হ্যান্ড স্যানিটাইজার সম্পর্কে যা জানা প্রয়োজন

প্রকাশ: ২০১৯-০৬-১১ ১২:২৫:৩০ পিএম
এস এম গল্প ইকবাল | রাইজিংবিডি.কম

প্রতীকী ছবি

এস এম গল্প ইকবাল : ছোটবেলা থেকেই আপনি এ পরামর্শটি শুনে আসছেন- অসুস্থতা এড়াতে হাত ধুয়ে নাও। বর্তমানে হাত ধোয়ার অন্যতম অনুসঙ্গ হলো হ্যান্ড স্যানিটাইজার। কিন্তু হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ব্যবহার কি নিরাপদ? এ প্রতিবেদনে হ্যান্ড স্যানিটাইজার সম্পর্কে যা জানা প্রয়োজন তা আলোচনা করা হলো।

* সকল হ্যান্ড স্যানিটাইজার কি একই?
অনেকে জানেন না যে সকল হ্যান্ড স্যানিটাইজার একই নয়। যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টারস ফর ডিজিজ অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি) অনুসারে, অন্তত ৬০ শতাংশ অ্যালকোহল আছে এমন হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করা গুরুত্বপূর্ণ। এ ধরনের স্যানিটাইজার জীবাণু ধ্বংস করতে বেশি কার্যকর। অন্যদিকে অ্যালকোহলমুক্ত স্যানিটাইজার ক্ষতিকারক হতে পারে এবং জীবাণুরা এটির বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে পারে।

ট্রাইক্লোসান আছে এমন হ্যান্ড স্যানিটাইজার এড়িয়ে চলা বিশেষভাবে গুরুত্বপূর্ণ। এ কৃত্রিম উপাদানটি অনেক অ্যান্টিব্যাক্টেরিয়াল প্রোডাক্টে ব্যবহার করা হয়। যুক্তরাষ্ট্রের ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (এফডিএ) সতর্ক করেছে যে, উচ্চ মাত্রার ট্রাইক্লোসান কিছু থাইরয়েড হরমোনের মাত্রা হ্রাস করতে পারে এবং ব্যাকটেরিয়াকে অ্যান্টিবায়োটিক প্রতিরোধী করতে পারে।

* হ্যান্ড স্যানিটাইজার অসুস্থতা প্রতিরোধ করে?
সঠিকভাবে ব্যবহার না করলে হ্যান্ড স্যানিটাইজার আপনার হাত থেকে ব্যাকটেরিয়া দূর করতে পারে না। সঠিক পরিমাণে স্যানিটাইজার ব্যবহার করে হাতের সকল পৃষ্ঠ ঘষে প্রোডাক্টটিকে শুকিয়ে নিন এবং এরপর হাত মুছে নিতে বা ধুয়ে ফেলতে ভুলবেন না। সঠিকভাবে ব্যবহার করা হলে অ্যালকোহলযুক্ত হ্যান্ড স্যানিটাইজার অন্তত ৯৯.৯ শতাংশ ভাইরাস, ফুঙ্গি ও ব্যাকটেরিয়া ধ্বংস করতে পারে। তাই যেখানে জনসাধারণের হাত পড়ে সেখানে আপনার হাতের স্পর্শ লাগার পর হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করলে ঠান্ডা বা ফ্লু’র ভাইরাস এড়ানো যাবে। কিন্তু মনে রাখবেন যে, লোকজন প্রায়ক্ষেত্রে শ্বাসকার্যের সময় বায়ু থেকে ড্রপলেট বা তরলের অতি ক্ষুদ্র ফোঁটা গ্রহণের মাধ্যমে ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে থাকে- এক্ষেত্রে হ্যান্ড স্যানিটাইজার আপনাকে সাহায্য করতে পারে না।

* হ্যান্ড স্যানিটাইজার এবং সাবান-পানির মধ্যে কোনটি বেশি কার্যকর?
এটা সত্য যে হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহারে এক ধরনের আরাম অনুভূত হয় এবং আপনার মনে হতে পারে যে হাতকে জীবাণুমুক্ত করার জন্য এটাই সবচেয়ে কার্যকর উপায়, কিন্তু বাস্তবতা হলো- হাত জীবাণুমুক্তকরণের ক্ষেত্রে সাবান ও পানির ব্যবহার এগিয়ে থাকবে। সিডিসি বলছে যে, ইনফেকশন ছড়ানো প্রতিরোধ এবং অসুস্থতার ঝুঁকি কমানোর সবচেয়ে ভালো উপায় হচ্ছে যথাসম্ভব নিয়মিত হাত ধোয়া। কেবলমাত্র তখনই হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করবেন, যখন সাবান ও পানি পাওয়া যাবে না, যেমন- গাড়িতে, শপিং মলে অথবা মুভি থিয়েটারে বা কনসার্টে। কেমিক্যালের কাজ করার পর অথবা হাতে দৃশ্যমান নোংরা থাকলে হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করা উচিত নয়, এসবক্ষেত্র সাবান ও পানি ব্যবহার করুন।

তথ্যসূত্র : রিডার্স ডাইজেস্ট



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১১ জুন ২০১৯/ফিরোজ

     


Walton AC

আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

বিশ্ব রেফ্রিজারেশন দিবস পালিত

২০১৯-০৬-২৬ ৯:৪৬:১৩ পিএম

ভারতের বিপক্ষে ভাগ্য সহায় হয় না!

২০১৯-০৬-২৬ ৯:৩৪:৪১ পিএম

আর আমেরিকা যেতে চাইবে না তারা

২০১৯-০৬-২৬ ৯:১৬:৩৮ পিএম
জেএফএ কাপ-২০১৯

আনিকার ডাবল হ্যাটট্রিকে ঠাকুরগাঁও’র বড় জয়

২০১৯-০৬-২৬ ৮:৫৯:৩৯ পিএম

নিশামের ৯৭-এ নিউজিল্যান্ডের ২৩৭

২০১৯-০৬-২৬ ৮:৫১:৩০ পিএম