‘আমিও কি মুক্তিযোদ্ধা?’

প্রকাশ: ২০২০-০৩-২৫ ১:১৭:২১ পিএম
বিনোদন ডেস্ক | রাইজিংবিডি.কম

ভোটে একক সংখ্যাগরিষ্ঠদের হাতে ক্ষমতা দেওয়া যাবে না কেন, তা সগীর বুঝতেই পারে না। মিটিং আর মিটিং চলছে। যদি মিটিং করে দেশের ক্ষমতা ভাগাভাগি হয় তাহলে নির্বাচনের প্রয়োজনটা কী ছিল?

সগীর সাধারণ এক ছেলে। সরকারি চাকরি করে। মতিঝিলে তার অফিসে। সহজ-সরল হলেও ৭ মার্চ বঙ্গবন্ধুর ভাষণ তার মধ্যে অধিকার আদায়ের চেতনা জাগিয়ে তুলে। কিন্তু তা ওই পর্যন্তই সীমাবদ্ধ ছিল। তারপর নানা ঘটনার মধ্য দিয়ে সময় কাটছিল। তার শ্যালকদের পরিকল্পনা অনুযায়ী সগীর তার স্ত্রীকে গ্রামে রেখে আসে।

এদিকে কড়া নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে অফিসে যাওয়া-আসা করে সগীর। পথে তল্লাশির মধ্যে যদি বোমা ফাটানো যায় তবে পাকিস্তানিরা মুক্তিযোদ্ধাদের শক্তি বুঝতে পারবে। পরিকল্পনা অনুযায়ী সগীর ইচ্ছাকৃতভাবে মোটরসাইকেল অ্যাকসিডেন্ট করে। তারপর সগীরের শরীরে ব্যান্ডেজ করা হয়। এ অবস্থায় দুই দিন আসা-যাওয়া করে সে। পরের দিন ব্যান্ডেজের ভেতর বোমা তৈরির সরঞ্জাম একটু একটু করে নিতে শুরু করে। একসময় সব নেওয়া শেষ হয়। এদিকে সগীরের আরো দুই সহকর্মী বিষয়টি জেনে যায়। তারপর গল্প মোড় নেয় ভিন্ন দিকে।

এমন গল্প নিয়ে নির্মিত হয়েছে একক নাটক ‘আমিও কি মুক্তিযোদ্ধা’। এতে সগীর চরিত্রে অভিনয় করেছেন আব্দুন নূর সজল। তার সঙ্গে জুটি বেঁধেছেন নাদিয়া নদী। সহজ-সরল ও শিক্ষিতা একজন গৃহিণীর চরিত্রে অভিনয় করেছেন নদী। নাটকটি পরিচালনা করেছেন শাহিন আহমেদ।

এছাড়াও বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন—কাজী উজ্বল, আশরাফ কবীর, তমাল মাহবুব, শিশির আহমেদ, তন্দ্র, লিজা খানম প্রমুখ। আগামীকাল বৃহস্পতিবার রাত ৯ টায় বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল এটিএন বাংলায় প্রচার হবে এ নাটক।

 

ঢাকা/শান্ত


     



আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

বিদেশফেরত অনেকেই আত্মগোপনে

২০২০-০৪-০১ ৫:১৫:৫৪ এএম