তবে কি সত্যিই ফিরছেন তুষার?

প্রকাশ: ২০১৮-১০-১৮ ৯:১৮:৩০ পিএম
আব্দুল্লাহ এম রুবেল | রাইজিংবিডি.কম

আব্দুল্লাহ এম রুবেল : তবে কি সত্যিই তুষার ইমরানের সব চেষ্টা সফল হতে যাচ্ছে? ঘরোয়া ক্রিকেটে রানের বন্যা বইয়ে দেওয়ার পুরস্কারটা কি পেতে যাচ্ছেন? আপাতত বাতাসে এমন গুঞ্জনই।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে আসন্ন টেস্ট সিরিজে ডাক পেতে পারেন সদ্য প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ১১ হাজার রানের মাইলফলকে পৌঁছা তুষার ইমরান। ৩৪ বছর বয়সি ব্যাটসম্যান আপাতত ব্যস্ত জাতীয় ক্রিকেট লিগ নিয়ে। একটা সুযোগ হয়তো পেতে পারেন, এমন আত্মবিশ্বাস আছে তারও। আছে পুরো প্রস্তুতিও। সুযোগ পেলে দিতে চান সাধ্যের সবটুকু।

জাতীয় ক্রিকেট লিগের তৃতীয় রাউন্ডে খুলনার শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে রংপুরের বিপক্ষে ম্যাচ শেষে রাইজিংবিডির সঙ্গে আলাপকালে এমন কথা জানান তুষার। ২০০৭ সালে সর্বশেষ খেলেছেন দেশের জার্সি পরে। ১১ বছর পর আরেকবার এই জার্সি গায়ে জড়ানোর অপেক্ষায় তিনিও।

গত কয়েক দিন ধরেই আবু নাসের স্টেডিয়ামে কানাঘুষা জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে ডাক পাচ্ছেন তুষার। সেই কানাঘুষা আরো জোরালো হয় এই ম্যাচে নির্বাচক সাজ্জাদ আহমেদ শিপনের খুলনায় আগমনে। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে খেলতে পারছেন না সাকিব আল হাসান। শঙ্কা আছে তামিম ইকবালকে নিয়েও। আর গত তিন বছর একটানা রান করে যাচ্ছেন তুষার ইমরান। তাই নির্বাচকদের জন্যও বোধহয় তুষারকে আরেকবার পরখ করে দেখার বড় একটা সুযোগ ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ে সিরিজ।



গত তিন মৌসুমে ঘরোয়া ক্রিকেটে ধারাবাহিকভাবে রান করার পর একটা সুযোগ কি তার প্রাপ্য না, জানতে চাইলে তুষার বলেন, ‘মাঝখানে কিছুদিন আমি ইনজুরিতে ছিলাম। তবে শেষ তিন-চার বছর ঘরোয়া ক্রিকেটে আমি ভালো রান করেছি। এখন নির্বাচক ও বোর্ডের কর্মকর্তারা যদি মনে করেন আমাকে টেস্ট দলে সুযোগ দিবেন, তাহলে আমি চেষ্টা করব সাধ্যমতো সার্ভিস দেওয়ার।’

ডাক পেলে তার জন্য প্রস্তুতিও আছে তুষার ইমরানের। নিজে আত্মবিশ্বাসীও, ‘যদি তারা মনে করে, আমি কিছু দিতে পারব, তাহলে আমাকে নিবে। আমি প্রস্তুতি নিচ্ছি সেভাবেই। ধারাবাহিকভাবে শেষ তিন-চার বছর ধরে রান করে যাচ্ছি। যদি তারা সুযোগ দেয়, তাহলে আমি কাজে লাগানোর চেষ্টা করব।’

একটা সুযোগ পেতে পারেন, এমন কানাঘুষা হয়তো তার কানেও গেছে। একটা সুযোগ পাওয়ার ব্যাপারে তিনি আত্মবিশ্বাসীও, ‘আমি আত্মবিশ্বাসী। হয়তো বা একটা সুযোগ আসতে পারে। সুযোগের আশায় যেহেতু আছি, একটা সুযোগ পেলেও পেতে পারি এই বয়সে এসে। ক্যারিয়ারের একদম শেষে এসে দাঁড়িয়ে আছি আমি। আর হয়তো বা দুই-তিন বছর ক্রিকেট খেলব। তার আগে যদি ভালো ক্রিকেট খেলে আবার জাতীয় দলে ফিরতে পারি, এটা আমার জন্য অনেক বড় একটা পাওয়া হবে।’



তুষার ইমরানের ব্যাপারে একটা কথা চালু আছে, ঘরোয়া ক্রিকেটে রান পেলেও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এসেই খেই হারিয়ে ফেলেন। তবে এবার জাতীয় দলে সুযোগ পেলে সর্বোচ্চ চেষ্টা থাকবে ভালো করার বলে জানালেন তিনি, ‘এসব ক্ষেত্রে ভাগ্যেরও ব্যাপার-স্যাপার আছে। আমার সর্বোচ্চ চেষ্টাটা থাকবে, আমি যেন ভালো কিছু করে জাতীয় দল থেকে বিদায় নিতে পারি। সুতরাং আমি এই চেষ্টাটাই করে যাব। তামিম নাই, সাকিব নাই, মুশফিকও ইনজুরিতে। এখন সিনিয়র অনেকেরই দরজা খুলতে পারে। শুধু যে আমি তা না। নাইম ইসলাম আছে, শাহরিয়ার নাফীস আছে, মোহাম্মদ আশরাফুল যদি ভালো ক্রিকেট খেলে, সেও কামব্যাক করতে পারে। নির্ভর করে, বোর্ড প্রেসিডেন্ট, নির্বাচক, বোর্ড কর্মকর্তারা কাকে চায়।’

জিম্বাবুয়ে সিরিজে ডাক পাওয়ার একটা সম্ভাবনা আছে, এসবের বাইরে আপাতত তুষারের চিন্তা জাতীয় লিগ নিয়ে, ‘এখন আমার যেটা চলছে, আমি সেটা নিয়ে চিন্তা করি। তৃতীয় রাউন্ড শেষ হলো মাত্র। সামনে আরো ম্যাচ আছে। সেসব ম্যাচেও আগের ম্যাচের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে চাই।’



রাইজিংবিডি/খুলনা/১৮ অক্টোবর ২০১৮/আব্দুল্লাহ এম রুবেল/পরাগ

   
 


Walton AC

আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

অবসরে আগ্নেয়স্কা রাদওয়ানস্কা

২০১৮-১১-১৪ ১০:৪৯:০৮ পিএম

কবে হবে মিরাজের টেস্ট সেঞ্চুরি?

২০১৮-১১-১৪ ৯:১২:৩১ পিএম

‘নির্বাচন এক ঘণ্টাও পেছাবেন না’

২০১৮-১১-১৪ ৮:২১:৫১ পিএম