‘অত্যাধুনিক প্রযুক্তিতে দক্ষরাই হবেন ডিজিটাল বিপ্লবের লিডার’

প্রকাশ: ২০২০-০৬-০৫ ৯:০৭:৫৬ পিএম
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক | রাইজিংবিডি.কম

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, ‘ভবিষ্যতের চাহিদা পূরণে সরকার ফ্রন্টিয়ার (অত্যাধুনিক) প্রযুক্তিতে দক্ষ মানবসম্পদ তৈরি করছে। তারা আগামীতে ডিজিটাল বিপ্লবে নেতৃত্ব দেবেন।’ 

শুক্রবার (৫ জুন) জুম অনলাইনে ফ্রন্টিয়ার টেকনোলজির অনুষ্ঠানে প্রশিক্ষণ কার্যক্রমের উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

তথ্য যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের অধীন বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের (বিসিসি) লিভারেজিং আইসিটি ফর এমপ্লয়মেন্ট অ‌্যান্ড গ্রোথ অব দ্য আইটি-আইটিইএস ইন্ডাস্ট্রি (এলআইসিটি) প্রকল্পের উদ্যোগে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানে আইসিটি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম, বিসিসির নির্বাহী পরিচালক পার্থ প্রতিম দেব, এলআইসিটি প্রকল্পের পরিচালক মো. রেজাউল করিম, বাংলাদেশ অ‌্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার ইনফরমেশন অ্যান্ড সার্ভিসের (বেসিস) সভাপতি আলমাস কবির বক্তব্য রাখেন।

এলআইসটি প্রকল্পের আইটি-আইটিইএস পলিসি অ্যাডভাইজার সামি আহমেদ এফটিএফএল প্রশিক্ষণের ওপর একটি পাওয়ার পয়েন্ট উপস্থাপন করেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘ফ্রন্টিয়ার প্রযুক্তিতে দক্ষ মানুষরাই হবেন ডিজিটাল বিপ্লবের নেতা। এজন্য চতুর্থ শিল্প বিপ্লবকে সামনে রেখে সরকার কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা (এআই), বিগ ডাটা, মেশিন লার্নিং, অগমেন্টেড রিয়েলিটি, ভার্চুয়াল রিয়েলিটির মতো ফ্রন্টিয়ার টেকনোলজিতে দক্ষ মানবসম্পদ তৈরি করছে।’

তিনি বলেন, ‘চতুর্থ শিল্প বিপ্লবে একদিকে যেমন চ্যালেঞ্জ আছে, অপরিদেক রয়েছে বিশাল সম্ভাবনা। এই সম্ভাবনাকে কাজে লাগাতেই ফ্রন্টিয়ার টেকনোলজির ওপর প্রশিক্ষণ শুরু হয়েছে। আগামীতে অত্যাধুনিক প্রযুক্তিতে দক্ষ মানুষের চাহিদা পূরণে সরকার শেখ হাসিনা ইনস্টিটিউট অব ফ্রন্টিয়ার টেকনোলজি (এসএইচআইএফটি) প্রতিষ্ঠা করছে। এ ইনস্টিটিউট চালু হলে প্রতিবছর ফ্রন্টিয়ার টেকনোলজিতে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক দক্ষ জনশক্তি তৈরি হবে।’

এলআইসিটি প্রকল্পের ফাস্ট ট্র‌্যাক ফিউচার লিডার (এফটিএফএল) কর্মসূচির আওতায় ১ হাজার ১১০ জনকে ফ্রন্টিয়ার টেকনোলজিতে প্রশিক্ষণ প্রধান করছে। প্রথম ধাপে ৬৯০ জনেরর প্রশিক্ষণ শুরু হয়েছে। দেশের ২২টি আইটি প্রতিষ্ঠান ২২টি বিষয়ে প্রশিক্ষণ দিচ্ছে। এ প্রশিক্ষণের বৈশিষ্ট্য হলো—সফলভাবে প্রশিক্ষণ সম্পন্ন করা সবার কর্মসংস্থান হচ্ছে।

অত্যাধুনিক প্রযুক্তির যেসব বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে—তার মধ্যে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা, মেশিন লার্নিং, ব্লকচেইন, ডাটা সায়েন্স, অগমেন্টেড রিয়েলিটি, ভার্চুয়াল রিয়েলিটি, ইন্টারনেট অব থিংস অন্যতম।


ঢাকা/হাসান/রফিক


     



আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

আমার দেখা টোকিও (পর্ব-৬)

২০২০-০৭-০৭ ৭:৫৬:৪৫ এএম