পণ্য বিপণনে অত্যাধুনিক প্রযুক্তি চায় বায়িং প্রতিষ্ঠানগুলো

প্রকাশ: ২০১৯-০৯-০৭ ২:৩৯:১৪ পিএম
আহমদ নূর | রাইজিংবিডি.কম

নিজস্ব প্রতিবেদক : পণ্য বিপণনে বিশ্বের অন্যান্য দেশের সঙ্গে প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে হলে অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার চায় বাংলাদের গার্মেন্ট বায়িং হাউজ অ্যাসোসিয়েশন।  এ জন্য সংগঠনটি সরকারের সহায়তা কামনা করেছে।

শনিবার রাজধানীর বনানীতে নিজ কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনের সভাপতি কাজী ইফতেখার হোসেন সরকারের কাছে এ সহায়তা চান।

বস্ত্র আইন-২০১৮ প্রণয়নের মধ্য দিয়ে বায়িং হাউজগুলোকে অন্তর্ভূক্ত করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানানো হয়। পোশাক শিল্পের বৈশ্বিক চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

কাজী ইফতেখার হোসেন বলেন, ‘প্রযুক্তির দিক থেকে আমরা অনেক পিছিয়ে আছি। এ জন্য আমাদের অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করতে হবে। প্রযুক্তির ব্যবহার করে আমাজন, আলী বাবার মতো প্রতিষ্ঠান সারা বিশ্বে পণ্য বিপণন করছে। তারা বাজারে আধিপত্য বিস্তার করছে। আমাদেরও এভাবে প্রযুক্তি ব্যবহার করে এগিয়ে যেতে হবে । না হলে চতুর্থ শিল্প বিপ্লবে আমরা পিছিয়ে যাব।’

যোগ্য কর্মীর অভাবে বিপুল অর্থ বিদেশে চলে যাচ্ছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘দেশে টেক্সটাইল পড়ে একটা ছেলে ন্যূনতম বেতন নিয়ে চাকরি করে। তারা কাজ করতে পারে না বা বোঝে না। এজন্য দেশের প্রতিষ্ঠানগুলোকে ভারত, শ্রীলঙ্কার মতো দেশের উপর নির্ভরশীল হতে হয়। বিদেশ থেকে বেশি বেতনে কর্মী আনতে হয়। অথচ আমাদের ছেলেরা স্কিলড হলে তারাই এই টাকা দেশে রাখতে পারত। ’

বিজিবিএর পক্ষ থেকে জানানো হয়, বস্ত্র আইন-২০১৮ প্রণয়নের মধ্য দিয়ে ‍বায়িং হাউজসহ পোশাক খাতের সংশ্লিষ্ট সব প্রতিষ্ঠান একটি শৃঙ্খলার মধ্যে আসছে। এখন থেকে প্রতিটি বায়িং হাউজকে মন্ত্রণালয় থেকে নিবন্ধন নিতে হবে। ফলে সবাই জবাবদিতার আওতায় থাকবে।

সংগঠন থেকে আরো জানানো হয়, তাদের নিবন্ধিত ৫০০ বায়িং হাউজ রয়েছে। এ ছাড়া, দেশের ১৪৪টি বায়িং হাউজ নিবন্ধনের জন্য ইতোমধ্যে মন্ত্রণালয়ে আবেদন করেছে। ৪৪ টি বায়িং হাউজকে সরকার অনুমোদন দিয়েছে।

সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনের জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি মো. হারুন উর রশিদ সহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন।


রাইজিংবিডি/ঢাকা/৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯/নূর/ইভা


   



আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

শেষ ভালোর প্রত্যাশায়

২০১৯-০৯-২০ ১:২৯:০৭ এএম

খালেদের বিরুদ্ধে মাদকের আরেক মামলা

২০১৯-০৯-১৯ ১১:৩১:১৬ পিএম