‘আমি কুকুর, কথা বলতে পারি না’

প্রকাশ: ২০১৯-১০-১৮ ৮:১০:৫৮ এএম
শাহিদুল ইসলাম | রাইজিংবিডি.কম

খাবার কিনতে দোকালে গেলেন। কিন্তু গিয়ে দেখলেন দোকানির স্থানে বসে রয়েছে একটি কুকুর। স্বাভাবিকভাবেই বিস্মিত হবেন। কিন্তু জাপানের হোক্কাইডো দ্বীপের ‘ইনুনো ইকায়িমোয়াসান বা ডগস রোস্টেড সুইট পটেটো  স্ট্যান্ড’-এ গেলে এই দৃশ্য আপনার চোখে পড়বে।

এটি একটি সেদ্ধ মিষ্টি আলু বিক্রির দোকান। জাপানে এই ধরনের দোকান বেশ জনপ্রিয়। তবে অন্যান্য দোকানগুলোর ম্যানেজার মানুষ হলেও এটিই একমাত্র দোকান যার ম্যানেজার একটি কুকুর। মানুষের পক্ষে যেখানে এ ধরনের খাবারের দোকান চালাতে হিমশিম খেতে হয় সেখানে কুকুর দিব্যি খাবার দোকানটি চালিয়ে যাচ্ছে। এমনকি খাবারের অর্ডার থেকে শুরু করে বিল নেয়া- সবই করছে।

কুকুরটির নাম কেন কুন। দোকানের ছোট টেবিলের ওপাশে চুপ করে বসে থাকে সে। ক্রেতা এলেই পা দুটি টেবিলের ওপর উঠিয়ে দেয়। এভাবেই বেচারা ক্রেতাকে আমন্ত্রণ জানায়। এরপর শুরু হয় খাবার ফরমায়েশ দেয়ার পালা। ক্রেতার সঙ্গে কেন কুনের কথা বলার উপায় নেই। তার টেবিলের পাশেই একটি কাগজে ক্রেতার জন্য সব নির্দেশনা দেওয়া আছে। কাগজে লেখা, আমি একটি কুকুর। আমি কথা বলতে পারি না এবং আপনাকে খুচরা পয়সা ফেরত দিতে পারব না। ফলে আপনি যদি ১০০ ইয়েনের অতিরিক্ত অর্থ প্রদান করেন তবে দান হিসেবে গণ্য হবে।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে এই দোকান ও কুকুরের ছবি ছড়িয়ে পড়েছে। এরপর জনপ্রিয়তাও বেড়েছে কয়েকগুণ। এজন্য অবশ্য কেন কুন দোকানে আইটেমও বাড়িয়েছে। বর্তমানে দোকানটিতে টি-শার্টও বিক্রি হচ্ছে।


ঢাকা/মারুফ/তারা


   



আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

টিভিতে আজকের খেলা

২০১৯-১১-১৬ ২:২১:৪৪ এএম

সুরের মূর্ছনায় হেমন্তের রজনী

২০১৯-১১-১৬ ১:১৮:৫৭ এএম