প্রথমবারের মতো রুয়ান্ডা মাতিয়ে আসলো বিশ্বকাপের ট্রফি

প্রকাশ: ২০১৯-০২-১১ ১০:৩৫:৪৯ পিএম
আমিনুল ইসলাম | রাইজিংবিডি.কম

ক্রীড়া ডেস্ক : আইসিসি ওয়ানডে বিশ্বকাপের ট্রফির ১০০ দিনের বিশ্ব ভ্রমণ চলছে। সেই ভ্রমণের অংশ হিসেবে তিনদিন ছিল আফ্রিকার দেশ রুয়ান্ডাতে। এই তিনদিন রুয়ান্ডার ক্রিকেটপ্রেমীরা মেতে ছিল ট্রফি নিয়ে। কারণ, এবারই প্রথম তাদের দেশে বিশ্বকাপের ট্রফি ভ্রমণে গিয়েছে। অবশ্য সৌভাগ্য বলতে হবে আইসিসির সহযোগী দেশটির। পাঁচটি মহাদেশের যে ২১টি দেশে এই ট্রফি ঘুরবে তার মধ্যে একটি হিসেবে গেল ডিসেম্বরে সুযোগ অর্জন করেছে রুয়ান্ডা। সে কারণে ট্রফি নিয়ে তাদের আগ্রহ এবং উচ্ছ্বাস ছিল একটু বেশিই।

আইকনিক এই ট্রফির সঙ্গে ছবি তুলে স্বপ্ন পূরণ করেছেন রুয়ান্ডা অনূর্ধ্ব-১৮ নারী ক্রিকেট দলের অধিনায়ক গিসেলে ইশিমওয়ি। এখন স্বপ্ন দেখছেন বিশ্বকাপে খেলার, ‘একজন ক্রিকেট খেলোয়াড় হিসেবে নিজ চোখে বিশ্বকাপের ট্রফি দেখতে পেয়ে স্বপ্ন সত্যি হয়েছে। আমি খুবই খুশি। এটা আসলে দারুণ একটি সুযোগ ছিল আমাদের জন্য। এই স্মৃতি আজীবন মনে থাকবে। পাশাপাশি এই ট্রফি আমাদেরকে উজ্জীবিত ও অনুপ্রাণিত করবে একদিন নারী বিশ্বকাপে খেলতে।’

রুয়ান্ডার জাতীয় অলিম্পিক ও ক্রীড়া কমিটির সহ-সভাপতি ফেস্তুস বিজিমানা মনে করছেন এই ট্রফি রুয়ান্ডায় আসায় কেবল দেশটির জন্যই ভালো নয়, পাশাপাশি তারা আইসিসি থেকে আগত অতিথিদের দেখাতে পারছে যে এ দেশের মানুষের ক্রিকেটের প্রতি কতোটা টান রয়েছে। রুয়ান্ডায় ক্রিকেটের কেমন জোয়ার বইছে।

আফ্রিকার যে চারটি দেশে এবার বিশ্বকাপের ট্রফি যাচ্ছে তার মধ্যে অন্যতম রুয়ান্ডা (কেনিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকা ভ্রমণ করেছে। এরপর নাইজেরিয়া যাবে)। এবার অবশ্য বিশ্বকাপের ট্রফি নেপাল ও যুক্তরাষ্ট্রের মতো দেশও ভ্রমণ করেছে ক্রিকেটের স্বার্থে, ক্রিকেটের বিকেন্দ্রীকরণের জন্য।রুয়ান্ডা থেকে ট্রফি যাবে নাইজেরিয়া, ফ্রান্স, বেলজিয়াম, নেদারল্যান্ডস ও জার্মানিতে।

২০১৮ সালের ২৭ অক্টোবর আইসিসির প্রধান কার্যালয় দুবাই থেকে বিশ্ব ভ্রমণ শুরু করেছে বিশ্বকাপের ট্রফিটি। ১০০ দিনের ভ্রমণে পাঁচটি মহাদেশের ২১টি দেশের ৬০টি শহর ঘুরে ট্রফিটি যাবে ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলসে। যেখানে ৩০ মে থেকে ১৪ জুলাই পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে বিশ্বকাপ।



রাইজিংবিডি/ঢাকা/১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯/আমিনুল

   
 


Walton AC

আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

বইমেলায় বক্তৃতা শেখার বই

২০১৯-০২-২০ ১০:১৪:৪৪ পিএম

বিএনপিতে নতুন নেতৃত্ব আনার দাবি

২০১৯-০২-২০ ৮:২৩:৫৭ পিএম