আলিবাবা থেকে জ্যাক মা’র অবসর

প্রকাশ: ২০১৯-০৯-১০ ৪:২৬:০৯ পিএম
মনিরুল হক ফিরোজ | রাইজিংবিডি.কম

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি ডেস্ক : ই-কমার্স জায়ান্ট আলিবাবার সহ-প্রতিষ্ঠাতা ও এক্সিকিউটিভ চেয়ারম্যান জ্যাক মা আজ মঙ্গলবার আনুষ্ঠানিকভাবে অবসর নিয়েছেন। তার পদে আসীন হবেন প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড্যানিয়েল ঝ্যাং।

১৯৯৯ সালে জ্যাক মাসহ কয়েকজন অংশীদার মিলে আলিবাবা প্রতিষ্ঠা করেন এবং এটি বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে। সাফল্য এবং বর্ণাঢ্যময় জীবন জ্যাক মাকে চীনের সবচেয়ে পরিচিত ব্যবসায়ীদের একজন করে তুলেছে। ফোর্বস ম্যাগাজিনের তথ্যানুসারে, বর্তমানে আলিবাবা ৪৬০ বিলিয়ন ডলারের কোম্পানি আর জ্যাক মা চীনের শীর্ষ ধনী ব্যক্তি।

আলিবাবা থেকে অবসর নিতে যাওয়ার ঘোষণা এক বছর আগেই দিয়ে রেখেছিলেন জ্যাক মা। গত বছর নিজের ৫৪তম জন্মদিনে জ্যাক মা বলেছিলেন, ২০১৯ সালের ১০ সেপ্টেম্বর নিজের ৫৫তম জন্মদিনে অবসর নেবেন তিনি। অবসর নেওয়ার ঘোষণার কারণ হিসেবে নিজেকে আরো বেশি সময় দেয়া এবং শিক্ষা ও মানবপ্রেমের ওপর কাজ করতে ৪০ বিলিয়ন ডলার নিয়ে গঠিত নিজের ফাউন্ডেশনে মনোনিবেশ করার কথা জানান।

চায়না’স টেকনোলজি টাইটানস (চীনের প্রযুক্তি খাতের মহারথী) বইয়ের লেখক রেবেকা ফ্যানিন বলেন, ‘আমি মনে করি জ্যাক মা’র বিকল্প কাউকে পাওয়া খুব কঠিন হবে। তিনি একজনই। তিনি চীনের স্টিভ জবস।’

অবসরে গেলেও ২০২০ সালে আলিবাবার শেয়ারহোল্ডারদের বার্ষিক সভা অনুষ্ঠিত হবার আগ পর্যন্ত জ্যাক মা বোর্ডে থাকবেন।

১৯৬৪ সালে পূর্ব চীনের চচিয়াং প্রদেশের হাংচৌ শহরে একটি দরিদ্র পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন জ্যাক মা। তিন সন্তানের মধ্যে তিনি ছিলেন দ্বিতীয়। তার মা’র বাবা-মা গান গেয়ে বেড়াতেন। ছাত্র হিসেবে জ্যাক মা ভালো ছিলেন না। জাতীয় কলেজ ভর্তি পরীক্ষায় তিনি দুইবার ফেল করেন। তৃতীয়বার পাস করার পরে তিনি হুয়াংঝু টিচার্স ইনস্টিটিউটে ভর্তি হবার সুযোগ পান। ১৯৮৮ সালে তিনি গ্রাজুয়েশন সম্পন্ন করেন। ক্যারিয়ার শুরু করেন ইংরেজি শিক্ষক হিসেবে।

জ্যাক মা কম্পিউটার প্রথম কিনেন ৩৩ বছর বয়সে। এর দুই বছর পর কয়েকজন অংশীদারসহ আলিবাবা প্রতিষ্ঠা করেন এবং এক বছরের মধ্যেই আলিবাবাকে জনপ্রিয় করে তুলতে সক্ষম হোন। আলিবাবা এখন বিশ্বের শীর্ষ ১০টি গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠানের মধ্যে একটি।

তথ্যসূত্র : বিবিসি


রাইজিংবিডি/ঢাকা/১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯/ফিরোজ


   



আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

শেষ ভালোর প্রত্যাশায়

২০১৯-০৯-২০ ১:২৯:০৭ এএম

খালেদের বিরুদ্ধে মাদকের আরেক মামলা

২০১৯-০৯-১৯ ১১:৩১:১৬ পিএম