অভিনেত্রীর জীবন বাঁচাল করোনাভাইরাস!

প্রকাশ: ২০২০-০৫-০৭ ৯:৫৭:৫১ পিএম
অন্য দুনিয়া ডেস্ক | রাইজিংবিডি.কম

নতুন করোনাভাইরাস প্রাণঘাতী হিসেবে পরিচিত। গত ডিসেম্বর থেকে শুরু হওয়া এ ভাইরাস এখন পর্যন্ত বিশ্বের দুই লক্ষাধিক মানুষের মৃত্যুর কারণ হয়েছে।

তবে ৩৬ বছর বয়সি এক নারী দাবি করেছেন, করোনাভাইরাস তাঁর জীবন বাঁচিয়েছে। কারণ তাঁর হার্টের জটিল একটি সমস্যা ডাক্তাররা শনাক্ত করতে পেরেছিলেন করোনার চিকিৎসা দেয়ার সময়। 

মিরর অনলাইনের খবরে বলা হয়েছে, লন্ডনভিত্তিক অভিনেত্রী অ্যাঞ্জেলা স্লেগেল বাড়িতে থাকাকালীন সময়ে তাঁর মধ্যে করোনাভাইরাসের উপসর্গ দেখা দেয় এবং ১১ দিন পরে তিনি লন্ডনের রয়্যাল ব্রম্পটন হাসপাতালে ভর্তি হোন।

স্লেগেলের করোনা চিকিত্সার সময় ডাক্তাররা বুঝতে পেরেছিলেন যে তাঁর হার্ট ঠিকভাবে কাজ করছে না। বিবিসি নিউজকে স্লেগেল বলেছেন, ‘আমাকে কেবল বলা হয়েছিল, আমার হার্ট যেভাবে কাজ করার কথা সেভাবে করছে না।’

পরীক্ষায় স্লেগেলের হার্টে বিরল রোগ পলিঙ্গাইটিস (ইজিপিএ) সহ ইওসোফিলিক গ্রানুলোমেটোসিস ধরা পড়ে। এবং ডাক্তাররা যে অনুযায়ী তার চিকিৎসা করেন।

স্লেগেল বলেন, ‘যদি ইজিপিএ’র চিকিৎসা না করা হতো তাহলে আমি হয়তো শিগগির মারা যেতে পারতাম। ডাক্তাররা আমাকে জানিয়েছেন, করোনায় আক্রান্ত হওয়ার কারণে আমার হার্ট অনেক বেশি চাপের সম্মুখীন হয় যা ইজিপিএ দ্রুত প্রকাশ করেছে।’

স্লেগেল আরো বলেন, ‘এটি দীর্ঘমেয়াদে আমার জীবন বাঁচিয়েছিল, তবে স্বল্পমেয়াদে করোনাভাইরাস আমাকে প্রায় মেরে ফেলেছিল।’

রোগ নির্ণয়ের পরে স্লেগেল হাসপাতালে পাঁচ সপ্তাহ কাটিয়েছিলেন এবং তাঁর চিকিত্সাকে ‘জাস্ট আউটস্টান্ডিং’ হিসেবে বর্ণনা করেছেন।

বিবিসি ব্রেকফাস্ট অনুষ্ঠানে তাঁর অন্যতম একজন চিকিৎসক ডা. পুগান প্যাটেল বলেছেন, ‘মিসেস স্লেগেলের সুস্থতা হাসপাতাল কর্মীদের মনোবলের উপর বড় প্রভাব ফেলেছিল।

ডা. প্যাটেল আরো যোগ করেছেন: ‘আপনি যখন দেখেন যে রোগী উঠে দাড়িয়েছেন এবং হাসছেন, তখন এটি একটি দুর্দান্ত প্রভাব ফেলে।’

 

ঢাকা/ফিরোজ


     



আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

কিংবদন্তির আজ জন্মদিন

২০২০-০৫-২৯ ১০:৪১:২৮ এএম

টিভিতে আজকের খেলা

২০২০-০৫-২৯ ১০:০১:৫৩ এএম

ক্রিকেট রেকর্ড থেকে

২০২০-০৫-২৯ ৯:৫৯:১২ এএম

বিচিত্র দেশের গল্প (পর্ব-১)

২০২০-০৫-২৯ ৮:০৭:০৭ এএম