প্রেসক্লাবে দুই ইসলামের আওয়াজ শুনি : নাসিম

প্রকাশ: ২০১৪-০৭-২৭ ২:২৯:৫০ পিএম
| রাইজিংবিডি.কম

নিজস্ব প্রতিবেদক : প্রেসক্লাবে শুধু দুই ইসলামের আওয়াজ শুনি, এক কামরুল ইসলাম আরেক মির্জা ফখরুল ইসলাম- এই মন্তব্য করেছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সভাপতিম-লীর সদস্য মোহাম্মদ নাসিম।

রোববার দুপুরে রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট আয়োজিত এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এই মন্তব্য করেন এই আওয়ামী লীগ নেতা।

নাসিম বলেন, ‘প্রেসক্লাবে শুধু শুনি দুই ইসলাম, মির্জা ফখরুল ইসলাম আর কামরুল ইসলাম; কারণ দুজনের নামের শেষেই ইসলাম।’

তিনি বলেন, ‘আমি জানতাম না, কামরুল ভাই এখানে আসবেন। যাক অনেক দিন পর আমরা একসঙ্গে বক্তব্য দিচ্ছি। ওনি তো আবার গরম সময়ে গরম বক্তব্য ভালোই দেন। এজন্য ওনাকে ধন্যবাদ।’

‘কেন সংলাপ হবে, কিসের সংলাপ’ বলে মন্তব্য করে তিনি আরো বলেন, ‘আগামী নির্বাচন হবে সংবিধান অনুযায়ী। সংবিধানের কোথাও নেই নির্বাচন নিয়ে সংলাপ হতে হবে। কোথাও লেখা নেই, কোন দল নির্বাচন না করলে নির্বাচন হবে না। আর কোথাও লেখা নেই একটি নির্দিষ্ট শতাংশ ভোট না পড়লে আবার নির্বাচন হবে। সংবিধানে আছে মানুষ নির্বাচনে ভোট দিলেই নির্বাচন হবে।’

‘বিএনপির চরিত্র হয়েছে রাজনৈতিক শিষ্টাচার না মানা’- এই দাবি করে নাসিম বলেন, ‘একজন প্রধানমন্ত্রী বিদেশে গেলে তাকে যেভাবে রিসিভ করা দরকার ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী সেভাবেই রিসিভ করেছেন। কিন্তু বিএনপি এটা নিয়েও এখন সমালোচনা করছে। আমাদের ঘরে বিভেদ থাকতে পারে, মত পার্থক্য থাকতে পারে কিন্তু দেশের প্রধানমন্ত্রীর বিদেশ সফর নিয়ে কেউ বিতর্ক সৃষ্টি করে- এমনটি দুনিয়ার কোথাও নেই। এর আগে তারা ভারতের আমন্ত্রিত রাষ্ট্রপতিকে পর্যন্ত অপমান করেছে। তার খেসারত এখন দিতে হচ্ছে।’

এই আ’লীগ নেতা বলেন, ‘বিএনপি যুদ্ধ ঘোষণা করেছে। ওরা যুদ্ধ ঘোষণা করে মানুষকে পুড়িয়ে মারার জন্য, মানুষকে ধ্বংস করার জন্য। আর আমরা যুদ্ধ ঘোষণা করেছি নিরক্ষরতা দূর করার জন্য, প্রতিটি গ্রামে ডাক্তার পৌঁছানোর জন্য ও দেশের উন্নয়নের জন্য।’

বিএনপির উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘আপনাদের ভুলের খেসারত আপনাদেরকেই  দিতে হবে। অন্য কেউ দেবে না। আপনি কেন নির্বাচন করলেন না। দুনিয়ার কোথাও কেউ নির্বাচনের রায় বদলাতে পারে না। এখন ক্যামেরার যুগ। দুনিয়া অনেক দূর এগিয়ে গেছে।’

মন্ত্রী বলেন, ‘ঈদের পর দেখবেন, ওনি (খালেদা জিয়া) আন্দোলন করবেন। আর আমরা ছয় হাজার চিকিৎসক গ্রামে নিয়োগ দেবো।

সংগঠনের সভাপতি অ্যাডভোকেট তারানা হালিম এমপির সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব এটিএম শামসুজ্জামান, কৃষক লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শেখ মো. জাহাঙ্গীর আলম ও বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক অরুণ সরকার রানা প্রমুখ।

 


রাইজিংবিডি/ঢাকা/২৭ জুলাই ২০১৪/এনআর/শাহনেওয়াজ

     


Walton AC

আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

টিভিতে আজকের খেলা

২০১৯-০৫-২৪ ১১:৪৩:৪০ এএম

তৃতীয় সপ্তাহেও কমেছে সবজির দাম

২০১৯-০৫-২৪ ১০:৪৮:৪৪ এএম

পাকিস্তানের ‘মিশন ইম্পসিবল’!

২০১৯-০৫-২৪ ৯:১৮:৪৮ এএম

চট্টগ্রামে ৫৪ রোহিঙ্গা আটক

২০১৯-০৫-২৪ ৯:১১:২১ এএম

কমলাপুর স্টেশনে আগুন

২০১৯-০৫-২৪ ৯:০৭:০৯ এএম