ঈদে সড়কে প্রাণহানি নিয়ে ভিন্ন তথ্য

প্রকাশ: ২০১৯-০৬-১২ ৩:৩০:২৮ পিএম
হাসিবুল ইসলাম | রাইজিংবিডি.কম

নিজস্ব প্রতিবেদক : ঈদুল ফিতরে দুর্ঘটনায় সড়কে প্রাণহানি নিয়ে ভিন্ন ভিন্ন তথ্য দিয়েছে বিভিন্ন সংগঠন।

নৌ, সড়ক ও রেলপথ রক্ষা জাতীয় কমিটির পক্ষ থেকে বলা হয়েছে ঈদে সড়ক দুর্ঘটনায় ১৪২ জন নিহত হয়েছে। তবে নিরাপদ সড়ক চাই’র পক্ষ থেকে বলা হয়েছে ঈদে সারা দেশে ১২৭টি সড়ক দুর্ঘটনায় ১৮৪ জন নিহত হয়েছে। আবার যাত্রী অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে ঈদে দুর্ঘটনায় ২৪৭ জন নিহত হয়েছে।

বুধবার দুপুরে নিরাপদ সড়ক চাই ও যাত্রী অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের পক্ষ থেকে পাঠানো পৃথক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে। গত সোমবার নৌ, সড়ক ও রেলপথ রক্ষা জাতীয় কমিটি তাদের পর্যবেক্ষণ প্রতিবেদনে জানায়, ঈদুল ফিতরের ছুটিতে সারা দেশে সড়ক দুর্ঘটনায় ১৪২ জন নিহত ও ৩২৪ জন আহত হয়েছে।

আজ নিরাপদ সড়ক চাই’র যুগ্ম মহাসচিব লিটন এরশাদ স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, গত ২৯ মে থেকে ৮ জুন এই ১১ দিনে রাজধানীসহ সারা দেশে সড়ক দুর্ঘটনায় ১৮৪ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে ৩৩২ জন। সারা দেশে ১২৭টি সড়ক দুর্ঘটনায় এসব হতাহতের ঘটনা ঘটে। যা ২০১৮ সালের তুলনায় কম। 

বিভিন্ন পত্রিকা, পত্রিকার অনলাইন সংস্করণ, স্বতন্ত্র অনলাইন নিউজ পোর্টাল, সংবাদ সংস্থা ও টেলিভিশন চ্যানেলের তথ্য-উপাত্তের উপর ভিত্তি করে এ প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে।

পর্যবেক্ষণে দেখা গেছে, এবার সড়কপথে ঈদযাত্রা ছিল তুলনামূলক স্বস্তিদায়ক। নৌপথে দুই একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়াও ঈদযাত্রা ছিল অনেকটা স্বস্তিদায়ক। যেমন ঈদের আগের দিন সদরঘাট টার্মিনালে অতিরিক্ত যাত্রীর চাপ সামলাতে পারেননি কর্তৃপক্ষ। এতে করে একটি পরিবারের কয়েকজন সদস্যের পানিতে পড়া ও অনেকে টিকিট থাকা সত্ত্বেও লঞ্চে উঠতে পারেননি। এসব বিষয়ে আগামীতে নজর দিলে নিসচা মনে করে নৌপথও যাত্রীবান্ধব হয়ে উঠবে।

পাশাপাশি অনলাইনে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রিতে প্রযুক্তিগত সমস্যা ও সিডিউল বিপর্যয়ের কারণে রেলের যাত্রীদের কিছুটা বিড়ম্বনা পোহাতে হয়েছে।

নিরাপদ সড়ক চাই’র পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ঢাকা-টাঙ্গাইল রোড ৪ লেনে উন্নীত হওয়ায় উত্তরবঙ্গের সড়ক দুর্ঘটনা হ্রাসসহ ঢাকা-চট্টগ্রাম রোডে নবনির্মিত তিনটি সেতু (কাঁচপুর, মেঘনা ও গোমতী) খুলে দেওয়ার ফলে ঢাকা থেকে চট্টগ্রামসহ পূর্ববঙ্গের বিভিন্ন জেলায় যানজট হয়নি বললেই চলে এবং সড়ক দুর্ঘটনা এসকল অঞ্চলে তুলনামুলক কম হয়েছে। তবে খুলনা ও যশোর অঞ্চলে দুর্ঘটনা অনেক বেড়ে গেছে। সড়ক দুর্ঘটনার দিক দিয়ে এবারের ঈদে মোটরসাইকেলের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি।

নিরাপদ সড়ক চাই’র চেয়ারম্যান ইলিয়াস কাঞ্চন সড়কে মোটরসাইকেলের দৌরাত্ম্য ও সেচ্ছাচারিতা বন্ধে চালকদের দুই মাসের ওরিয়েন্টেশন কোর্স চালু ও অংশগ্রহণ বাধ্যতামূলক করার প্রস্তাব করেছেন। তিনি মোটরসাইকেল কিনতে গেলে এই কোর্সের সাটর্টিফিকেট প্রদর্শন বাধ্যতামূলক করা এবং নিয়মিত মনিটরিং করার উপর গুরুত্ব আরোপ করেন।

সংগঠনটি জানিয়েছে, ঈদুল ফিতরের ছুটিতে সড়ক দুর্ঘটনায় যানবাহনের সংখ্যা বাস ৪৪টি, ট্রাক ১৬ টি, মোটরসাইকেল ৪৫ টি, কাভার্টভ্যান ৪ টি, নসিমন ৩টি, কার ৪টি, মাহেন্দ্র ১টি ও মাইক্রোবাস ৮টি।

ঈদ যাত্রায় ৩০ মে থেকে ১০ জুন পর্যন্ত দেশে সড়ক, রেল ও নৌপথে সম্মিলিতভাবে ২১২টি দুর্ঘটনায় ২৪৭ জন নিহত ও ৬৬৪ জন আহত হয়েছে বলে জানিয়েছে যাত্রী অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ।

আজ জাতীয় প্রেসক্লাবের জহুর হোসেন চৌধুরী হলে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানায়।

সংগঠনটির সভাপতি ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জি এম কামরুল ইসলাম বলেন, শুধু দেশের সড়কে ১৮৫টি সড়ক দুর্ঘটনায় ২২১ জন নিহত, ৬৫২ জন আহত ও ৩৭৫ জন পঙ্গু হয়েছে।



রাইজিংবিডি/ ঢাকা/১২ জুন ২০১৯/হাসিবুল/আরিফ/ইভা

     


Walton AC

আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

বিশ্ব রেফ্রিজারেশন দিবস পালিত

২০১৯-০৬-২৬ ৯:৪৬:১৩ পিএম

ভারতের বিপক্ষে ভাগ্য সহায় হয় না!

২০১৯-০৬-২৬ ৯:৩৪:৪১ পিএম

আর আমেরিকা যেতে চাইবে না তারা

২০১৯-০৬-২৬ ৯:১৬:৩৮ পিএম
জেএফএ কাপ-২০১৯

আনিকার ডাবল হ্যাটট্রিকে ঠাকুরগাঁও’র বড় জয়

২০১৯-০৬-২৬ ৮:৫৯:৩৯ পিএম

নিশামের ৯৭-এ নিউজিল্যান্ডের ২৩৭

২০১৯-০৬-২৬ ৮:৫১:৩০ পিএম