বার্গার খাওয়ার আগে ভাবুন

প্রকাশ: ২০১৯-০৭-২২ ২:১২:৫৫ পিএম
আহমেদ শরীফ | রাইজিংবিডি.কম

প্রতীকী ছবি

আহমেদ শরীফ : বাংলাদেশ সহ বিশ্বের প্রায় সব দেশেই মানুষের প্রিয় এক ফাস্টফুড হলো বার্গার। খেতে সুস্বাদু বলে টিনএজাররা মূলত বার্গার ভক্ত বেশি। তবে এখন এটাও স্বীকৃত যে, বার্গারের মতো ফাস্টফুড মানব শরীরের জন্য ক্ষতিকর হতে পারে। এমনকি মাঝেমধ্যেও যদি বার্গার খান, তাতেও ক্ষতির শিকার হতে পারেন আপনি। বিশ্বাস হচ্ছে না? চলুন জেনে নেই এ নিয়ে বিশেষজ্ঞরা কী বলেন।

বার্গার নিয়ে বিশেষজ্ঞ মত : বিজ্ঞান বলছে জাংক ফুডে ক্যালরি, ফ্যাট ও সোডিয়াম বেশি। তাই ফাস্ট ফুড/জাংক ফুড মাঝেমধ্যে খেলেও তা শরীরের জন্য ক্ষতিকর। উদাহরণ হিসেবে- একটি হ্যামবার্গারে ৫০০ ক্যালরি, ২৫ গ্রাম ফ্যাট, ৪০ গ্রাম কার্বোহাইড্রেট, ১০ গ্রাম সুগার ও ১০০০ মিলিগ্রাম সোডিয়াম থাকে। এই তালিকাই আপনার শরীরের ক্ষতি করার জন্য যথেষ্ট। বার্গারে কামড় দেয়ার ১৫ মিনিট পরই শরীরে গ্লুকোজের মাত্রা বেড়ে যায়। এতে করে ইনসুলিন নিঃসরণ হয়, তাতে কয়েক ঘণ্টা পরই আপনি আবারো ক্ষুধা অনুভব করেন। এ কারণে ডায়াবেটিসের ঝুঁকি বেড়ে যায়। স্যাচুরেটেড ফ্যাট সমৃদ্ধ খাবার শরীরের জন্য ক্ষতিকর। এক গবেষণায় দেখা গেছে, কয়েকজন স্বাস্থ্যবান লোককে স্যাচুরেটেড ফ্যাট সমৃদ্ধ খাবার খাওয়ানোর পর, তাদের রক্তের ধমনীগুলো সঠিকভাবে কাজ করতে পারছে না। আর এই রক্তপ্রবাহ বাধার সম্মুখীন হওয়ায় পরবর্তীতে তাদের হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা বাড়িয়ে দেয়। এছাড়া বার্গারের মতো জাংক ফুডে সোডিয়াম বেশি থাকায় তাও রক্তনালীতে নেতিবাচক প্রভাব ফেলে।

আরো যেসব কারণ : বার্গার আপনার স্বাস্থ্যের জন্য আরো যেসব কারণে ক্ষতিকর হতে পারে-

অস্বাস্থ্যকর মাংস : বার্গারে যে মাংস থাকে, তা কোন গরু বা মুরগি থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে, তা কিন্তু কাস্টমার জানেন না। সেটা রোগ জীবাণু ছড়ানো কোনো গরুর মাংস বা মরা মুরগির মাংসও হতে পারে।

অ্যামোনিয়া : বার্গারে যে মাংস ব্যবহার করা হয়, তাকে ব্যাকটেরিয়ামুক্ত করতে মানব দেহের জন্য ক্ষতিকর অ্যামোনিয়া ব্যবহার করা হয়।

বন কতোটা স্বাস্থ্যকর? : বার্গার তৈরিতে যে বন ব্যবহার করা হয়, সেগুলো বেশিরভাগই অস্বাস্থ্যকর হয়। অনেক বনই ২০টির মতো উপাদান দিয়ে তৈরি করা হয়। সেসবের মাঝে অ্যামোনিয়াম সালফেট (সার তৈরিতে ব্যবহার করা হয়), অ্যামোনিয়াম ক্লোরাইড (বিস্ফোরকে পাওয়া যায়), হাই ফ্রুকটোজ কর্ন সিরাপের মতো ক্ষতিকর উপাদান থাকে।

টপিংসও ক্ষতিকর : বার্গারকে আকর্ষণীয় করতে কেচআপ, চিজ (যা ২০০ ক্যালরির মতো হতে পারে) যোগ করা হয়। আর এসব শরীরের জন্য ক্ষতিকর।

মাংসের পরিমাণ : পুষ্টিবিদরা বার্গারে ৪ আউন্স মাংস রাখার পরামর্শ দেন। কিন্তু অনেক বার্গারেই ৮-১২ আউন্স মাংস থাকে, যা ক্ষতির কারণ।

এসব কারণে পরবর্তীতে বার্গার খাওয়ার আগে অবশ্যই আপনাকে কয়েকবার ভাবতে হবে।

তথ্যসূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া, এভরিডে হেলথ


রাইজিংবিডি/ঢাকা/২২ জুলাই ২০১৯/ফিরোজ

     


Walton AC

আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

সবজির ঝুড়িতে ইয়াবা, আটক ২

২০১৯-০৮-২০ ৯:৫৩:০৮ পিএম

প্রথম ম্যাচে হারল নারী হকি দল

২০১৯-০৮-২০ ৯:১৪:০৭ পিএম

ইতালির প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ

২০১৯-০৮-২০ ৮:৫০:০৮ পিএম