চুড়িহাট্টা : চোখের জলে নিহতদের স্মরণ

প্রকাশ: ২০২০-০২-২০ ১:২৫:৪৮ পিএম
নিজস্ব প্রতিবেদক | রাইজিংবিডি.কম

চোখের জল ও ভালবাসায় এক বছর আগে রাজধানীর চকবাজারে চুড়িহাট্টার ওয়াহেদ ম্যানশনে অগ্নিকাণ্ডে নিহতদের স্মরণ করেছে তাদের পরিবার, স্বজন ও স্থানীয়রা।

বৃহস্পতিবার ওয়াহেদ ম্যানশনে লাগা আগুনের ঘটনায় এক বছর পূর্তিতে ক্ষতিগ্রস্ত ভবনের সামনে তাদের স্মরণ করা হয়। এসময় পুরো এলাকায় শোকাবহ পরিবেশের সৃষ্টি হয়।

দিনের কর্মসূচি হিসেবে সকাল ৭টায় কালো ব্যাচ ধারণ, সকাল ৮টায় কোরআন খতম ও দোয়ার আয়োজন করা হয়। পাশাপাশি পুরান ঢাকা থেকে কেমিক্যাল গোডাউন অপসারণ, অগ্নিকাণ্ডে দায়ী ব্যক্তিদের শাস্তির আওতায় আনতে স্থানীয় সেচ্ছাসেবীরা গণসাক্ষর কর্মসূচি পালন করেছে।

দুর্ঘটনার এক বছর পূর্তিতে নিহতদের স্বজনরা ওয়াহেদ ম্যানশনের সামনে ভিড় জমান। পাশাপাশি ওই ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শীরা ঘটনার বর্ণনা দেন।

ওয়াহেদ ম্যানশনের সামনে দুগ্ধজাত পণ্য বিক্রেতা লিয়াকত আলী অগ্নিকাণ্ডের ঘটনার পনের মিনিট আগে বাসা থেকে বের হন। তিনি নিজের চোখে ঘটনা প্রত্যক্ষ করেন।

তিনি বলেন, ‘দাঁত মাজনের ছাইয়ের মতো সব পুড়ে হইতে পারে চুড়িহাট্টায় আগুন না লাগলে জানতামই না। এখনো আগুন দেখলে আঁতকে উঠি।’

এ ঘটনায় নিহত মো. জুম্মানের ছেলে মো. রাশেদ হাসান বলেন, মদিনা ডেকোরেটরের ভেতরে ছিল বাবা ও তার এক বন্ধু। পরদিন দোকানের ভেতর থেকে দুজনের পুড়ে যাওয়া লাশ বের করা হয়েছে।

তিনি বলেন, এখনো কোথাও আগুন দেখলে আঁতকে উঠি। একটা ভয় কাজ করে। সেই ঘটনার পরে থেকে আমরা এখনো কোনোভাবেই স্বাভাবিক হতে পারিনি। আমরা পাঁচ ভাই আর বাবা-মার সংসার ছিলো। বাবা একমাত্র উপার্জনক্ষম ব্যক্তি ছিলেন। তিনি এভাবে চলে যাওয়ার পরে আমরা অথৈ সাগরে হাবুডুবু খাচ্ছি। এখন পর্যন্ত কোনো ধরনের সাহায্য সহযোগিতা পাইনি। আমরা চাই সকল নিহতের পরিবাবারের যেন স্থায়ী কোনো ব্যবস্থা করা হয়।

** ‘বাবাকে ছাড়া চলা যে কি কষ্টের তা টের পাচ্ছি’

** সানি জানে না, তার মা আর ফিরবে না

** ভেতরে সব পুইড়া মরল, শুধু দাঁড়াইয়া দাঁড়াইয়া দেখলাম’

** ময়নাতদন্তে আটকে আছে প্রতিবেদন

** চুড়িহাট্টা ট্র্যাজেডির এক বছর

 

ঢাকা/নূর/জেনিস


     



আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

‘আমি কখনো না বলিনি’

২০২০-০৩-৩১ ১২:১৩:৩১ পিএম

করোনা নিয়ে ফের কবিতা লিখলেন মমতা

২০২০-০৩-৩১ ১২:০০:০৯ পিএম

বিজয় সরণিতে যানজট!(ভিডিও)

২০২০-০৩-৩১ ১১:৫৮:০৩ এএম

যাকে ঘিরে হাজারটা স্বপ্ন

২০২০-০৩-৩১ ১১:২১:৫৭ এএম