

সিটির বড় জয়, হোঁচট খেল ইউনাইটেড

২০১৮-০৯-২২ ১০:০৮:০৮ পিএম

জয় ছিনিয়ে আনা সিভি লিখতে হলে

২০১৮-০৯-২২ ৯:৫৪:৪৭ পিএম

ত্বকের ক্যানসারের ৫ নীরব লক্ষণ

২০১৮-০৯-২২ ৯:১৪:১৮ পিএম