মর্গে ঘুমিয়ে বিপত্তি

প্রকাশ: ২০১৯-০৩-১৭ ২:০৮:৪৬ পিএম
শাহিদুল ইসলাম | রাইজিংবিডি.কম

শাহিদুল ইসলাম

শাহিদুল ইসলাম : হেনরী পল জনসন পেশায় ছিলেন মর্গ কর্মী। কাজ করতেন টেক্সাসের জেফারসন কাউন্টি মর্গে। কিন্তু নিয়তির নির্মম পরিহাসে সেই মর্গেই করুণ মৃত্যু হলো তার।

প্রতিদিনের মতো সেদিনও মর্গে কাজ করছিলেন জনসন। একটানা ষোল ঘণ্টা কাজ করার পর ক্লান্তিতে অবসন্ন হয়ে আসে তার শরীর। ভেবেছিলেন কিছুক্ষণ ঘুমিয়ে নিয়ে আবারো কাজে ফিরবেন। এটা ভেবেই ঘুমিয়েছিলেন মর্গের একটা লাশ বহনের খাটিয়ার উপর। কিন্তু তিনি কি জানতেন এই ঘুমই হবে তার শেষ ঘুম!

জনসন যখন গভীর ঘুমে আচ্ছন্ন তখন জেনা ডেভিস নামে তার এক নবীন সহকর্মী লাশ ভেবে তার দেহ ঢুকিয়ে দেয় চুল্লির ভেতর। কিছুক্ষণের মধ্যেই পুড়ে শেষ হয়ে যায় জনসনের দেহ। এদিকে জনসনের দেহ যখন ইলেকট্রিক চুল্লির ভেতর পুড়ছে, তখন বোধদয় হয় ডেভিসের। কিন্তু ততক্ষণে বড্ড দেরি হয়ে গেছে। ইলেকট্রিক চুল্লির ১৮০০ ডিগ্রি ফারেনহাইট তাপমাত্রায় ভস্ম হয়ে গেছে জনসনের দেহ।

গণমাধ্যমকে ডেভিস বলেন, ‘আমি লাশের পায়ে ঝোলানো ট্যাগ দেখতে ভুলে গিয়েছিলাম। ফলে আরেকটি লাশের সাথে আমি জনসনের ঘুমন্ত দেহকে গুলিয়ে ফেলেছিলাম।’ আলোচিত হৃদয়বিদারক এই ঘটনায় ডেভিসের ভুলটি ইচ্ছাকৃত না অনিচ্ছাকৃত তা খতিয়ে দেখার জন্য একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

 

 

রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৭ মার্চ ২০১৯/মারুফ


   



আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

সুরের মূর্ছনায় এক রাত

২০১৯-১২-০৬ ৮:৩৪:৩৪ এএম

আজ ঐতিহাসিক যশোর মুক্ত দিবস

২০১৯-১২-০৬ ৮:২১:০৩ এএম

অশ্লীল দৃশ্যে অভিনয় করিনি: কেয়া

২০১৯-১২-০৬ ৮:১৩:৩৬ এএম

টিভিতে আজকের খেলা

২০১৯-১২-০৬ ৮:০১:১৩ এএম

৫৮ পদক নিয়ে পঞ্চম স্থানে বাংলাদেশ

২০১৯-১২-০৬ ১২:৫২:২৮ এএম