ডেসকাটের ‘নট আউট’ সিদ্ধান্তে ঢাকার বিস্ময়

প্রকাশ: ২০১৯-০১-১৬ ৭:২১:২৬ পিএম
ইয়াসিন | রাইজিংবিডি.কম

ক্রীড়া প্রতিবেদক, সিলেট থেকে : ঘটনাটা ১৬তম ওভারের পঞ্চম বলে। মাঠের আম্পায়ার রাজশাহীর ব্যাটসম্যান রায়ান টেন ডেসকাটের এলবিডব্লিউয়ের আবেদন নাকচ করে দেন।

সুনীল নারিনের আত্মবিশ্বাসে ঢাকার অধিনায়ক সাকিব ডিআরএসের আবেদন করে বসেন তাৎক্ষণিক। তৃতীয় আম্পায়ার ছিলেন মাসুদুর রহমান মুকুল। ১২ রানে ব্যাটিং করা নেদারল্যান্ডসের এ ব্যাটসম্যানের গ্লাভস ছুঁয়ে বল যায় উইকেটের পেছনে কিপার সোহানের হাতে। কিন্তু তৃতীয় আম্পায়ার বল গ্লাভসের ছোঁয়া লেগেছে বলে এলবিডব্লিউর আবেদন ফিরিয়ে দেন। নটআউট ঘোষণা করেন ডেসকাটকে।

কিন্তু ঢাকার খেলোয়াড়রা মাঠে তখনও আউটের আবেদন করে যান। এবার ক্যাচ আউটের আবেদন করেছিলেন সাকিবরা। কিন্তু অন ফিল্ড ও তৃতীয় আম্পায়ার কট বিহাইন্ডের রিপ্লে দেখার প্রয়োজন মনে করেননি। উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়েও জীবন পেয়ে যান ডেসকাট। ১২ রানে থাকা ডেসকাট পরবর্তীতে অবশ্য বেশি রান করতে পারেননি। ৪ রান যোগ করে আউট হন নারিনের বলে এলিবিডব্লিউ হয়ে।

ডেসকাটের ‘নট আউট’ সিদ্ধান্তে বিস্মিত ঢাকা ডায়নামাইটস। মাঠেই খেলোয়াড়দের চোখেমুখে স্পষ্ট হচ্ছিল সেই প্রতিক্রিয়া। ম্যাচ শেষে দলের সর্বকনিষ্ঠ সদস্যা নাঈম শেখ জানালেন, আম্পায়ারের সিদ্ধান্তে অবাক হয়েছিলেন তারা।

‘ওখানে লেগ বিফর নিয়ে কথা হচ্ছিল। সোহান ভাই ক্যাচ ধরেছিল। লেগ বিফর না হলে ক্যাচ আউট তো হতোই। আমরা একটু বিস্মিত তো হয়েছিলাম।’

নাঈম শেখের পাশে বসা ম্যানেজার আজম ইকবাল ডিআরএসের এ সিদ্ধান্ত নিয়ে বলেছেন,‘আমি যতটুকু দেখেছি, কট বিহাইন্ডের আপিল করা হয়েছিল। এরপর দেখা যাচ্ছিল এইজ হয়েছে। প্লেয়াররা অবশ্যই লেগ বিফরের আপিল করেছিল। এরপর জিনিসটা এগোয়নি। আম্পায়ারের ওপর এটা ডিপেন্ড করে।’

প্রায় ৮ মিনিট টিভি রিপ্লে দেখে ডেসকাটের সিদ্ধান্ত ভুল দিয়েছেন টিভি আম্পায়ার। ভুল করেছেন অনফিল্ড আম্পায়াররাও। পৃথিবীর ‘দীর্ঘতম’ ডিআরএসের সিদ্ধান্ত ভুল দিয়ে এবার নতুন বিতর্কের জন্ম দিল বিপিএল।



রাইজিংবিডি/সিলেট/১৬ জানুয়ারি ২০১৯/ইয়াসিন/আমিনুল

   
 


Walton AC

আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

বইমেলায় জনস্রোত

২০১৯-০২-২১ ৭:০০:৩৩ পিএম

মাতৃভাষা দিবস ও একুশের চেতনা

২০১৯-০২-২১ ৬:২৭:৪৫ পিএম

শিশুদের কলাগাছের শহীদ মিনার

২০১৯-০২-২১ ৫:০৯:৪১ পিএম

চকবাজারের ঘটনায় তারকাদের শোক

২০১৯-০২-২১ ৪:৫৪:০৭ পিএম

চুড়িহাট্টা এখন মৃত্যুপুরী

২০১৯-০২-২১ ৪:৩১:৩৫ পিএম