মেয়েদের আন্তর্জাতিক ম্যাচ বাড়ানোর দাবি রুমানার

প্রকাশ: ২০১৯-০২-১২ ৫:১১:০৮ পিএম
আব্দুল্লাহ এম রুবেল | রাইজিংবিডি.কম

আব্দুল্লাহ এম রুবেল : ছেলেদের ক্রিকেটের সাথে পাল্লা দিয়েই এগিয়ে যাচ্ছে দেশের মেয়েদের ক্রিকেট। গত বছর এশিয়া কাপের শিরোপা জিতেছে তারা।

তবে ছেলেদের মতো ব্যস্ত সূচি থাকে না তাদের। সারা বছর মিলে দুয়েকটা সিরিজ কিংবা আইসিসি বা এসিসির কোন টুর্নামেন্ট এই পর্যন্তই। এর বাইরে ঘরোয়া ক্রিকেটে মেয়েদের জাতীয় লীগ আর ঢাকার লীগ। এতে করে নারী ক্রিকেটে প্রত্যাশিত সাফল্যও আসছেনা। মেয়েদের ক্রিকেটে আরও উন্নতির জন্য আন্তর্জাতিক ম্যাচ বাড়ানোর বিকল্প নেই বলে মনে করেন বাংলাদেশের বর্তমান ওয়ানডে অধিনায়ক রুমানা আহমেদ।

 



সম্প্রতি মেয়েদের ক্রিকেটে টেস্ট স্ট্যাটাস পাওয়ার জন্য তোড়জোড় শুরু করেছে বিসিবি। এ উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন তিনি। নিজের ক্রিকেট জীবনের অন্যতম স্বপ্ন সাদা পোশাকে লংগার ভার্সন ক্রিকেট খেলা। রুমানার এখন ব্যাস্ততা মেয়েদের জাতী লীগ নিয়ে। শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে অনুশীলন শেষে রাইজিংবিডির সাথে একান্ত আলাপকালে এসব কথা জানান টাইগ্রেস অধিনায়ক।

এ মাসেই কক্সবাজারে শুরু হচ্ছে মেয়েদের জাতীয় ক্রিকেট লীগ। এরপরেই বাংলাদেশ সফরে আসার কথা রয়েছে ইংল্যান্ড নারী ‘এ’ দলের। জাতীয় লীগ দিয়ে সেই প্রতিযোগিতার প্রস্তুতি সারতে চান রুমানা। বলেন, যদিও সফরটা এখনও নিশ্চিত না তবে এপ্রিলে তিনটি ওয়ানডে ও তিনটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলতে ইংল্যান্ড ‘এ’ দলের আসার কথা রয়েছে। সেই টুর্নামেন্টে ভালো করার লক্ষ্যেই জাতীয় লীগে ভালো করতে হবে আমাদের।

 



সারা বছরই মেয়েদের এমন অনিশ্চয়তায় থাকতে হয়, কবে খেলা হবে ? কবে আরেকটি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচ খেলতে হবে। আর এটা নিয়ে দারুণ হতাশ টাইগ্রেসদের ওয়ানডে অধিনায়ক। তিনি বলেন, আসলে আমরা খুবই হতাশ। একটা টিম ওয়ার্ল্ড কাপের পরে  তিনমাস চার মাস বসে থাকে, সেই টিমটাকে নিয়ে আসলে বেশীদূর এগোনো যায় না। আমার মনে হয় না, এভাবে যদি চলতে থাকে, আন্তর্জাতিক ম্যাচ না খেলতে থাকি, আমাদের প্লেয়াররা অবশ্যই পিছিয়ে পড়বে। আমরা এখনও পর্যন্ত ৯ নম্বরে আছি (র‌্যাঙ্কিংয়ে)। জানি না, ভবিষ্যতে কি করতে পারবো। আমরা এশিয়ান চ্যাম্পিয়ন বলে হয়তো আমাদের ছেড়ে দিছে, এরা ভালো তো করছে। কিন্তু আমাদের এভাবে ছাড়লে আমরা এ জিনিসটা আর ধরে রাখতে পারবো না।

