করোনাভাইরাস: আদা ও লেবু পানি যে কারণে জরুরি

প্রকাশ: ২০২০-০৪-০৯ ২:১৬:৪৬ পিএম
এস এম গল্প ইকবাল | রাইজিংবিডি.কম

বিশ্বব্যাপী কোভিড-১৯ বা নতুন করোনাভাইরাস সংক্রমণে মৃত্যুর সংখ্যা যত বড় হচ্ছে, মানুষের মনে আতঙ্কও বাড়ছে। আতঙ্কিত মানুষ প্রতিনিয়ত খোঁজ করে চলেছেন কি করলে ভাইরাসটি থেকে সুরক্ষিত থাকা যাবে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, কোভিড-১৯ সংক্রমণের বিরুদ্ধে শরীরের রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে পুষ্টিকর খাবার খেতে হবে, নিয়মিত শরীরচর্চা করতে হবে, দুশ্চিন্তা কমাতে হবে, প্রতিদিন পর্যাপ্ত ঘুমাতে হবে ও প্রচুর পানি পান করতে হবে। এসময় কারো মধ্যে কোভিড-১৯ এর উপসর্গ দেখা দিলে তিনি যেন নিজেকে সঙ্গরোধ করে আদা ও লেবু পানি পান করেন। এর পাশাপাশি উপসর্গ ভিত্তিক চিকিৎসা চালিয়ে যেতে হবে, যেমন- জ্বর ও ব্যথা কমাতে প্যারাসিটামল।

যাদের কোভিড-১৯ এর উপসর্গ নেই তারাও আদা ও লেবু পানি পানে উপকার পাবেন, অর্থাৎ তাদের রোগপ্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়বে। আদা ও লেবু পানির সঙ্গে খাঁটি মধু মেশালে আরো বেশি উপকার পাবেন।

করোনাভাইরাসে আদার উপকারিতা: আদার প্রদাহ কমানোর ক্ষমতা রয়েছে। ভাইরাস, ব্যাকটেরিয়া ও অন্যান্য জীবাণু, কেমিক্যাল ও নিম্নমানের খাবারও অত্যধিক প্রদাহ সৃষ্টি করে শরীরের ক্ষতি করতে পারে। অগণিত মানুষই প্রদাহে ভুগছেন। নতুন করোনাভাইরাস সংক্রমণেও প্রদাহ সৃষ্টি হতে পারে, যেকারণে রোগীরা গলায় ব্যথা বা অস্বস্তি অনুভব করেন। হার্ভার্ড মেডিক্যাল স্কুলের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গলার ব্যথা হচ্ছে গলার পেছনের অংশে যন্ত্রণাদায়ক প্রদাহ। গলা ব্যথার সবচেয়ে প্রচলিত কারণ হচ্ছে ভাইরাস অথবা ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণ।

প্রদাহ প্রশমন করতে খাবার তালিকা ও জীবনযাপনে পরিবর্তন আনা জরুরি। আপনি জেনে খুশি হবেন যে, আদার প্রদাহনাশক শক্তি নতুন করোনাভাইস জনিত প্রদাহ প্রতিরোধ ও নিরাময় করতে পারে। গবেষণায় দেখা গেছে, আদা অ্যালার্জিক রিয়্যাকশনও কমাতে পারে। অ্যালার্জিক রিয়্যাকশনে প্রদাহেরও ভূমিকা রয়েছে। প্রদাহের কারণেও পেশি ব্যথা হতে পারে। আপনি হয়তো ইতোমধ্যে জেনেছেন যে, নতুন করোনাভাইসের সংক্রমণের একটি উপসর্গ হচ্ছে পেশি ব্যথা। আদা পানির সঙ্গে খাঁটি মধু মিশিয়ে পান করলে কাশির প্রকোপও কমবে।

আদাতে বিদ্যমান অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট হৃদরোগ প্রতিরোধ করতে পারে অথবা হৃদরোগের অবস্থা স্থিতিশীল রাখতে পারেন। চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন, নতুন করোনাভাইরাসের সংক্রমণে হৃদপিণ্ডে সমস্যা তৈরি হয় অথবা হৃদরোগের অবস্থা আরো শোচনীয় হতে থাকে। আদার অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট কোষের ক্ষতিগ্রস্ততা প্রতিরোধ করতে পারে। একটি গবেষণায় পাওয়া গেছে, আদা কিডনি ফেইলিউর এড়াতে বা ধীর করতে সাহায্য করে। কিডনি রোগীদেরও কোভিড-১৯ জনিত মারাত্মক জটিলতার ঝুঁকি বেশি। আদা রক্ত শর্করা নিয়ন্ত্রণ করতে পারে, যা এই মহামারিতে ডায়াবেটিস রোগীদের জন্য সহায়ক হতে পারে। এছাড়া আদা হৃদরোগের মার্কার আরজিনেস অ্যাক্টিভিটি, খারাপ কোলেস্টেরল ও ট্রাইগ্লিসেরাইড কমাতে পারে।
সারকথা হচ্ছে, আদা শ্বাসতন্ত্রের কার্যক্রম উন্নত করতে পারে। কোভিড-১৯ সংক্রমণে শ্বাসতন্ত্র নাকাল হয় বলে এসময় আদা খেলে বিশেষ উপকারে আসতে পারে।

করোনাভাইরাসে লেবু পানির উপকারিতা: আদার মতো লেবুতেও প্রদাহনাশক ক্ষমতা রয়েছে। নতুন করোনাভাইরাস সংক্রমণে উর্ধ্ব শ্বাসতন্ত্রের অস্বস্তি দূর করতে অথবা গলার ব্যথা কমাতে লেবু পানি একটি কার্যকরী মাধ্যম হতে পারে। তবে লেবু সম্পর্কে একটি ভুল ধারণা ব্যাপক হারে ছড়িয়ে পড়েছে: লেবুর রস পানে শরীরের পিএইচ বৃদ্ধি পেয়ে নতুন করোনাভাইসের জন্য প্রতিকূল পরিবেশ সৃষ্টি হয়, যার ফলে শরীরে ভাইরাসটি টিকতে পারে না। কিন্তু বিশেষজ্ঞদের মত হচ্ছে, কোনোকিছু খেয়ে অথবা পান করে আপনি কোষের পিএইচ পরিবর্তন করতে পারবেন না। আপনার শরীর কঠোরভাবে যেকোনোমূল্যে রক্ত ও কোষের অ্যাসিডিটি নিয়ন্ত্রণ করে। লেবুর রস নতুন করোনাভাইসকে ধ্বংস করতে পারে না। আপনি লেবুর রস পানিতে মিশিয়ে পান করবেন কোভিড-১৯ এর উপসর্গ প্রশমিত করার উদ্দেশ্যে।

 

ঢাকা/ফিরোজ


     



আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

যশোরে যুবক খুন

২০২০-০৫-৩০ ৪:৫২:৫৮ এএম