চল্লিশেই চালশে হওয়া রোধ করবে যে খাবার

প্রকাশ: ২০১৮-০২-১৮ ২:০৫:০৪ পিএম
আহমেদ শরীফ | রাইজিংবিডি.কম

আহমেদ শরীফ : বয়স একটি সংখ্যা মাত্র। কথাটা আপনার আত্মবিশ্বাস বাড়াতে উদ্দীপক হিসেবেই কাজ করবে। তবে বয়স বাড়ার সাথে সাথে শরীর ও মনের স্টেমিনার পরিবর্তন দেখা যায়। তাই যাদের বয়স ৪০ পেরিয়েছে, তাদের শরীর ও মনের যত্ন নেয়া উচিত। এক গবেষণায় দেখা গেছে ৪০ পার হওয়ার পর পুরুষদের যৌন হরমোন টেস্টোস্টেরন প্রতি বছর ১ শতাংশ হারে কমতে থাকে। এতে মুড চেইঞ্জ, ওজন কমা,  যৌনতা  হ্রাস পাওয়া ও দুর্বলতা বেড়ে যাওয়ার প্রবণতা দেখা দেয়। তবে এতে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। পুষ্টিবিদরা বলছেন, নির্দিষ্ট কিছু খাবার এ বয়সে নিয়মিত খেতে হবে। জেনে নিন সেসব খাবারের তালিকা:

তরমুজ: ৪০ পার হলে অনেক পুরুষ যৌনতা ঘাটতির কথা বলেন। এ ক্ষেত্রে খুব উপকারী ফল হলো তরমুজ। এতে সাইট্রুলাইন নামের অ্যামাইনো এসিড আছে, যা শরীরে রক্ত প্রবাহ বাড়ায়, এতে যৌনতারও উন্নতি হয়।

রসুন: গবেষণায় দেখা গেছে, বয়স ৪০ পার হওয়ার পর নিয়মিত রসুন খেলে রক্তের ধমনীতে ন্যানো প্লাকস অর্থাৎ চর্বি জমা রোধ হয়। রসুন হৃদপিণ্ড সুস্থ রাখে, যৌনতার উন্নতি ঘটায়।

ডুমুর: যৌনতার জন্য ডুমুরকে খুব ভালো এক ফল হিসেবে বিবেচনা করা হয়। ফলটিতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন, মিনারেল, অ্যামাইনো এসিড থাকে, তাই এই ফল যৌন অক্ষমতা দূর করে বলা হয়।

শিম: প্রচুর প্রোটিন সমৃদ্ধ সবজি শিম চল্লিশোর্ধ পুরুষের জন্য খুব উপকারী। এতে নয়টি গুরুত্বপূর্ণ অ্যামাইনো এসিডের ৮ টিই বিদ্যমান। তাই বয়স বাড়ার সাথে সাথে পুরুষদের নিয়মিত  শিম খাওয়া উচিত।

দই: আপনি যদি ৪০ পার হওয়া পুরুষ হয়ে থাকেন, তাহলে নিয়মিত দই খেতে ভুলবেন না। এতে প্রচুর ফ্রুক্টোজ ও ক্যালসিয়াম আছে, যা হাড়ের রোগ ওস্টিওপোরোসিস দূর করে। এছাড়া উচ্চ রক্তচাপ কমাতে, ওজন কমাতে ও ত্বকের লাবণ্য বজায় রাখতে দই উপকারী। 

খাদ্যশস্য: বয়স ৪০ পেরুলে আটা, ময়দার মতো খাদ্যশস্যের তৈরী খাবার নিয়মিত খাওয়া উচিত আপনার। এতে আঁশ, প্রোটিন, ভিটামিন, মিনারেল থাকে। কোলেস্টেরল, রক্তচাপ, ব্লাড সুগার, ওজন  নিয়ন্ত্রণে রাখার জন্য ভালো ভূমিকা রাখে এসব খাদ্যশস্য। এছাড়া হজমের উন্নতি ও ডায়াবেটিসও নিয়ন্ত্রণে রাখতে এসব খাবার উপকারী। 

পালং শাক:  শুধু নারীদের জন্যই না, ৪০ পেরুনো পুরুষদের জন্য পালং শাক বেশ উপকারী। এই শাক ডায়াবেটিস ও হাড়জনিত রোগ প্রতিরোধ করে। এই শাক চুল ও ত্বকের জন্যেও ভালো।

গ্রিন টি: নিয়মিত গ্রিন টি পান করলে ব্লাড প্রেশার, হৃদরোগ ও স্ট্রোকের ঝুঁকি কমে। গবেষণায় দেখা গেছে চীনে চল্লিশোর্ধ পুরুষরা যারা নিয়মিত গ্রিন টি পান করেন, তাদের প্রোস্টেট ক্যানসার কম হয়।

বেগুন: ১৩ টি ফেনোলিক এসিড আছে বেগুনে। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে ও বয়সের ছাপ কমাতে এই সবজি বেশ উপকারী। 

ডার্ক চকোলেট: হৃদরোগ, কোলেস্টেরলের সমস্যাসহ শরীরের বেশ কিছু রোগ দমন করে ডার্ক চকোলেট। তাই বয়স বেড়ে গেলে যদি চকোলেট খেতেই হয়, তাহলে ডার্ক চকোলেট খান।

ব্রকোলি: বয়স ৪০ পার হলে সব সময় আঁশযুক্ত খাবার খাওয়া জরুরি। ব্রকোলি হলো এমন এক সবজি যাতে ফিটামিন সি, ক্যালসিয়াম ও আয়রন আছে প্রচুর। এটি হাড়ের রোগ ওস্টিওআথ্রাটিস, ডায়াবেটিস, ক্যানসার প্রতিরোধে ভূমিকা রাখে।

দুধ: প্রোটিন, ভিটামিন, মিনারেল সমৃদ্ধ পানীয় দুধ। তাই শুধু শিশুদের জন্যই নয়, বয়স বাড়লে বয়স্কদেরও নিয়মিত দুধ পান করা উচিত। হাড় ও দাঁত মজুবত রাখে এই পানীয়।

তথ্যসূত্র: টাইমস অফ ইন্ডিয়া



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৮/তারা

   
 



আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

বার্সার রেকর্ড রাজস্ব আয়

২০১৮-০৭-১৭ ৫:০২:১১ পিএম

যে ৮ বিষয় গুগলে খুঁজবেন না

২০১৮-০৭-১৭ ৪:৪৩:৫২ পিএম

শতাধিক প্রেক্ষাগৃহে ‘সুলতান’

২০১৮-০৭-১৭ ৪:০৩:৪৬ পিএম