যে কারণে বিশ্বকাপ দলে মোসাদ্দেক-রাহী

প্রকাশ: ২০১৯-০৪-১৬ ২:৫২:১৫ পিএম
আবু হোসেন পরাগ | রাইজিংবিডি.কম

ক্রীড়া প্রতিবেদক : বাংলাদেশের ১৫ সদস্যের বিশ্বকাপ দলে ১৩ জনের নাম মোটামুটি নিশ্চিতই ছিল। দুটি জায়গা নিয়েই ছিল যত জল্পনা। শেষ পর্যন্ত সেই দুই জায়গায় সুযোগ পেয়েছেন মোসাদ্দেক হোসেন ও আবু জায়েদ রাহী। আর তাদের দলে রাখার কারণ ব্যাখ্যা করলেন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু।

মিডল অর্ডারে জায়গা পাওয়ার লড়াইয়ে ছিলেন মোসাদ্দেক ও ইয়াসির আলী রাব্বী। ইমাজিং কাপ ও বিপিএলে ভালো খেলার পর চলমান ঢাকা প্রিমিয়ার লিগেও দারুণ খেলছেন এখনো আন্তর্জাতিক অভিষেক না হওয়া ইয়াসির। মোসাদ্দেক গত এশিয়া কাপেও বাংলাদেশের হয়ে খেলেছিলেন। এরপর অবশ্য দল থেকে বাদ পড়েন। তবে ইমার্জিং কাপের পর বিপিএলেও কয়েকটি ম্যাচে দারুণ করেছিলেন তিনি। ঢাকা প্রিমিয়ার লিগেও তার ব্যাট হাসছে নিয়মিত।

আবাহনীর হয়ে এখন পর্যন্ত ১২ ম্যাচে ৪৭.৫৫ গড়ে ও ৭২.৯১ স্ট্রাইক রেটে মোসাদ্দেক করেছেন ৪২৮ রান। একটি সেঞ্চুরির সঙ্গে ফিফটি করেছেন চারটি। ব্রাদার্স ইউনিয়নের হয়ে ১২ ম্যাচে ৮৫ গড়ে ও ১০০.৪৭ স্ট্রাইক রেটে ইয়াসির করেছেন ৪২৫ রান। একটি সেঞ্চুরির সঙ্গে ফিফটি তার দুটি।

ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি অফ স্পিন বোলিংয়েও বেশ কার্যকরী মোসাদ্দেক। লিগে বল হাতেও তিনি নিয়েছেন বেশ কিছু উইকেট। ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত গত চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতেও তার বোলিং বেশ কাজে লেগেছিল। অফ স্পিনিং অলরাউন্ডার মাহমুদউল্লাহ আবার কাঁধের চোটে ভুগছেন। বিশ্বকাপে তার বোলিং করা নিয়ে তাই সংশয় আছে। ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি স্পিন বোলিং করতে পারেন এমন একজনকেই তাই বিশ্বকাপে চাইছিলেন নির্বাচকরা। সেই জায়গায় তাদের উপযুক্ত মনে হয়েছে মোসাদ্দেককে।

মোসাদ্দেককে দলে রাখার কারণ ব্যাখ্যায় প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন বলেছেন, ‘সৈকত (মোসাদ্দেক) ঘরোয়া ক্রিকেটে ভালো খেলেছে। আর আমরা একজন অলরাউন্ডার চাচ্ছিলাম যে অফ স্পিন করতে পারে। কারণ রিয়াদের (মাহমুদউল্লাহ) একটি কাঁধের ইনজুরি আছে। তাই সে বোলিং নাও করতে পারে। সেই কথা চিন্তা করে যেন ব্যাকআপ হিসেবে একজন স্পিন বোলিং অলরাউন্ডার দরকার হয়, তাই সৈকতকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।’

মোসাদ্দেকের দলে আসাটা কিছুটা প্রত্যাশিত হলেও চমক হয়ে এসেছে রাহীর নাম। মাশরাফি বিন মুর্তজা, মুস্তাফিজুর রহমান, রুবেল হোসেন, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনের সঙ্গে পঞ্চম পেসার হিসেবে তাসকিন আহমেদ ও শফিউল ইসলামের নাম শোনা যাচ্ছিল। তবে তাদের ছাপিয়ে বিশ্বকাপ দলে জায়গা করে নিয়েছেন রাহী।

২৫ বছর বয়সি এই পেসারের এখনো ওয়ানডে অভিষেক হয়নি। বাংলাদেশের হয়ে খেলেছেন ৫টি টেস্ট ও ৩টি টি-টোয়েন্টি। গত নিউজিল্যান্ড সফরেও টেস্ট খেলেছেন। যেখানে দুই টেস্টে দুই ইনিংসে পেয়েছেন মোটে ৩ উইকেট। তবে উইকেটসংখার চেয়ে সুইং করাতে পারার দক্ষতার কারণেই মূলত তাকে বেছে নিয়েছেন নির্বাচকরা।

‘নিউজিল্যান্ড কন্ডিশনে সে (রাহী) টেস্ট ম্যাচ খেলার সুযোগ পেয়েছিল, ওয়ানডে খেলার সুযোগ পায়নি। তবে সেই কন্ডিশনে আমরা যতটা দেখেছি যে ওর বোলিংয়ে যথেষ্ট সুইং আছে। আমাদের পেসারদের মধ্যে সুইং বোলারের সংখ্যা বেশ কম। যেহেতু ইংলিশ কন্ডিশনে খেলা, আয়ারল্যান্ডেও ত্রিদেশীয় সিরিজ আছে। আর মে এবং জুন মাসের দিকে ঠাণ্ডাও বেশি থাকে। তাপমাত্রাও অনেক কম থাকে। সেই হিসেবে পেসারদের মধ্যে সুইং বোলার কাউকে যদি অন্তর্ভুক্ত করতে পারি তাহলে সেটি আমাদের জন্য প্লাস পয়েন্ট। সেই চিন্তা করে রাহীকে দলে রাখা হয়েছে’- বলেছেন প্রধান নির্বাচক।

 

 


রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৬ এপ্রিল ২০১৯/পরাগ

   


Walton AC

আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

খেলার মাঠে ফুটবলারের মৃত্যু

২০১৯-০৪-২৬ ১০:৪১:২৪ এএম

২৩ বছর পর ফাইনালে আটালান্টা

২০১৯-০৪-২৬ ৯:২৩:৫৭ এএম

ছয় বছরে রাইজিংবিডি কতটা সফল?

২০১৯-০৪-২৬ ৮:২৮:২৮ এএম

উন্নয়নের সাথে থাকার অঙ্গীকার

২০১৯-০৪-২৬ ৮:১২:৩৮ এএম

বিয়ের খবরে চটেছেন স্বস্তিকা

২০১৯-০৪-২৬ ৮:০৭:৫২ এএম