কড়াকড়ির মধ্যেও রাজধানীতে ঢুকছে মানুষ

প্রকাশ: ২০২০-০৫-১২ ৯:৩৫:০৪ পিএম
মাকসুদুর রহমান | রাইজিংবিডি.কম

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে বেশকিছু দিন ধরেই রাজধানীতে প্রবেশের ক্ষেত্রে কড়াকড়ি আরোপ করেছে পুলিশ। প্রবেশপথসহ বিভিন্ন হাইওয়ে ও গুরুত্বপূর্ণ স্থানে বসানো হয়েছে চেকপোস্ট। কিন্তু এতেও কাজ হচ্ছে না। রাজধানীতে প্রতিদিন হু হু করে ঢুকছে মানুষ।

মঙ্গলবার (১২ মে) সরেজমিনে রাজধানীর বিভিন্ন প্রবেশপথে গিয়ে দেখা যায়, যানবাহন ও মানুষের চলাচল নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে পুলিশ। তবে যৌক্তিক কারণ দেখাতে পারলে রাজধানীতে ঢোকার অনুমতি দেওয়া হচ্ছে।

রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট যাত্রাবাড়ী মোড়ে দেখা যায়, গণপরিবহন চলাচল বন্ধ থাকলেও ব্যক্তিগত গাড়ি, সিএনজি অটোরিকশা, রিকশা, ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেল ও পিকআপ ভ্যানে করে মানুষ আসছে রাজধানীতে। ব্যারিকেড দিয়ে এসব যানবাহন আটকাচ্ছে পুলিশ। একটি ভ্যানে করে রাজধানীতে ঢোকার সময় ৯ ব্যক্তি থামিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

তাদের মধ্যে জহিরউদ্দিন নামের এক ব্যক্তি রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘একটি বেসরকারি কোম্পানিতে চাকরি করি। লকডাউনের পরপরই কুমিল্লায় গ্রামের বাড়িতে গিয়েছিলাম। কিন্তু সামনে ঈদ। বেতন-বোনাস নিতে এসেছি। অফিসও সীমিত পরিসরে খুলেছে।’

সিলেট থেকে আসা রেজওয়ান হক বলেন, ‘সেহরি খেয়ে গ্রামের বাড়ি থেকে বের হয়েছি। মার্কেট খুলে যাওয়ায় দোকান করতে এসেছি। আজিজ সুপার মার্কেটে কাপড়ের ব্যবসা রয়েছে।’

চেকপোস্টে দায়িত্বে থাকা পুলিশ সদস্যরা বলেন, স্বল্প পরিসরে পোশাক কারখানা খুলেছে। এ কারণে নির্দেশনা কিছুটা শিথিল হয়েছে। এ সুযোগে বানের জলের মতো ঢাকায় প্রবেশ করছে মানুষ। সব প্রবেশপথেই একই অবস্থা।

যাত্রাবাড়ী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাজহারুল ইসলাম রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘ঢাকার বাইরে থেকে কেউ আসলেই আমরা তাকে থামিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করছি। যুক্তিসঙ্গত কারণ দেখাতে পারলে ছেড়ে দিচ্ছি। কারণ দেখাতে না পারলে ফেরত পাঠানো হচ্ছে।’

এ বিষয়ে মঙ্গলবার কথা হয় পুলিশ সদর দপ্তরের এআইজি (মিডিয়া) সোহেল রানার সঙ্গে। তিনি রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘মানুষকে সচেতন করতে কাজ করছি। পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হলে কেউ যেন ঢাকায় না আসেন সেজন্য চেকপোস্ট বসানো হয়েছে। বিভিন্ন যানবাহন বা সড়কে তল্লাশির ব্যবস্থা করা হয়েছে। কিন্তু মানুষ তো মানতে চাচ্ছে না। জোরও করা যাচ্ছে না। তাছাড়া, পোশাক কারখানাসহ কিছু প্রতিষ্ঠানও খোনা হয়েছে। তাই প্রথম দিকে মানুষের ঢাকায় প্রবেশ রোধ করা গেলেও এখন আর তেমন করা যাচ্ছে না।’

হাইওয়ে পুলিশের ডিআইজি আতিকুল ইসলাম রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘মহাসড়কে বাস চলাচল বন্ধে আমরা সজাগ আছি। সরকার ঘোষণা না দিলে কেউ রাস্তায় গণপরিবহন বের করতে পারবে না। তারপরও মানুষ নানা কৌশলে বিভিন্ন জেলা থেকে রাজধানীতে আসছে। তাদের রাজধানীতে প্রবেশ বন্ধে চেকপোস্ট বসিয়েছে পুলিশ। তবে মানুষ সচেতন না হলে প্রবেশ রোধ করা দুঃসাধ্য হয়ে পড়ছে।’


ঢাকা/মাকসুদ/রফিক


     




আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

চঞ্চলের অপেক্ষা

২০২০-০৬-০৬ ১২:৫১:০২ পিএম