ফাঁকা বন্দরনগরীর নিরাপত্তায় ৩ হাজার পুলিশ

প্রকাশ: ২০১৪-০৭-২৭ ১০:৩৫:৪১ এএম
| রাইজিংবিডি.কম

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম : ঈদুল ফিতরের অঘোষিত ছুটি শুরু হয়েছে বৃহস্পতিবার থেকেই। আর এদিন থেকেই মুলত ফাঁকা হতে শুরু করে বন্দরনগরী চট্টগ্রাম।

রোববার সরকারি-বেসরকারি সব প্রতিষ্ঠানের শেষ কর্মদিবস। রোববার সন্ধ্যার মধ্যেই পুরোপুরি ফাঁকা হয়ে যাবে চট্টগ্রাম শহর। আর এই ফাঁকা নগরীর নিরাপত্তায় কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশ (সিএমপি)।

সোমবার ঈদের ছুটি শুরুর দিন থেকে আগামী ২ আগস্ট পর্যন্ত ফাঁকা বন্দরনগরীর নিরাপত্তায় তিন হাজার পুলিশ দায়িত্ব পালন করবে।

চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার বনজ কুমার মজুমদার রাইজিংবিডিকে জানান, ঈদের ছুটিতে ফাঁকা হয়ে যাওয়া নগরীর বাণিজ্যিক ও আবাসিক এলাকায় চুরি, ডাকাতিসহ নানা অপরাধ কর্মকাণ্ডের আশংকায় এবার তিন স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে সিএমপি।

নগরীর প্রত্যেকটি আর্থিক প্রতিষ্ঠান, অফিসপাড়া ও অভিজাত আবাসিক এলাকায় গোয়েন্দা নজরদারি বৃদ্ধি করা হয়েছে। পুলিশের তিন হাজারেরও বেশি সদস্য এ নিরাপত্তা ব্যবস্থার আওতায় কাজ করবে। এ ছাড়া র‌্যাবের টহলও জোড়দার থাকবে নগরীর প্রতিটি এলাকায়।

সিএমপির ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা জানান, প্রায় ৫০ লাখ জনসংখ্যা অধ্যুষিত বন্দরনগরী চট্টগ্রাম থেকে প্রায় ২৫ লাখ মানুষ রোববার সন্ধ্যার মধ্যে নিজ নিজ গ্রামের বাড়ির উদ্দেশ্যে শহর ত্যাগ করবে। এতে নগরীর অনেক এলাকা পুরোপুরি ফাঁকা হয়ে যাবে। বন্দরনগরী ফাঁকা হওয়ায় সুযোগে চোর, ডাকাত ও ছিনতাইকারীরা সক্রিয় হয়ে উঠতে পারে। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ও শান্তিশৃঙ্খলা নষ্ট হয় এমন কাজ করতে পারে সন্ত্রাসীরা।

যা মোকাবিলা করতে পুলিশ প্রশাসন তিন স্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। বিভিন্ন বাণিজ্যিক ব্যাংক, এটিএম বুথ, বিলাস বহুল মার্কেট ও বাণিজ্যিক এলাকায় কঠোর নিরাপত্তা বেষ্টনি গড়ে তোলার জন্য প্রত্যেক থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে জানান চট্টগ্রাম পুলিশ কমিশনার শফিকুল ইসলাম।

এ ছাড়া গোয়েন্দা পুলিশের একাধিক টিম গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় মোতায়েন থাকবে। নগরীর আবাসিক এলাকার মালিক সমিতি, হাট বাজার, বিপণিবিতান দোকান মালিক সমিতির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকদের ঈদের বন্ধে সতর্ক থাকার জন্য এবং নিজ নিজ এলাকার প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখার জন্য পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। কয়েকটি বিশেষ স্থানে পুলিশ সদস্য ছাড়াও সাদা পোশাকে পুলিশ ও র‌্যাবের সদস্যরা নজরদারি করবে।


রাইজিংবিডি/চট্টগ্রাম/২৭ জুলাই ২০১৪/রেজাউল করিম/রণজিৎ

     


Walton AC

আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

আবারো বা‌লিশ নি‌য়ে বিক্ষোভ

২০১৯-০৫-২১ ২:৫০:০৭ পিএম