যে কাপড় রঙ বদলায়!

প্রকাশ: ২০১৮-০৫-১৭ ২:২০:১৫ পিএম
মো. রায়হান কবির | রাইজিংবিডি.কম

মো. রায়হান কবির : মানুষের মন নাকি ক্ষণে ক্ষণে রঙ বদলায়। আবার গিরগিটিও নাকি রঙ বদলায়। কিন্তু পরিধেয় কাপড় কিংবা কাপড়ের তৈরি জিনিসপত্রের রঙ ক্ষণে ক্ষণে বদলাবে কে কবে শুনেছে?

কেউ না শুনলেও বাস্তবে কিন্তু সেটাই ঘটতে চলেছে। শুধু তাই নয়, কাপড়ের রঙই শুধু বদলাবে না। বদলে যাবে কাপড়ের ওপরে থাকা নকশা বা ডিজাইনও। তাও আপনার ইচ্ছেমতো মোবাইলে অ্যাপের সাহায্যেই। কি স্বপ্নের মতো মনে হচ্ছে?

সম্প্রতি ক্রেওল (দ্য কলেজ অব অপটিকস অ্যান্ড ফোটোনিক্স, যা ইউনিভার্সিটি অব সেন্ট্রাল ফ্লোরিডার একটি একটি বিভাগ, সংক্ষেপে ক্রেওল নামেই পরিচিত) এর একদল বিজ্ঞানী এমন প্রযুক্তিরই খবর দিল। তারা ক্রোমরফস নামের প্রযুক্তির দ্বারা এমন অসম্ভবকে সম্ভব করার স্বপ্ন দেখাচ্ছেন। আপাতত এই কাপড় মোটা কাপড় হিসেবেই পরীক্ষা নিরীক্ষা করা হচ্ছে। যা দিয়ে ব্যাগ বা অন্যান্য ব্যবহার্য জিনিস যেমন, জুতা তৈরির মতো কাপড় পাওয়া যাবে।

তবে গবেষকরা জানিয়েছেন তারা খুব দ্রুতই এটি ব্যবহার্য কাপড়ের মতো কাপড়ে রূপান্তর করতে সক্ষম হবেন। এই প্রযুক্তির মাধ্যমে কাপড় তৈরির উপাদান বা আঁশের সাহায্যেই কাপড়ের রঙ বদলানোর কাজটি করা হয়। একই সঙ্গে এটা ডিজাইন বা নকশা বদলানোর মতো অবস্থায় নেয়া যাবে। এই কাপড়ের জন্য যখন সুতা তৈরি করা হয়, তাতে সূক্ষ্ম একধরনের আঁশ যুক্ত করা হয় যা রঙ পরিবর্তনের জন্য কাজ করে। এই আঁশ থার্মোক্রমিক পিগমেন্ট পদ্ধতিতে এর রঙ বদলায়। তবে এটি এখনো প্রাথমিক পর্যায়ে আছে।

গবেষকরা আশা করছেন শিগগিরই এর বাণিজ্যিক ব্যবহার সম্ভব হবে। তখন এই কাপড়ের তৈরি একটি ব্যাগ কিনলেই সকল ড্রেসের সঙ্গে মিলিয়ে পরা যাবে। কেননা এই ব্যাগ ড্রেসের কালার এবং ডিজাইনের সঙ্গে আপনি নিজেই ম্যাচ করে নিতে পারবেন আপনার হাতে থাকা স্মার্টফোনের অ্যাপ দিয়ে। জুতোর ক্ষেত্রেও একই ব্যাপার হবে। তখন হয়তো মানুষের ফ্যাশন সম্পর্কিত খরচ কমানো সম্ভব হবে। সম্ভব হবে অপচয় রোধ করা। এখন যারা প্রতিটি ড্রেসের সঙ্গে ম্যাচ করে ব্যাগ কিনেন তখন তারা একটি ব্যাগকেই সকল ড্রেসের সঙ্গে ব্যবহার করতে পারবেন।





রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৭ মে ২০১৮/ফিরোজ

   
 



আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

জাতীয় শোক দিবসের কর্মসূচি

২০১৮-০৮-১৪ ৪:৫৬:৫৫ পিএম

ভবিষ্যতের অদ্ভুত মোটরসাইকেল!

২০১৮-০৮-১৪ ৪:৪২:২১ পিএম

রংপুরে ঈদের জামাত ৭ হাজার ৩৩২টি

২০১৮-০৮-১৪ ৪:১৩:৩০ পিএম