গুজব ঠেকাতে এবার মাঠে আওয়ামী লীগ

প্রকাশ: ২০১৯-০৭-২৪ ৫:৪৪:২৭ পিএম
রেজা পারভেজ | রাইজিংবিডি.কম

এসকে রেজা পারভেজ : গুজবের হাওয়ায় ভেসে গত কয়েকদিনে গণপিটুনির শিকার হয়ে প্রাণ গেছে ১৩ জনের। দিন যত যাচ্ছে বাড়ছে প্রাণহানির সংখ্যা। এসব ঠেকাতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সাথে এবার মাঠে নামছে আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরাও।

সারা দেশে ত্রাণ তৎপরতায় এরই মধ্যে আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতা থেকে শুরু করে সহযোগী সংগঠনের নেতারা অবস্থান করছেন ঢাকার বাইরে। অনেক নেতা বানভাসী মানুষের কাছে রয়েছেন ত্রাণ বিতরণের কাজে। এদিকে ‘পদ্মা সেতুতে মানুষের মাথা লাগবে’-গুজবে অব্যাহত প্রাণ হরনের ঘটনা ভাবিয়ে তুলেছে দলটিকে। নেত্রকোণায় এক যুবকের ব্যাগ তল্লাশি করে ‘শিশুর মাথা’ পাওয়ার পর তাকে পিটিয়ে হত্যা করে এলাকাবাসী। ঢাকার বাড্ডায় পিটিয়ে হত্যা করা হয় এক মাকে। এসব ঘটনার পর নড়েচড়ে বসেছেন আওয়ামী লীগের দায়িত্বশীলরা।

দলীয় সূত্র বলছে, গুজবকে নিছক গুজব হিসেবে দেখছে না আওয়ামী লীগ। এর সঙ্গে কোনো রাজনৈতিক বা অন্য কোনো উদ্দেশ্য আছে কি না-তা নিবিড়ভাবে পর্বেক্ষণ করা হচ্ছে। সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে বাধা সৃষ্টি করতে পরিকল্পিতভাবে গুজব ছড়ানো হচ্ছে বলে মনে করা হচ্ছে। এরই মধ্যে দলের তৃণমূল পর্যায়ে নেতা-কর্মীদের গুজব ঠেকাতে সতর্ক থেকে মাঠে নামার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। গুজব সৃষ্টিকারীদের চিহ্নিত করে পুলিশে সোপর্দ করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। একই সঙ্গে সাধারণ মানুষের মধ্যে সচেতনতা তৈরি করতে নেতা-কর্মীদের বলা হয়েছে। গুজব নিয়ে মানুষের মাঝে যে নেতিবাচক ধারণা তৈরি হয়েছে, সেখান থেকে তাদের ইতিবাচক চিন্তায় ফিরিয়ে আনতে স্থানীয় আওয়ামী লীগের সভাপতি-সেক্রেটারি ও সংসদ সদস্যদের প্রতি দল থেকে সভা-সমাবেশের মতো কর্মকাণ্ডে বাড়াতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ বলেন, ‘গত কয়েকদিন ধরে ছেলেধরা গুজব ছড়িয়ে অনেক নিরীহ মানুষকে হত্যা করা হয়েছে। এগুলো সবগুলোই হত্যাকাণ্ড। যারা এ কাজ করেছে, তারা সবাই হত্যা মামলার আসামি। সরকার তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করছে।’

এ ধরনের আতঙ্ক যারা ছড়াচ্ছে, তাদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তোলার জন্য ঐক্যবদ্ধ হয়ে দলীয়ভাবে কাজ করার আহ্বান জানানো হয়েছে বলেও জানান আওয়ামী লীগের এই নেতা।

এদিকে গুজব ছড়িয়ে যারা দেশকে অস্থিতিশীল বানানোর চেষ্টা করছে, তাদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নেয়ায় কথা বলেছেন আওয়ামী লীগের আরেক নেতা ও কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক।

তিনি বলেন, ‘যারা গুজব সৃষ্টি করে দেশকে অস্থিতিশীল করার চেষ্টা করছেন, তাদের কঠোরভাবে দমন করবো। গুজব সৃষ্টিকারীরা সফল হবে না।’

সোমবারও গুজবের কারণে ঢাকার ধামরাইয়ে গণপিটুনিতে দুজন নিহত হয়েছেন। গত ১৩ দিনে সারা দেশে ১২ জন নিহত ও আহত হয়েছেন ৬৬ জন। গত শনিবার পুলিশ সদর দপ্তর থেকে বিশেষ গণবিজ্ঞপ্তি দেওয়ার পর পুলিশ সুপারসহ বিভিন্ন ইউনিট-প্রধানের কাছে পাঠানো হয়েছে বিশেষ সতর্কবার্তা।

এদিকে প্রাণহানির ঘটনা বাড়তে থাকায় সরকারও এই বিষয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে কঠোর পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান জানিয়েছে। গুজব পরিস্থিতির লাগাম টানতে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তার অভিযানে নেমেছে পুলিশ। সচেতনতা তৈরিতে বিতরণ হচ্ছে লিফলেট, করা হচ্ছে মাইকিং। 

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও আইজিপির সঙ্গে আমার কথা হয়েছে, তারা কঠোরভাবে দমনের চেষ্টা করছে। দলীয়ভাবেও এগুলোর বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ দিয়েছি। গুজব কারা রটাচ্ছে, এর পেছনে কোনো চক্র আছে কি না-সবকিছুই খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’

পুলিশ মহাপরিদর্শক জাবেদ পাটোয়ারী বলেন, যাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে, তাদের কয়েকজনের সঙ্গে সরকারবিরোধী রাজনীতির সম্পৃক্ততা পাওয়া গেছে। উন্নয়ন বাধাগ্রস্ত করতে এ ধরনের গুজব ছড়ানো হচ্ছে। গুজব ছড়ানোর অভিযোগে এ পর্যন্ত ৬০টি ফেসবুক আইডি, ২৫টি ইউটিউব চ্যানেল ও দশটি অনলাইন পোর্টাল বন্ধ করা হয়েছে। এছাড়া গুজব রটনা ও পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় ৩১টি মামলা হয়েছে। ১০৩ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।


রাইজিংবিডি/ঢাকা/২৪ জুলাই ২০১৯/রেজা/সাইফ

     


Walton AC

আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

সবজির ঝুড়িতে ইয়াবা, আটক ২

২০১৯-০৮-২০ ৯:৫৩:০৮ পিএম

প্রথম ম্যাচে হারল নারী হকি দল

২০১৯-০৮-২০ ৯:১৪:০৭ পিএম

ইতালির প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ

২০১৯-০৮-২০ ৮:৫০:০৮ পিএম