গ্রেপ্তারের তিন দিন পরেই ধর্ষণের আসামির জামিন

প্রকাশ: ২০১৯-০৭-১৮ ১০:১০:৫৬ পিএম
মামুন খান | রাইজিংবিডি.কম

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজধানীর বংশালে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ ও গর্ভের সন্তান নষ্ট করার মামলায় গ্রেপ্তার হওয়া জুয়েল মুন্সি নামে এক আসামির জামিন মঞ্জুর করেছেন আদালত। গত ১৪ জুলাই এ আসামিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার ঢাকার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১  বিচারক আবু নাসের মো. জাহাঙ্গীর আলম শুনানি শেষে জামিনের আদেশ দেন। একই ট্রাইব্যুনাল গত ১৮ জুন আসামির বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন।

জুয়েল মুন্সি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ থানার দুগিরাসা গ্রামের মানিক মিয়ার ছেলে।

বাদীপক্ষের আইনজীবী সৈয়দ মো. আসলাম জানান, ভিকটিম একজন অসহায় নারী। আসামি  বিভিন্ন সময়ে তাকে ধর্ষণ করেন। এ অভিযোগে একই ট্রাইব্যুনালে মামলাটি দায়ের করলে বিচারক আসামির বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন। এরপর ১৪ জুলাই ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ থানা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। পরদিন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে হাজির করা হলে বিচারক তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। অথচ ঢাকার নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইব্যুনাল  গ্রেপ্তারের মাত্র তিন দিনের পর আসামিকে জামিনের আদেশ দেন।

সংশ্লিষ্ট ট্রাইব্যুনালের স্পেশাল পাবলিক প্রসিকিউটর আব্দুল বারী জানান, জামিন শুনানিতে রাষ্ট্রপক্ষ থেকে জামিনের বিরোধিতা করা হয়। জামিনের বিষয়টা আদালতের এখতিয়ার।

ঢাকা মহানগরের পাবলিক প্রসিকিউটর আব্দুল্লাহ আবু বলেন, ‘যেহেতু ধর্ষণ মামলার আসামি ঢাকার বাইরে থেকে গ্রেপ্তার হয়েছে, আদালতের উচিত ছিল সংশ্লিষ্ট ট্রাইব্যুনালে আসামিকে হাজির করে তার উপস্থিতিতে শুনানির দিন ধার্য রাখা। এভাবে শুনানি করে আসামির জামিন দেয়া ঠিক হয়নি।'

বাদী বলেন, মামলা দায়েরের পর থেকে আসামির পরিবারের লোকজন আমাকে হুমকি-ধামকি দিচ্ছেন। এরইমধ্যে জামিন পেল আসামি। আমার লাইফটা শেষ করে দিয়েছে জুয়েল। 


রাইজিংবিডি/ঢাকা/১৮ জুলাই ২০১৯/মামুন খান/রফিক

     


Walton AC

আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

ঢাকায় আসছে স্করপিয়ন্স ও ইয়ান্নি

২০১৯-০৮-২৫ ৬:১১:০৪ পিএম

আরো দুই জেলায় জেলা প্রশাসক নিয়োগ

২০১৯-০৮-২৫ ৫:৩১:২১ পিএম

ব্লাড প্রেসার কমে গেলে কী করবেন?

২০১৯-০৮-২৫ ৪:৫৯:২৩ পিএম