আম্ফান: পুনর্বাসন প্রক্রিয়ায় সক্রিয় আ.লীগ

প্রকাশ: ২০২০-০৫-২৩ ৭:৫৭:৩২ পিএম
এসকে রেজা পারভেজ | রাইজিংবিডি.কম

ঘূর্ণিঝড় আম্ফান পরবর্তী ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে সরকারের পুনর্বাসনে কার্যক্রমের সহযোগিতা করার পাশাপাশি দলীয়ভাবে সক্রিয় ভূমিকায় রয়েছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। চলতি কারোনা সংকটে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে এবং কৃষকের ধান কেটে ঘরে তুলে দিয়ে বেশ প্রশংসা কুড়িয়েছে আওয়ামী লীগসহ দলটির সহযোগী সংগঠনগুলো।

এরই মধ‌্যে আম্ফানে ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসনে প্রধানমন্ত্রী ও দলটির সভাপতি শেখ হাসিনা শীর্ষ নেতাদের প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দিয়েছেন। সে অনুযায়ী কেন্দ্রীয় নেতারা বৈঠক করে দিক নির্দশনা দিয়ে যাচ্ছেন সংশ্লিষ্ট এলাকার দলীয় নেতাদের। দলের সহযোগী সংগঠনগুলোও মূল দলের সঙ্গে কাধ মিলিয়ে কাজ করছে।

দেশের বিভিন্ন এলাকায় বাঁধ, রাস্তা, ব্রিজ-কালভার্ট-অবকাঠামোর পাশাপাশি ঘরবাড়ি, কৃষি এবং চিংড়ি ঘেরসহ মাছের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। প্রাণহানি হয়েছে কমপক্ষে ১৬ জনের। দেশের ২৫টি জেলায় প্রায় দেড় কোটি মানুষ ঘূর্ণিঝড় আঘাত হানার আগের দিন থেকে বিদ্যুৎহীন হয়ে পড়েছিল।

বাংলাদেশে ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের তাণ্ডবে প্রায় সাড়ে এগারোশ কোটি টাকার আর্থিক ক্ষতির কথা প্রাথমিকভাবে জানিয়েছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা এবং ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী ডা. এনামুর রহমান।

উপকূলীয় অঞ্চলের বাইরে যে জেলাগুলোতে সাধারণত ঘূর্ণিঝড় হয় না, ওইসব জেলাতেও ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের তাণ্ডবে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। দক্ষিণ পশ্চিমের জেলার পানের বরজ থেকে শুরু করে রাজশাহীতে মৌসুমি ফল আম এবং উত্তরের অন্য জেলাগুলোয় ধান ও সবজির অনেক ক্ষতি হয়েছে।

আওয়ামী লীগের দপ্তর সূত্রে জানা গেছে, দুর্যোগ কবলিত এলাকার সাধারণ মানুষের আশ্রয়, ভেঙে পড়া বাড়িঘর ঠিক করে দেওয়া, চিকিৎসেবাপ্রাপ্তি, খাদ্য সহায়তা, ত্রাণ নিয়ে ভুক্তভোগীদের পাশে দাঁড়াচ্ছে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা। 

আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমন্ডিস্থ কার্যালয়ে উপস্থিত হয়ে কেন্দ্রীয় নেতারা  ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের আঘাতে সৃষ্ট ক্ষয়-ক্ষতি পর্যবেক্ষণ করছেন। ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের আঘাতে বিপর্যস্ত উপকূলাঞ্চলসহ ক্ষতিগ্রস্ত এলাকার নেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ এবং ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের সহযোগিতা ও পুনর্বাসন কার্যক্রম পরিচালনায় স্থানীয় প্রশাসনকে সহযোগিতার নির্দেশনা দিচ্ছেন কেন্দ্রীয় নেতারা।

আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস‌্য জাহাঙ্গীর কবির নানক রাইজিংবিডিকে বলেন, সরকারের পক্ষ থেকে ঘূর্ণিঝড় আম্ফান মোকাবিলায় পূর্বপ্রস্তুতি নেওয়ায় এবং জনসাধারণকে আশ্রয়কেন্দ্রসহ নিরাপদ আশ্রয়স্থলে অবস্থান নিশ্চিত করায় ক্ষয়-ক্ষতি অনেকটা হ্রাস করা সম্ভব হয়েছে। এজন্য প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেছেন জেলার নেতারা।

'আমরা ঘূর্ণিঝড় পরবর্তী পরিস্থিতি পুনর্বাসনে নেতাকর্মীদের প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী দিক নির্দেশনা দিয়ে যাচ্ছি। তারা সরকারের সঙ্গে সহযোগী হিসেবে কাজ করে যাচ্ছে'- বলেন নানক।

 

ঢাকা/পারভেজ/এসএম


     




আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

লালবাগের গাজি টাওয়ারে আগুন

২০২০-০৬-০৪ ১১:০৩:৩৪ পিএম

করোনার টিকা প্রথম পাচ্ছে ব্রাজিল

২০২০-০৬-০৪ ১০:১৭:২৭ পিএম

বগুড়ায় বজ্রপাতে ৪ কৃষকের মৃত‌্যু

২০২০-০৬-০৪ ৯:৫৩:৪৩ পিএম