বড়পুকুরিয়া তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্রের ইউনিট চালু

প্রকাশ: ২০১৯-০৭-১১ ৫:১৮:২৪ পিএম
সোহেল সানী | রাইজিংবিডি.কম

পার্বতীপুর (দিনাজপুর) সংবাদদাতা : দিনাজপুরের পার্বতীপুর বড়পুকুরিয়া কয়লাভিত্তিক ৫২৫ মেগাওয়াট তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্রের এক নম্বর ইউনিট দীর্ঘ দুই বছর ৪১ দিন পর চালু হয়েছে।

বুধবার সকালে চালুর পর এখান থেকে উৎপাদিত বিদ্যুৎ জাতীয় গ্রিডে আগের মতো যোগ হচ্ছে। বাণিজ্যিকভাবে উৎপাদনের আগে এ ইউনিটে গত এক সপ্তাহ ধরে পরীক্ষামূলকভাবে বিদ্যুৎ উৎপাদন করা হচ্ছিল।

তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্র সূত্র জানায়, পার্বতীপুরের বড়পুকুরিয়া কয়লাভিত্তিক তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্রের তিনটি ইউনিটের মধ্যে ১২৫ মেগাওয়াটের প্রথম ইউনিটটি চালু হয় ২০০৬ সালের জুন মাসে।

দীর্ঘ ১১ বছর পর চীনা ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান সিএমসি ও এক্সএমসি কনসোর্টিয়াম ২০১৭ সালের ৯ অক্টোবর এই ইউনিটে বিদ্যুৎ উৎপাদন বন্ধ করে ভারী মেরামতের কাজ (মেজর ওভারহোলিং) শুরু করে। চুক্তি অনুযায়ী ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান ৪২০ দিনের মধ্যে মেজর ওভারহোলিংয়ের কাজ সম্পন্ন করার কথা থাকলেও নির্ধারিত সময়ের মধ্যে কাজ সম্পন্ন করতে পারেনি। অতিরিক্ত ২৪০ দিন সময় লাগে এই ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের। ওভারহোলিংয়ে প্রায় ২০০ কোটি টাকা ব্যায় হয়েছে।

বড়পুকুরিয়া কয়লাভিত্তিক ৫২৫ মেগাওয়াট তাপ বিদ্যুৎকেন্দ্রের  ব্যবস্থাপক (সংরক্ষণ) প্রকৌশলী মাহবুবুর রহমান বলেন, চীনা ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান চুক্তি অনুযায়ী নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে মেজর ওভারহোলিংয়ের কাজ শেষ করতে পারেনি। বুধবার সকাল থেকে পরীক্ষামূলকভাবে ১২৫ মেগাওয়াটের প্রথম ইউনিটের উৎপাদিত বিদুৎ জাতীয় গ্রিডে যোগ হচ্ছে। এই ইউনিট উৎপাদনে যাওয়ায় উত্তরাঞ্চলে বিদ্যুৎতের ঘাটতি পূরণ হবে। লোডশেডিং কমে যাবে বলে।


রাইজিংবিডি/দিনাজপুর/১১ জুলাই ২০১৯/সোহেল সানী/সাইফ

     


Walton AC

আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

বরিশালে ওয়ালটন কিস্তি মেলা শুরু

২০১৯-০৭-১৯ ৮:৩২:৪৭ পিএম

প্রদর্শনীতে রঙ-বেরঙের পাখি

২০১৯-০৭-১৯ ৮:২৬:১৩ পিএম

আদালতে মিন্নির জবানবন্দি

২০১৯-০৭-১৯ ৭:৪৯:৩০ পিএম

নির্যাতিত গৃহকর্মী হাসপাতালে

২০১৯-০৭-১৯ ৭:০৯:৪২ পিএম