মেয়েদের ক্রিকেটে উন্নতির জন্য তাই আন্তর্জাতিক ম্যাচ বাড়ানোর তাগিদ রুমানার কন্ঠে। বলেন, আমরা তো আর ম্যাচ এ্যারেঞ্জ করতে পারবো না, বিসিবির অবশ্যই দায়িত্ব যে ছেলেদের পাশাপাশি মেয়েদের আরও ম্যাচ খেলার সুযোগ দেয়া উচিৎ।

 



সম্প্রতি বিসিবি উদ্যোগ নিয়েছে মেয়েদের ক্রিকেটে বাংলাদেশের টেস্ট স্ট্যাটাস পাওয়ার। এই উদ্যোগকে সাধুবাধ জানিয়েছেন রুমানা। যদিও তিনি নিশ্চিত না তিনি টেস্ট ম্যাচ খেলতে পারবেন কি না? দিন দিন ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত ফরমেট জনপ্রিয় হলেও রুমানার কাছে প্রিয় টেস্ট ক্রিকেট ম্যাচই। সময় পেলে টিভিতে টেস্ট ম্যাচই দেখেন। রুমানার কাছে তাই বাংলাদেশের হয়ে টেস্ট ম্যাচ খেলা একটি স্বপ্ন। নিজের টেস্ট ম্যাচ খেলার স্বপ্ন নিয়ে রুমানা বলেন, এটা আমার একটা ড্রিম বলতে পারেন। আমি ওডিআই, কিংবা টি-টোয়েন্টি ম্যাচ দেখি আর না দেখি, টেস্ট ম্যাচ কিন্তু আমি সব সময়ই দেখি। আমার কাছে টেস্ট ম্যাচ খেলাটা অন্যরকম রোমাঞ্চের। যে কোন ক্রিকেটারের জন্যই সেটাই হবে। এখানে অনেক কিছুই শেখার আছে। আমার মনে হয় যে, টেস্ট ম্যাচটা যদি আমাদের মেয়েরা খেলতে পারে, তাহলে আমাদের ক্রিকেট আরও বেশী উন্নতি করবে।

কিছুদিন আগে আইসিসির বর্ষসেরা নারী টি-টোয়েন্টি দলে জায়গা করে নিয়েছিলেন রুমানা আহমেদ। তবে রুমানার কাছে এর থেকেও বড় অর্জন এশিয়া কাপ জয় করা। তবে এশিয়া কাপ জয় নয়, এবার নিজের অর্জন করে আরও বড় করতে চান। বিশ্বকাপে দেশকে ভালো কিছু উপহার দিতে চান। বিশ্বকাপে এখনও সরাসারি খেলার সুযোগ হয়নি বাংলাদেশের মেয়েদের। তবে বিশ্বকাপে কোয়ালিফাই করতে আত্মবিশ্বাসী রুমানা। সেই সাথে বিশ্বকাপেও ভালো কিছু করতে চান। নিজের পরবর্তী লক্ষ্য নিয়ে রুমানা বলেন, গত বিশ্বকাপে আমরা বেশ কয়েকটি ম্যাচ ক্লোজ হেরেছি। আমাদের কিন্তু ভালো করার এবিলিটি আছে। আগামী বিশ্বকাপে আমরা সেটাই করে দেখাতে চাই।



রাইজিংবিডি/খুলনা/১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯/আবদুল্লাহ এম রুবেল/শামীম

   
 


Walton AC

আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

বইমেলায় বক্তৃতা শেখার বই

২০১৯-০২-২০ ১০:১৪:৪৪ পিএম

বিএনপিতে নতুন নেতৃত্ব আনার দাবি

২০১৯-০২-২০ ৮:২৩:৫৭ পিএম