হাসপাতাল, সাফারি পার্কে টিকিট বিক্রিতেও দুর্নীতি

প্রকাশ: ২০১৯-০৬-২৬ ৮:২৩:০৮ পিএম
এম এ রহমান | রাইজিংবিডি.কম

নিজস্ব  প্রতিবেদক: ঢাকার নবাবগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্যাথলজিকাল টেস্ট ও আউটডোরের টিকিটে এবং গাজীপুরের বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্কের দর্শনার্থীদের টিকিটের অর্থ আত্মসাতের প্রমাণ পেয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন, দুদক এনফোর্সমেন্ট টিম।

এছাড়া বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ ভবনের সামনে নির্মাণাধীন ড্রেনেজ প্রকল্পে ও হবিগঞ্জের দুইটি নদী দূষনের দায়ীদের সনাক্ত করেছে সংস্থাটি।

বুধবার পৃথক অভিযানে মিলেছে এরূপ অভিযোগের সত্যতা।  অভিযানের বিষয়ে দুদকের জনসংযোগ দপ্তর নিশ্চিত করেছে।

দুদক জানায়, ঢাকার নবাবগঞ্জ উপজেলার ৫০ শয্যা বিশিষ্ট স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ব্যাপক অনিয়ম এবং সেবা প্রদানে ভোগান্তির অভিযোগে অভিযান চালায় দুদক।  অভিযানে ব্যবস্থাপনায় ব্যাপক অনিয়ম পায় দুদকের টিম। তারা দেখতে পায়, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কোন কোন টেস্ট করানো হয় তার কোনো তালিকা নেই। এছাড়া প্যাথলজিকাল টেস্ট এবং আউটডোরের টিকিটের টাকা নেয়ার পর যথানিয়মে চালান মারফত সরকারি কোষাগারে জমা দেওয়া হয় না। রশিদ মারফত কত টাকা নেয়া হচ্ছে এবং কত টাকা জমা দেয়া হচ্ছে তারও কোন তদারকি নেই, ফলে এক্ষেত্রে দুর্নীতির যথেষ্ট সুযোগ রয়েছে।

এছাড়া হাসপাতালে ব্যবহৃত একটি এক্সরে মেশিন ২০১৬ সাল থেকে অকেজো এবং ২০১৭ সালে কেনা অপর মেশিনটিও সচল নয়-এমন প্রমাণও পায় দুদকের ঐ দল। এমন মেশিন কীভাবে কেনা হচ্ছে এবং এক্ষেত্রে কোন আর্থিক অনিয়ম হয়েছে কিনা তা যাচাই করে সার্বিক বিষয়ে অনুসন্ধানের অনুমতি চেয়েছে দুদক।

এদিকে গাজীপুরের বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্কে আগত দর্শনার্থীদের নিকট হতে টিকিট বাবদ অতিরিক্ত টাকা আদায়ের অভিযোগে অভিযান পরিচালনা করেছে দুদক। সাফারি পার্কটি পরিচালনার জন্য মেসার্স শিমুল এন্টারপ্রাইজ নামক একটি প্রতিষ্ঠানকে ইজারা দেওয়া হয়। কিন্তু ইজারার শর্তে ছাত্রপ্রতি ১০ টাকা, অপ্রাপ্তবয়স্ক প্রত্যেকের ২০ টাকা এবং প্রাপ্তবয়স্ক প্রতিজন ৫০ টাকা নেয়ার কথা থাকলেও সকল ক্ষেত্রেই ৫০ টাকা নেয়া হচ্ছে-এমন প্রমাণ পাওয়া যায়। এভাবে জনসাধারণের বিপুল পরিমাণ অর্থ অবৈধভাবে আত্মসাত করা হচ্ছে জানতে পেরে দুদকের দলটি অবিলম্বে টিকিট কাউন্টারের পাশে মূল্য তালিকা টানানোর নির্দেশনা দেয়।

বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ ভবনের সামনে নির্মাণাধীন ড্রেনেজ প্রকল্পে অনিয়মের অভিযোগে পরিচালিত অভিযানে নিন্মমানের নির্মাণ সামগ্রী ব্যবহার করা হয়েছে বলে প্রমাণ পাওয়া গেছে।

অন্যদিকে হবিগঞ্জের পুরাতন খোয়াই ও সুতাং নদী দূষণের অভিযোগে অভিযান পরিচালনা করেছে দুদক। অভিযানকালে অভিযোগের প্রাথমিক সত্যতা পাওয়া যায়। দুদকের দলটি জানতে পারে যে, নদী দুটির পাশে প্রাণ আরএফএলের কারখানা হতে নির্গত বর্জ্যের কারণে সেগুলো দূষিত হচ্ছে। দুষণ বন্ধ করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার জন্য পরিবেশ অধিদপ্তরের চিঠি দেয়ার সুপারিশ করেছে দুদক।

 

 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/২৬ জুন ২০১৯/এম এ রহমান/ সাজেদ

     


Walton AC

আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

‘দেশটাকে সবাই মিলে গড়তে হবে’

২০১৯-০৭-২০ ১০:৫৮:০১ পিএম

লাইফ জ্যাকেট ছাড়াই নদীতে, অতঃপর...

২০১৯-০৭-২০ ১০:৫০:২৪ পিএম

ব্যাডমিন্টন ক্রীড়াসামগ্রী বিতরণ

২০১৯-০৭-২০ ১০:২৮:২৫ পিএম

‘মাদক জাতিকে ধ্বংস করে’

২০১৯-০৭-২০ ১০:১৪:৫৮ পিএম

১০ রেস্টুরেন্টকে জরিমানা

২০১৯-০৭-২০ ৯:৩৯:০২ পিএম

বিপিএল মাতাবেন জেপি ডুমিনি

২০১৯-০৭-২০ ৯:২৫:৩৬ পিএম