ওপেনিং ব্যাটসম্যান মেয়র প্রার্থী আতিকুল

প্রকাশ: ২০২০-০১-২৪ ৮:৩৩:০৯ পিএম
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক | রাইজিংবিডি.কম

কখনো চা দোকানে বসে চা বানিয়ে, কখনো সাধারণ মানের হোটেলে খাবার খেয়ে আবার কখনো ফুটপাতে বসে বিশ্রাম নিয়ে আলোচনায় আসা আতিকুল ইসলাম এবার নামলেন ক্রিকেট মাঠে। তাও আবার ওপেনিং ব্যাটসম্যান হিসেবে। নেমে হাঁকালেন চার-ছয়। হলেন বোল্ড আউটও!

শুক্রবার প্রচারণা শুরু করার আগে তিনি গিয়েছিলেন গুলশান ইয়ুথ ক্লাব মাঠে। এখানে চলছিল দ্বিতীয় বিভাগের একটি ক্রিকেট টুর্নামেন্ট।

টুর্নামেন্টে উপস্থিত হয়ে মাঠে যুবসমাজকে উৎসাহ দেন আওয়ামী লীগ সমর্থিত এই মেয়র প্রার্থী। পরে ক্রিকেটারদের পোশাক, গ্লাভস, প্যাড, হেলমেট পরে মাঠে নেমে যান আতিকুল ইসলাম। আরেকজন ব্যাটসম্যানকে সাথে নিয়ে ওপেনিং ব্যাটসম্যান হিসেবে মাঠে প্রবেশ করলে উপস্থিত নেতাকর্মী ও জনতা তাকে করতালি দিয়ে স্বাগত জানান।

আতিকুল ইসলাম স্ট্রাইকিং প্রান্তে মোকাবেলা করেন ম্যাচের প্রথম বল। কয়েকটি বল খেলে চার-ছয়ও হাঁকান তিনি। তার ব্যাট চালানোর কৌশল দেখে অনেকেই বলতে থাকেন, এক সময় ভালো ক্রিকেট খেলতেন তিনি। কয়েকটি বল বাউন্ডারির বাইরেও পাঠান। পরে বোল্ড আউট হয়ে ফিরে আসেন প্যাভিলিয়ানে। 

আতিকুল ইসলাম জানান, এখনো খেলাধুলা করেন তিনি। এজন্য তিনি শারীরিকভাবে এখনো ফিট আছেন।

ক্রিকেট খেলা শেষে তিনি বলেন, ‘যুবসমাজকে খেলাধুলায় আকৃষ্ট করতে মেয়র নির্বাচিত হলে রাজধানীতে মাঠ তৈরির উদ্যোগ নেব। যুব সমাজকে মাদকমুক্ত-সন্ত্রাসমুক্ত করতে গেলে খেলাধুলার বিকল্প নেই। এজন্য নির্বাচিত হলে ঢাকা উত্তরে খেলার মাঠ তৈরিতে মনোযোগ দেব।’

আতিকুল ইসলাম বলেন, ‘‘আমাদের যুব সমাজ নানা কারণে ডিপ্রেশনে চলে যাচ্ছে। আমাদের সমাজে এমন কোনো ঘর নাই যেখানে কেউ না কেউ এ সমস্যায় আক্রান্ত নয়। আমরা হয়ত লোকলজ্জার ভয়ে সমাজের সামনে বিষয়টি আনি না। খেলাধুলা থাকলে যুব সমাজ এ ধরনের সমস্যা থেকে মুক্তি পাবে বলে আমি মনে করি।

‘আপনাদের ভোটে, জনগণের ভোটে ইনশাল্লাহ আগামী ফেব্রুয়ারিতে নৌকা মার্কায় জয়যুক্ত হলে আমি কথা দিতে পারি মাঠগুলোকে অবশ্যই ফিরিয়ে আনব। খুশি হবেন যে, আমরা ২৪টি পার্ক এবং মাঠের কাজে হাত দিয়েছি, এসব মাঠের মধ্যে কয়েকটি হবে মাল্টিপারপাস। সেখানে ক্রিকেট ফুটবলসহ বিভিন্ন খেলাধুলা করা যাবে।”

পরে আতিকুল ইসলাম রাজধানীর বাউনিয়া, নলভোগ, কালিয়ারটেক, কামরাপাড়াসহ নির্বাচনী আসন-১৮ এর আওতাধীন ৫১, ৫২, ৫৩, ৫৪ নম্বর ওয়ার্ডের ১১ নং সেক্টর জমজম টাওয়ার থেকে গণসংযোগে অংশগ্রহণ করেন।

চলন্তিকা বস্তিতে পরিদর্শনকালে আতিকুল ইসলাম বলেন, ‘বারবার আপনারা অগ্নিকাণ্ডের মুখোমুখি হচ্ছেন, ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন। আমি অত্যন্ত দুঃখ ভারাক্রান্ত মনে বলতে চাই, এ ধরনের দুর্ঘটনা যেন না ঘটে সেজন্য ইতোমধ্যেই আমি নানা পরিকল্পনা গ্রহণ করেছি। এটির স্থায়ী সমাধান জরুরি। সেজন্য আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সাথে কথা বলব। যেকোনো প্রয়োজনে আমি আপনাদের পাশে আছি, থাকব ইনশাল্লাহ।’

এ সময় ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগ এর সভাপতি শেখ বজলুর রহমান এবং সাধারণ সম্পাদক এস এম মান্নান কচি প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে তারকাদের নিয়ে ঢাকা উত্তর সিটি নির্বাচনে আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী আতিকুল ইসলামের স্ত্রী ডা. শায়লা সাগুফতা প্রচারণা চালিয়েছেন। রাজধানীর গুলশান ২ নম্বর ডিসিসি মার্কেট থেকে এই প্রচারণা শুরু হয়। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন সাবেক প্রতিমন্ত্রী ও নাট্যজন তারানা হালিম, অভিনেত্রী বাঁধন, অভিনেতা রিয়াজ, সাজু খাদেমসহ অনেকে।

প্রচারণায় শায়লা সাগুফতা বলেন, ‘আমরা আশা করি জনগণ নৌকার পক্ষে ভোট দেবেন। আমরা ভালো কাজ করেছি। ৯ মাস আতিকুল ইসলাম নিরলস কাজ করে গেছেন। তিনি আপ্রাণ চেষ্টা করেছে নগরবাসীর সেবা করতে। আশা করি ঢাকাবাসী আবারও নৌকায় ভোট দিয়ে কাজ করার সুযোগ করে দেবেন।’


ঢাকা/পারভেজ/সনি      

     



আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

অপো এফ১৫ ফোনে শক্তিশালী র‍্যাম

২০২০-০২-২৫ ১২:৩১:২৮ পিএম

আগুনে ২২ দোকান পুড়ে ছাই

২০২০-০২-২৫ ১১:২৪:৫৭ এএম

এনু-রুপনের বাড়িতে ৫ সিন্দুক টাকা

২০২০-০২-২৫ ১১:০৭:৪১ এএম