উদ্বোধনের অপেক্ষায় দোয়ারাবাজার বর্ডার হাট, তবে..

প্রকাশ: ২০১৯-১০-১০ ১০:৫২:০৫ এএম
সুনামগঞ্জ সংবাদদাতা | রাইজিংবিডি.কম

উদ্বোধনের অপেক্ষায় বাংলাদেশ-ভারতের সীমান্তে নির্মিত নতুন আরও একটি বর্ডার হাট।

সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলার ভারত সীমান্তে এই হাটটির অবস্থান। হাটের স্থান নির্ধারণ করা হয়েছে- এপারে উপজেলার বোগলাবাজার ইউনিয়নের বাগান বাড়ি এবং ওপারে রিঙ্গু এলাকার জিরো পয়েন্টে।

সংযোগ সড়কের কাজ শেষ না হওয়ায় বাংলাদেশ-ভারত সীমান্তের এই বর্ডার হাটটি উদ্বোধনে বিলম্ব হতে পারে বলে মনে করছেন স্থানীয়রা। ভারতীয় অংশে বর্ডার হাট পর্যন্ত সড়ক সংযোগের কাজ শেষ পর্যায়ে। কিন্তু এখনো হয়নি এপারের বোগলাবাজার-বাগানবাড়ি যোগাযোগ সড়ক। তাই মানুষের মনে এই শঙ্কা।

অবশ্য, সব শঙ্কা উড়িয়ে দিয়ে সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ বলেছেন, দ্রুতই সংযোগ সড়কসহ সকল কাজ শেষ করে আগামী ডিসেম্বরে এই বর্ডার হাট উদ্বোধন করবেন দুই দেশের প্রধানমন্ত্রী।

জানা যায়, ২০১৭ সালের ২০ সেপ্টেম্বর বর্ডার হাটের স্থান নির্ধারণে বাংলাদেশ-ভারতের পদস্থ কর্মকর্তাদের যৌথ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বাগানবাড়ি এলাকায় জিরো পয়েন্টে হাটের স্থান নির্ধারণ ও দ্বিপাক্ষিক বিষয় নিয়ে বৈঠকে বাংলাদেশের পক্ষে নেতৃত্ব দেন সুনামগঞ্জের সে সময়ের জেলা প্রশাসক মো. সাবিরুল ইসলাম এবং ভারতের পূর্ব খাসিয়ার জেলা প্রশাসক শ্রী পিএস ধর। দুই দেশের মধ্যবর্তী স্থান বাগানবাড়ি এলাকায় এই যৌথ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছিল। এসময় এপারের বাগান বাড়ি এবং ওপারের রিঙ্গু এলাকার জিরো পয়েন্টে হাটের স্থান নির্ধারণ হয়। এরপর ২০১৮ সালে শুরু হয় হাট নির্মাণের কাজ। ইতোমধ্যে বর্ডার হাটের ভারতীয় সীমানায় ১২ টি এবং বাংলাদেশের সীমানায় ১৩ টি দোকান কোঠার নির্মাণ কাজ প্রায় শেষ। ভারতীয় অংশে সংযোগ সড়কের কাজও শেষ পর্যায়ে। কিন্তু এপারের সংযোগ সড়ক এখনো হয়নি। একারণে স্থানীয় লোকজনের চলাচলে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

বাগানবাড়ী এলাকার বাসিন্দা আব্দুর রহিম বলেন, ‘বর্ডার হাটটি চালু হলে দুই দেশের সীমান্তবর্তী প্রত্যন্ত জনপদের মানুষ তাদের প্রয়োজনীয় পণ্য পেতে সুবিধা হবে এবং অর্থনৈতিকভাবেও স্বাবলম্বি হবে এই অঞ্চলের মানুষ।’

বোগলাবাজার ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আরিফুল ইসলাম জুয়েল বলেন, ‘সড়ক নির্মাণের কাজ শেষ না করলে বর্ডার হাটের উদ্বোধন বিলম্ব হতে পারে। হাটের নির্মাণ কাজ প্রায় শেষ। হাটটি চালু হলে এই অঞ্চলের মানুষ উপকৃত হবে। এছাড়াও দুই দেশের মানুষের মধ্যে ভাতৃত্বপূর্ণ সম্পর্ক স্থাপন হবে। কিন্তু এই বর্ডার হাট যেতে যোগাযোগের ব্যবস্থা নাজুক পর্যায়ে আছে। কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগের পরেও এখনো কাজ হয়নি।’

তিনি বলেন, ‘বোগলাবাজার-বাগানবাড়ি সড়কের ২৭০০ মিটার সড়কের ৫০০ মিটারের কাজ হয়েছে। বাকী ২২০০ মিটার এখনো মাটির সড়ক। এই অংশে থাকা একটি সেতু’র অ্যাপ্রোচও ধসে গেছে। এই অঞ্চলের মানুষের পক্ষ থেকে কর্তৃপক্ষের প্রতি দাবি জানাই দ্রুত যেন এই হাটের সড়কের কাজ বাস্তবায়ন করা হয়।’

দোয়ারাবাজার উপজেলা এলজিইডি’র প্রকৌশলী হরজিৎ সরকার জানালেন, ‘এই প্রকল্পটির প্রাক্কলন সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নিকট পাঠানো হয়েছে। এখনো অনুমোদন হয়নি। অনুমোদন আসলে দ্রুত সড়কের নির্মাণ কাজ করা হবে।’

সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক বলেন, ‘আগামী ডিসেম্বরেই বাংলাদেশের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এবং ভারতের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর বর্ডার হাটটি উদ্বোধনের সম্ভাবনা রয়েছে। উভয় পাশে যে সংযোগ সড়ক সেটিও নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। বিশেষ করে বাংলাদেশ অংশে স্থানীয় সরকার অধিদপ্তর কতৃক এই সড়কের পাক্কলন তৈরি করা হয়েছে প্রায় ২ কোটি টাকা বরাদ্ধের জন্য। আমরা আশা করছি এই সময়ের মধ্যে বাংলাদেশ অংশের সড়কের নির্মাণ কাজও শেষ হবে।’



সুনামগঞ্জ/আল আমিন/টিপু


   



আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

বিশ্বের প্রথম চুলের ব্যাংক!

২০১৯-১০-২৩ ১০:২৭:৫৬ পিএম

বাংলা টিউন অ্যাপে নতুন ফিচার

২০১৯-১০-২৩ ১০:১২:২৭ পিএম

বিশ্বজুড়ে এখন বিক্ষোভের সময়

২০১৯-১০-২৩ ৯:২৫:২৬ পিএম
এসএম নজরুল ইসলাম স্মৃতি ফুটবল টুর্নামেন্ট

টাইব্রেকারে সখীপুরের জয়

২০১৯-১০-২৩ ৯:০৬:১৩ পিএম