ফালুর এক ভাই ও তিন আত্মীয়কে তলব

প্রকাশ: ২০১৮-০৯-২০ ৯:২৬:৫৪ পিএম
এম এ রহমান | রাইজিংবিডি.কম

নিজস্ব প্রতিবেদক : অবৈধ সম্পদ অর্জনসহ আরো কিছু দুর্নীতির অভিযোগ অনুসন্ধানে খালেদা জিয়ার প্রাক্তন উপদেষ্টা মোসাদ্দেক আলী ফালুর ভাই ও নিকট আত্মীয়সহ ৪ জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

বৃহস্পতিবার দুদকের প্রধান কার্যালয় থেকে সংস্থাটির সহকারী পরিচালক ও অনুসন্ধান কর্মকর্তা গুলশান আনোয়ার প্রধান তাদের তলবি নোটিশ পাঠিয়েছেন।

নোটিশে তাদেরকে আগামী ২৫ সেপ্টেম্বর হাজির হতে বলা হয়েছে। দুদকের ঊর্ধ্বতন একটি সূত্র রাইজিংবিডিকে নিশ্চিত করেছেন।

যাদের তলব করা হয়েছে তারা হলেন, মোসাদ্দেক আলী ফালুর ভাই মো. নুরুদ্দিন আহমেদ, তার নিকট আত্মীয় মো. আশরাফুল হক, মো. মাহতাব উদ্দিন ও মো. শাহাব উদ্দিন।

অভিযোগের বিষয়ে দুদক জানায়, মোসাদ্দেক আলী ফালু অবৈধভাবে কোটি কোটি টাকার সম্পদ অর্জন করেছেন ও সরকারের অনুকুলে বাজেয়াপ্তযোগ্য অবৈধভাবে অর্জিত সম্পদ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এর কর্মকর্তাদের সহযোগিতায় অন্যের নামে আমমোক্তার দলিল সম্পাদন করেছে।

অভিযোগ রয়েছে মোসাদ্দেক আলী ফালু তার দুই ভাতিজা মো. আশফাক উদ্দিন আহমেদ ও নাঈম উদ্দীন আহমেদর নামে সব সম্পত্তি ‘পাওয়ার অব অ্যাটর্নি’ দলিল করেছেন। ফালু দুর্নীতির মাধ্যমে এসব সম্পত্তি অবৈধভাবে অর্জন করেছেন এবং তা রাষ্ট্রের অনুকূলে বাজেয়াপ্ত হয়ে যাওয়ার ভয়ে তিনি তার দলিলের মাধ্যমে দুইজনকে দিয়ে দিয়েছেন। এসব দলিল সম্পাদনের ক্ষেত্রে অবৈধভাবে ‘লাভবান’ হয়ে দুবাই থেকে বাংলাদেশের ভাইস কনস্যুলার মো. মেহেদুল ইসলাম ও বাংলাদেশ থেকে সহকারী পররাষ্ট্র সচিব মো. মাসুদ পারভেজ ফালুকে সহযোগীতা করেছেন বলে অভিযোগে বলা হয়েছে।

অভিযোগে আরো বলা হয়, মোসাদ্দেক আলী ফালু তেজগাঁও, ধানমন্ডি, উত্তরা এবং গুলশান সাব-রেজিস্ট্রার এলাকায় থাকা তার পাঁচটি ফ্ল্যাট ও এসব ফ্লাটের পার্কিংয়ের স্থানসহ অন্যান্য সম্পত্তি রোজা প্রোপার্টির দুই পরিচালক আশফাক উদ্দিন ও নাঈম উদ্দীনকে দলিল করে দিয়েছেন।

এছাড়া তেজগাঁও শিল্প এলাকায় বাড়ির ভূমি ২ দশমিক ৫২০২ কাটা, তেজগাঁও মোজার ৬৬০ অযুতাংশ বাড়ি ভুমি; উত্তরখান মোজার ৩৪ শতাংশ ভিটি ভূমি ও এসব ভূমির ওপর ৬৪টি দোকান এবং জোয়ার সাহারা মৌজার ২৪৭ দশকিম ৫০ অজুতাংশ ভিটি ভূমি ফালু দলিল করে দিয়ে দিয়েছেন বলে অভিযোগে বলা হয়।

এদিকে ৮ মিলিয়ন ডলার দুবাইয়ে পাচারের অভিযোগে খালেদা জিয়ার প্রাক্তন উপদেষ্টা মোসাদ্দেক আলী ফালুসহ বেশকিছু ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে আরো একটি অভিযোগ চলমান রয়েছে।

অভিযোগ রয়েছে, মোসাদ্দেক আলী ফালু ও অন্যদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অনিয়ম, দুর্নীতি, তথ্য গোপন ও জালিয়াতিপূর্বক অবৈধ উপায়ে ৮ মিলিয়ন মার্কিন ডলার মানিলন্ডারিংয়ের মাধ্যমে দুবাইয়ে পাচারের অভিযোগ রয়েছে। তারা বিদেশে অফশোর কোম্পানি খুলে মানিল্ডারিং ও হুন্ডির মাধ্যমে সংযুক্ত আরব আমিরাতসহ বিভিন্ন দেশে অর্থপাচার করেছেন।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮/এম এ রহমান/সাইফ

   
 


Walton AC

আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

পঞ্চম গোল্ডেন বুটে মেসির ইতিহাস

২০১৮-১২-১৯ ১০:১৬:০৪ এএম

লিগ কাপের শেষ চারে ম্যানসিটি

২০১৮-১২-১৯ ৯:২৬:০৯ এএম

টিভিতে আজকের খেলা

২০১৮-১২-১৯ ৮:৫২:৫১ এএম

ছবিতে আলোচিত ইরানি অভিনেত্রী

২০১৮-১২-১৯ ৮:২২:৫২ এএম