আপনার মুটিয়ে যাওয়ায় জন্য যে দায়ী

প্রকাশ: ২০১৮-০১-২০ ১:১৯:০১ পিএম
আহমেদ শরীফ | রাইজিংবিডি.কম

আহমেদ শরীফ: কেউ কেউ অপ্রত্যাশিতভাবে মুটিয়ে যান। চিকিৎসকের কাছে গিয়ে অনেকেই বলেন, নিয়ম মেনে চলার পরও তারা দিন দিন মোটা হয়ে যাচ্ছেন। এর কারণ খুঁজে বের করতে গবেষণা চলছে অনেকদিন থেকেই। এখন গবেষকরা বলছেন, যদি আপনি মোটা হতে থাকেন, তাহলে শরীরের ১৩টি জিন এজন্য দায়ী। আমেরিকার একদল গবেষক এ তথ্য জানিয়েছেন।

মানবদেহের কোষে থাকা এসব জিনের নাম ‘এম সি ফোর আর’। প্রতি ৫ হাজার মানুষের মাঝে ১ জনের দেহে এ ধরনের জিন থাকতে পারে বলে জানান গবেষকরা। এই জিনগুলো মস্তিষ্ককে বেশি খাওয়া থেকে বিরত রাখতে পারে না। নিউইয়র্কের মাউন্ট সিনাই প্রতিষ্ঠানের আইখান স্কুল অফ মেডিসিনের প্রফেসর রুথ লুস এই গবেষণার প্রধান গবেষক। তিনি জানিয়েছেন নতুন গবেষণায় জানা গেছে শরীরের ওজনের সাথে মস্তিষ্ক নিয়ন্ত্রণের যে প্রয়োজনীয়তা রয়েছে, তার জন্য কিছু জিন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। যাদের শরীরে এ ধরনের  জিনগত পার্থক্য আছে, তারা কম খাওয়ার ব্যাপারে খুব একটা সফল হতে পারেন না। ফলে মুটিয়ে যান।

জিনের প্রভাব সম্পর্কে জানার মাধ্যমে গবেষকরা জানার চেষ্টা করছেন কী কারণে কিছু মানুষ অন্যদের তুলনায় সহজেই মুটিয়ে যায়। ওজন বেড়ে যাওয়া রোধের চিকিৎসার জন্য এ তথ্য জানা জরুরি। মানুষের ওজন বাড়ার সাথে শরীরের জিন যে প্রভাব ফেলতে পারে, সে তথ্য জানতে নতুন এই গবেষণায় বিশ্বের ২৫০টিরও বেশি গবেষণা প্রতিষ্ঠান অংশ নেয়।

৭ লাখেরও বেশি মানুষের উপর পরিচালিত ১২৫টি ভিন্ন গবেষণাকে সংযুক্ত করা হয় নতুন এই গবেষণায়। তাই এটি বর্তমানে সবচেয়ে বড় জেনেটিক গবেষণা বলে ধারণা করা হচ্ছে।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/২০ জানুয়ারি ২০১৮/তারা

   



আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

২০২৩ পর্যন্ত টটেনহামে পচেত্তিনো

২০২৩ পর্যন্ত টটেনহামে পচেত্তিনো

২০১৮-০৫-২৪ ১০:০০:৪৪ পিএম
বাস খাদে পড়ে নারী নিহত, আহত ১০

বাস খাদে পড়ে নারী নিহত, আহত ১০

২০১৮-০৫-২৪ ৯:৪৫:৪৭ পিএম
এখনো শত শত পরিবার টং ঘরে
আইলার ৯ বছর

এখনো শত শত পরিবার টং ঘরে

২০১৮-০৫-২৪ ৯:২০:২৮ পিএম