রংপুর থেকে ৩০ জন পেল চূড়ান্তপর্বের টিকিট

প্রকাশ: ২০১৯-০২-১১ ৮:২২:৪৮ পিএম
আমিনুল ইসলাম | রাইজিংবিডি.কম

ক্রীড়া প্রতিবেদক : ‘ওয়ালটন ২৩তম জাতীয় জুনিয়র বালক ও ৫ম বালিকা বক্সিং প্রতিযোগিতা-২০১৯’ এর রংপুর বিভাগের বাছাইপর্ব আজ সোমবার শেষ হয়েছে। দিনব্যাপী এই বাছাইপর্ব থেকে ১৮ জন ছেলে ও ১২ জন মেয়েসহ মোট ৩০ জন চূড়ান্তপর্বের টিকিট পেয়েছে। মার্চে ঢাকার মোহাম্মদ আলী বক্সিং স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া চূড়ান্তপর্বে লড়বেন তারা।

রংপুর স্টেডিয়ামে ‘ওয়ালটন ২৩তম জাতীয় জুনিয়র বালক ও ৫ম বালিকা বক্সিং প্রতিযোগিতা-২০১৯’ এর বাছাইপর্বে রংপুর বিভাগের আটটি জেলা ক্রীড়া সংস্থার তরুণ ও প্রতিভাবান বক্সাররা অংশ নেয়। অংশ নেওয়া জেলা ক্রীড়া সংস্থাগুলোর মধ্যে রয়েছে রংপুর, দিনাজপুর, কুড়িগ্রাম, গাইবান্ধা, লালমনিরহাট ও সিটি করপোরেশন। সকাল ১০টা থেকে শুরু হয় বাছাই। বাছাইপর্বের উদ্বোধন করেন রংপুর জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল ইসলাম। এ সময় বাংলাদেশ অ্যামেচার বক্সিং ফেডারেশনের অন্যান্য কর্মকর্তা ও বিভাগীয় কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন। বালকদের ৯টি ওজন শ্রেণি থেকে ১৮ জন ও বালিকাদের ৬টি ওজন শ্রেণি থেকে ১২ জন চূড়ান্তপর্বের টিকিট পায়।

রংপুর বিভাগের পর ১৩-১৪ ফেব্রুয়ারি চট্টগ্রাম বিভাগে, ১৩-১৪ তারিখ ময়মনসিংহ বিভাগে, ১৬-১৭ ফেব্রুয়ারি সিলেট বিভাগে, ২২-২৩ তারিখ খুলনা বিভাগে, ২৫-২৬ ফেব্রুয়ারি বরিশাল বিভাগে, ২৫-২৬ তারিখ ঢাকা বিভাগে বাছাইপর্ব অনুষ্ঠিত হবে। বাছাইপর্বের ভেন্যুগুলো যথাক্রমে রাজশাহী স্টেডিয়াম, রংপুর স্টেডিয়াম, চট্টগ্রাম স্টেডিয়াম, ময়মনসিংহ স্টেডিয়াম, সিলেট স্টেডিয়াম, খুলনা স্টেডিয়াম, বরিশাল স্টেডিয়াম ও মোহাম্মদ আলী বক্সিং স্টেডিয়াম ঢাকা। প্রত্যেক ভেন্যুর জন্য আলাদা আলাদা প্যানেল গঠন করে ফেডারেশনের পক্ষ থেকে অভিজ্ঞ ও চৌকস বিচারকদের পাঠানো হচ্ছে দেশের আটটি বিভাগে বাছাই প্রক্রিয়া নিখুঁতভাবে সম্পন্ন করতে।



৯ থেকে ২৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত দেশের আটটি বিভাগে অনুষ্ঠিত হবে বাছাইপর্ব। সেখান থেকে উঠে আসা মোট ২৪০ জন বালক ও বালিকা বক্সার এবং বিভিন্ন সংস্থা ও ক্লাবের তরুণ বক্সারদের নিয়ে অনুষ্ঠিত হবে মূলপর্ব। এবারের প্রতিযোগিতায় ৪০০ থেকে ৪৫০ জন বালক ও বালিকা বক্সার অংশ নিবেন।

প্রতিটি বিভাগ থেকে ১৮ জন বালক ও ১২ জন বালিকা করে মোট ৮ বিভাগ থেকে ২৪০ জন প্রতিভাবান তরুণ বক্সারদের নির্বাচন করা হবে জাতীয় প্রতিযোগিতার জন্য। তার মধ্যে ১৪৪ জন বালক ও ৯৬ জন বালিকা বক্সার থাকবে। চূড়ান্তপর্বে এই ২৪০ জন ছাড়াও বাংলাদেশ আনসার, বিকেএসপি, শিক্ষা বোর্ড, বিজেএমসি, বাংলাদেশ রেলওয়ে ও সিটি কর্পোরেশনের তরুণ বক্সাররা অংশ নিবে।

চূড়ান্তপর্বে বালকদের ৯টি ওজন শ্রেণিতে ও বালিকাদের ৬টি ওজন শ্রেণিতে প্রতিদ্বন্দ্বিতা অনুষ্ঠিত হবে। বালক বিভাগের ওজন শ্রেণিগুলো হল- ২৯ কেজি, ৩২ কেজি, ৩৫.৫ কেজি, ৩৮.৫ কেজি, ৪২ কেজি, ৪৫ কেজি, ৪৮ কেজি, ৫১ কেজি ও ৫৪ কেজি। বালিকাদের ওজন শ্রেণিগুলো হল- ৩৬ কেজি, ৩৮.৫ কেজি, ৪২ কেজি, ৪৫ কেজি, ৪৮ কেজি ও ৫১ কেজি। প্রতিটি ওজন শ্রেণির প্রথম স্থান অধিকারকারীকে ৩ হাজার, দ্বিতীয় স্থান অধিকারকারীকে ২ হাজার ও তৃতীয় হওয়া ২ জনকে ১ হাজার করে মোট ৭ হাজার টাকা করে সর্বমোট ১ লাখ ৫ হাজার টাকার প্রাইজমানি দেওয়া হবে। এ ছাড়া পৃষ্ঠপোষক প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন গ্রুপের পক্ষ থেকে বিজয়ীদের আকর্ষণীয় হোম অ্যাপ্লায়েন্স দিয়ে উৎসাহিত করা হবে।



প্রতিযোগিতা থেকে সেরা ১০ জন বালক ও ১০ জন বালিকা বক্সারকে দীর্ঘমেয়াদে প্রশিক্ষণ দিয়ে গড়ে তোলা হবে।

এই প্রতিযোগিতার মিডিয়া পার্টনার এটিএন বাংলা, রেডিও পার্টনার রেডিও টুডে, সহযোগিতায় থাকবে ওয়ালটন গ্রুপের জনপ্রিয় ব্র্যান্ড মার্সেল। আর অনলাইন পার্টনার হিসেবে আছে দেশের অন্যতম জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল রাইজিংবিডি.কম।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯/আমিনুল

   
 


Walton AC

আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

বইমেলায় বক্তৃতা শেখার বই

২০১৯-০২-২০ ১০:১৪:৪৪ পিএম

বিএনপিতে নতুন নেতৃত্ব আনার দাবি

২০১৯-০২-২০ ৮:২৩:৫৭ পিএম