এই সুন্দরের রহস্য জানলে অবাক হবেন

প্রকাশ: ২০২০-০১-১৮ ৪:১৯:৩৩ এএম
লাইফ স্টাইল ডেস্ক | রাইজিংবিডি.কম

ফটো এডিটিং অ্যাপসের এই যুগে সোশ্যাল মিডিয়ায় পুরুষ বা নারীর ছবির বাস্তবতা অনুমান করা কঠিন। আপনি ছবিতে জাপানি যে সুন্দরী কিশোরীকে দেখছেন অনুমান করুন তার বয়স কত হতে পারে?

পারছেন না? একটি ক্লু দিচ্ছি- তিনি বিবাহিত। এটুকু তথ্য দিয়ে সত্য উদঘাটন অসম্ভব মনে হলে জানিয়ে রাখি- তার নাম তাকুমা তানি। পেশায় সংগীতশিল্পী। সোশ্যাল মিডিয়ায় তার ছবি প্রায়ই ভাইরাল হয়। কারণ তাকে সবসময় স্কুলপড়ুয়া মেয়েদের মতো দেখায়! নতুন ভক্তরা তখনই ধোকায় পড়েন।

স্কুলে পড়ার সময় থেকেই মিউজিক খুব পছন্দ ছিল তাকুমার। যৌবনের শুরুতে রক ব্যান্ডে যোগ দিয়েছিলেন। ভালোই চলছিল। হঠাৎ কি মনে হলো, চেহারা বদলে ফেলতে চাইলেন। অর্থাৎ বয়স ধরে রাখার পায়তারা। কিন্তু তাতেও যেন মন ভরছিল না তার। ভাবলেন একেবারে স্কুলজীবনে ফিরে গেলে কেমন হয়! তাও আবার উল্টো চরিত্রে! এরপর থেকে স্কুলছাত্রীর বেশ ধরেই আছেন। চেহারায়ও এনেছেন তেমন পরিবর্তন।

এ কারণেই তাকুমার বয়স অনুমান করা খুব কঠিন, এমনকি সত্যটাও। যদিও কিশোরী সাজাটা তাকুমার জন্য সহজ ছিল না। ১৬২ সেন্টিমিটার লম্বা এবং ৪৭ কেজি ওজনের তাকুমাকে কিশোরী হওয়ার জন্য ভারী মেকআপ করতে হয়। তবে এখন বিষয়টি তার কাছে ডালভাত হয়ে গেছে। সময়ও খুব একটা লাগে না। মাত্র দেড় ঘণ্টা! জেনে অবাক হবেন, জাপানের একটি টিভি শোতে তাকুমা সবার চোখে ধুলো দিয়ে ‘ক্রস ড্রেসিং চ্যাম্পিয়নশিপ’ প্রতিযোগিতায় বিজয়ীও হয়েছেন।

তাকুমা সফল উদ্যোক্তাও বটে। তিনি আতুকোসভেট টোকিও নামে একটি ব্র্যান্ড চালু করেছেন নারীদের জন্য। সেখানে মূলত পোশাক বিক্রি করা হয়। এর বাইরে তিনি মেয়েদের পোশাকের মডেলও হন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় জাপানি এই সংগীতশিল্পী দারুণ জনপ্রিয়। তিনি প্রায়ই জীবন সম্পর্কে শিক্ষামূলক পোস্ট দেন। কিন্তু কখনও বয়স কত বলেন না। তাকে ঘিরে রহস্য তৈরি করে রাখতেই যেন ভালোবাসেন।

পাঠক, এটুকু পড়ে আপনি কি এই কিশোরীর বয়স অনুমান করতে পারছেন? যদি না পারেন তাহলে বলি- তাকুমা ১৯৭৭ সালে জন্মেছিলেন। এবার বয়সটা নিজেই হিসাব করে নিন।,

তারচেয়েও বড় কথা- জেনে নিন এই সত্য- তাকুমা মেয়ে নন, ছেলে! জাপানি এই গায়ক সোশ্যাল মিডিয়ায় কিশোরী মেয়েদের পোশাক পরে ছবি পোস্ট করে থাকেন।



ঢাকা/ফিরোজ/তারা

     



আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

জমি নিয়ে বিরোধ

পাবনায় যুবককে ছুরিকাঘাতে হত্যার অভিযোগ

২০২০-০২-২৪ ১২:৪৬:৩৭ এএম

পাপিয়াকে পুলিশের কাছে হস্তান্তর

২০২০-০২-২৩ ১০:৩১:৩৮ পিএম

বুয়েট হলে সিট পেতে সাত শপথ

২০২০-০২-২৩ ১০:২৬:১৭ পিএম