পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়

স্বপ্ন যেখানে পাখা মেলে

প্রকাশ: ২০১৯-০৯-০৮ ১০:০৬:৫৬ এএম
মোহাম্মদ আবদুল্লাহ মজুমদার | রাইজিংবিডি.কম

মোহাম্মদ আবদুল্লাহ মজুমদার: পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা খালি পকেটেও বাঁধনহারা হাসিতে মুখ ভরে রাখে, মুভি দেখে সকাল বেলা পরীক্ষা দিতে যায়, পরীক্ষায় খারাপ করেও পরবর্তী স্টেপে যেতে পিছু হটে না। তারা পড়াশোনা করে, রাজনীতি করে, প্রেম ভালোবাসায়ও অদম্য। আবার কেউ কেউ একই সাথে রাজনৈতিক রাঘব বোয়ালদের হাতিয়ার হিসেবে কাজ করে, আবার প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষা দিয়ে সাফল্যের শিখরে পৌঁছায়।

এখানে যেমন কোটিপতির সন্তান রয়েছে, তেমনি দিনমজুরের সন্তানও রয়েছে ।

তাদের বৈষম্য স্পর্শ করতে পারে না। সেখানে যেমন আলালের ঘরের দুলাল আছে, আবার টিউশন বা পার্টটাইম কাজ করে নিজ রোজগারে চলা ছেলে-মেয়েরাও রয়েছে।

এরা বাসের ভিড়ে জায়গা না পেলে বাদুড়ের মত ঝুলে যেতেও অভ্যস্ত, আবার গাড়ির সিটে ভাব নিয়ে বসতেও পটু। এরা গাদাগাদি করে হলের ডরমেটরিতে ঘুমাতে পারে, আবার এসি রুমেও নিজেকে মানিয়ে নিতে পারে সর্বোকৃষ্ঠ ভাবে। চটি জুতায় বছর পার করে, আবার স্নিকার্স পরে কুল হ্যান্ডসাম ডিউড সাজতেও এদের জুড়ি নেই।

এরা হলের পচা-বাসি খাবার খেয়েও অভ্যস্ত, আবার হাইফাই চাইনিজ রেস্টুরেন্টের ফাস্টফুডও পেটে পুরতে কোনো সমস্যা হয় না । এরা যেমন প্রেমে ছ্যাঁকা খেতে পারে, আবার ঘুরে দাঁড়াতেও পারে।

পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের হলে ও ক্যাম্পাসের ঝুপড়িগুলোতে প্রতি রাতে গল্প তৈরি হয়।  অনুপ্রেরণার গল্প , সম্ভাবনার গল্প এবং রিলেশন ব্রেকাপ হওয়ার গল্প ।  পরিবার ছেড়ে দূরে থাকার গল্প ।  সবাই মিলে একসাথে বসে ঝাল মুড়ি খাওয়ার গল্প।  রাত জেগে রুইতন, হরতন পেটানোর গল্প। অসাধারণ বন্ধুত্ব আর অপরিসীম শত্রুতা দুটোই সমান্তরাল ভাবে বিদ্যমান এখানে।

এইচএসসিতে ডাবল এ প্লাস (A+) পেয়ে ক্যাম্পাসে এসে সেকেন্ড ক্লাস পাওয়া ছেলেমেয়ে যেমন আছে, একইভাবে দুটো এ মাইনাস (A-) বা বি গ্রেড (B) পেয়ে ক্যাম্পাসে এসে ফাস্ট হওয়া ছেলেমেয়েরও এখানে অভাব নেই।

সর্বোচ্চ সিজিপিএ পাওয়া বেকার ছেলেমেয়ে যেমন পাবেন, আবার কম জিপিএ নিয়ে জীবনে সাইন করা ছেলেমেয়েও এখানে আছে।

এখানে এক রাত পড়াশোনা করে সি প্লাস পাওয়া স্টুডেন্ট যেমন আছে, একইভাবে সারা বছর পড়াশোনা করে এ প্লাস পাওয়া স্টুডেন্টও আছে।

মেকাপের আবরণে ঢাকা পটের বিবিও যেমন আছে, একই সাথে গলা ফাটিয়ে মিছিলে স্লোগান দেয়া সংগ্রামী মেয়ের পাবলিকের ক্যাম্পাসে জুড়ি নেই।

এখানে কেউ কারো প্রভু নয়। বরং সবাই একেকটা বস। এখানে প্রতিটা ছেলেমেয়ে একেকটা ক্রিয়েটর। ভাবনায় কোনোকিছু আসতে দেরি, সৃষ্টি করতে দেরি হয় না।

পাবলিকের ক্যাম্পাসগুলোতে শুধু স্বপ্ন তৈরি হয় না। এখানে স্বপ্নের স্রষ্টা তৈরি হয় । প্রতিটা স্টুডেন্ট তার জায়গা থেকে একেকজন বড় মাপের ড্রিম মেকার।

শার্টল ট্রেনের বগি, টিএসসির বারান্দা ও চারুকলার ঝুপড়িতে ড্রাম বাজানো ছেলেটা কিংবা টিউশনিতে গিয়ে বেতন না পেয়ে ঠকে যাওয়া মানুষটির স্বপ্নের পথও পাবলিকের ক্যাম্পাসে সংকুচিত নয়।

লেখক: শিক্ষার্থী, টেলিভিশন, চলচ্চিত্র ও আলোকচিত্র বিভাগ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়।


রাইজিংবিডি/ঢাকা/৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯/মোহাম্মদ আবদুল্লাহ মজুমদার/হাকিম মাহি


   


Walton AC

আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

এরশাদের আসনে নির্বাচন

লাঙ্গল-ধানের শীষ মাঠে নামাতে পারেনি

২০১৯-০৯-১৬ ৯:০২:৪৩ এএম

১৯৭২ সালের পর...

২০১৯-০৯-১৬ ৮:৪৫:১০ এএম

এক বাড়িতেই ঢাকার ইতিহাস

২০১৯-০৯-১৬ ৮:৩৮:০৫ এএম

আয়ুষ্মানের আট বছরের অপেক্ষা

২০১৯-০৯-১৬ ৮:২২:৩২ এএম

টিভিতে আজকের খেলা

২০১৯-০৯-১৬ ৮:১৬:৩০ এএম

‘প্রথম ১০ মিনিটের ভুলে হেরে গেছি’

২০১৯-০৯-১৬ ১২:৩৯:৪৫ এএম

চট্টগ্রামে ছুরিকাঘাতে যুবক খুন

২০১৯-০৯-১৬ ১২:২৮:২৪ এএম

বিশ্ব ওজোন দিবস আজ

২০১৯-০৯-১৬ ১২:১৬:২৯ এএম

ওয়ালটন ম্যান অব দ্য ম্যাচ নবী

২০১৯-০৯-১৬ ১২:০২:৩৯ এএম