চলন্ত বাসে গণধর্ষণ : ৫ আসামি কারাগারে

প্রকাশ: ২০১৮-০৪-১৫ ৫:৩৩:৫২ পিএম
মামুন খান | রাইজিংবিডি.কম

নিজস্ব প্রতিবেদক : ঢাকার ধামরাইয়ে এক নারী পোশাক শ্রমিককে চলন্ত বাসে গণধর্ষণের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় পাঁচ আসামিকে রিমান্ড শেষে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ধামরাই থানার ওসি (অপারেশন) জাকারিয়া হোসেন গতকাল শনিবার তিন দিনের রিমান্ড শেষে আসামিদের আদালতে হাজির করে মামলার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন।

আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ঢাকার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আফসানা আবেদীন আসামিদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

কারাগারে যাওয়া আসামিরা হলেন- গাড়িচালক বাবু মল্লিক (২৪), শ্রী বলরাম (২০), মো. আব্দুল আজিজ (৩০), সোহেল (২২) ও মকবুল হোসেন (৩৮)।

গত ১০ এপ্রিল আসামিদের তিন দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত।

প্রসঙ্গত, গত ৮ এপ্রিল দিবাগত রাত ১২টার দিকে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের ধামরাইয়ের কচমচ এলাকা থেকে চলন্ত বাস থামিয়ে ওই নারী পোশাক শ্রমিককে উদ্ধারসহ অভিযুক্তদের আটক করা হয়।

ধামরাই থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মলয় সাহা জানান, কারখানায় কাজ শেষে ধামরাইয়ের ইসলামপুর থেকে যাত্রীসেবা নামের একটি লোকাল যাত্রীবাহী বাসে ওই নারী পোশাক শ্রমিক ওঠেন। বাসটি ধামরাইয়ের কালামপুর বাস স্ট্যান্ড এলাকায় পৌঁছালে পাঁচজন যাত্রী ব্যতীত সকল যাত্রী নেমে যায়। এরপর বাসের চালকের সহকারী বাসের দরজা বন্ধ করে দেন এবং চালক বাসটি মহাসড়কে উদ্দেশ্যহীনভাবে চালাতে শুরু করেন। পরে ওই পাঁচ যাত্রীবেশী যুবকসহ বাকিরা নারী শ্রমিককে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা চালান। এদের মধ্যে চালকসহ পাঁচজনের দ্বারা ধর্ষণের শিকার হন ওই নারী। এ সময় ওই নারীর ডাক-চিৎকারে একটি পেট্রোল পাম্পের কর্মীরা বিষয়টি বুঝতে পেরে ধামরাই থানা পুলিশকে খবর দেয়।

সংবাদ পাওয়ার পর পুলিশের চারটি পৃথক দল বাসটি ধাওয়া করে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের কচমচ এলাকা থেকে আটক করে এবং ভুক্তভোগী নারীকে উদ্ধার ও যাত্রীবেশে চালকের সহযোগী ওই সাতজনকে আটক করে।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৫ এপ্রিল ২০১৮/মামুন খান/রফিক

   



আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

স্ট্যানলেকের আইপিএল শেষ

স্ট্যানলেকের আইপিএল শেষ

২০১৮-০৪-২৪ ৯:২২:০৪ পিএম
রাজধানীতে বাস চালকের গলায় ফাঁস

রাজধানীতে বাস চালকের গলায় ফাঁস

২০১৮-০৪-২৪ ৯:১৮:১১ পিএম