‘ভুল না শোধরালে বিএনপির সংকট আরো বাড়বে’

প্রকাশ: ২০১৯-০২-০৩ ৭:১৭:৪৩ পিএম
রেজা পারভেজ | রাইজিংবিডি.কম

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক : ভুল থেকে শিক্ষা না নিলে ভবিষ্যতে বিএনপির সংকট আরো বাড়বে বলে মনে করেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ।

রোববার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে এক স্মরণ সভায় তিনি বলেন, ‘আজকে বিএনপির ফখরুল ইসলামরা (মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর) নেতিবাচক রাজনীতি করছেন। ক্ষমতা থেকে তাই তারা অনেক দূরে, জনগণ তাদের প্রত্যাখ্যান করেছেন। তাদের নেতিবাচক রাজনীতি এভাবে চলতে থাকলে তাদের সংকট আরো বাড়বে। মুসলিম লীগ যেমন পাকিস্তান আমলের পর হারিয়ে গেছে, নিজেদের ভুল না শোধরালে বিএনপিরও একই দশা হবে।’

আসন্ন উপজেলা নির্বাচনে বিএনপিকে অংশ নেওয়ার আহ্বান জানান মাহবুব উল আলম হানিফ।

আওয়ামী লীগের প্রাক্তন সাধারণ সম্পাদক প্রয়াত সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের স্মরণে এ সভার আয়োজন করে ‘স্বপ্ন ফাউন্ডেশন’।

মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার চা-চক্রের নিমন্ত্রণে না গিয়ে বিএনপি আলোচনার সুযোগ হারিয়েছে। যে কারো নিমন্ত্রণ গ্রহণ করা শিষ্টাচারের অংশ। কিন্তু বিএনপি শিষ্টাচারবহির্ভূত আচরণ করে চা-চক্রে গেল না। সেখানে আলোচনার সুযোগ ছিল আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে। সে সুযোগ বিএনপি হারিয়েছে।’

আওয়ামী লীগের এই যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘আমরা অবাক হই, যখন বিএনপি কথায় কথায় মামলা-নির্যাতনের কথা বলে। যখন আশরাফ ভাইয়ের বাবা জাতীয় নেতা সৈয়দ নজরুল ইসলামসহ অন্য নেতাদের কারাগারে হত্যা করা হলো, সেনাবাহিনীর ১২ শতাধিক অফিসার হত্যা করে রাষ্ট্রীয় ক্ষমতা কুক্ষিগত করেছিল বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান, সে সময় পিতা হত্যার বিচার না পেয়ে দেশ ছেড়েছিলেন আশরাফ ভাই। তখন কোথায় ছিল বিএনপির বিবেক?’

সৈয়দ আশরাফকে বিরল রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব অভিহিত করে তিনি বলেন, ‘রাজনৈতিক জীবনে তিনি স্বল্প ভাষায় প্রজ্ঞা, বিচক্ষণতার পরিচয় দিয়েছেন। কোনো কাজ একা নিজে করতেন না, সবাইকে নিয়ে কাজ করেছেন। পিতাকে হত্যার পরে আশরাফ ভাই লন্ডনে চলে যান। অনেক কষ্টে লেখাপড়া করেছেন। দলের প্রয়োজনে দেশে ফিরে কাজ করেছেন।’

স্মরণসভার প্রধান আলোচকের বক্তব্যে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেন, প্রবাসে আওয়ামী লীগকে সংগঠিত করতে সৈয়দ আশরাফ ভাইয়ের ভূমিকা ছিল অতুলনীয়। তৃণমূলের সাথে কীভাবে সুসম্পর্ক বজায় রেখে দল চাঙ্গা রাখতে হয় তা তিনিই দেখিয়ে গেছেন। নির্মোহ থেকে কীভাবে কাজ করতে হয় তা তিনিই দেখিয়ে গেছেন।

সভায় প্রাক্তন রেলমন্ত্রী মুজিবুল হক বলেন, সৈয়দ আশরাফ স্মরণীয় রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব, যিনি মানুষকে ভালবাসতেন। তিনি অন্যায়ের কাছে মাথানত করেননি।

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি মো. রিয়াজউদ্দিন রিয়াজের সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য রাখেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, চাঁদপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট নুরুল আমিন রুহুল, চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ডা. জেড আর ওয়াদুদ টিপু, ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ডা. আবু ইউসুফ ফকির প্রমুখ।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯/রেজা/রফিক

   


Walton AC

আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

হতাশ হবেন না, নেতা-কর্মীদের ফখরুল

২০১৯-০৪-১৯ ৪:২৯:২৮ পিএম

বিতর্কের জবাব দিলেন অজয়

২০১৯-০৪-১৯ ৪:১৮:৩০ পিএম

নুসরাত হত্যার তদন্তে সিআইডি

২০১৯-০৪-১৯ ২:৫০:৫৫ পিএম

ফিরলেন তাসকিন, পেলেন ৪ উইকেট

২০১৯-০৪-১৯ ১:০৬:৫০ পিএম