ইউএফও ফুটেজগুলো বাস্তব বলছে ইউএস নেভি!

প্রকাশ: ২০১৯-০৯-১৯ ১০:১৭:২২ পিএম
আহমেদ শরীফ | রাইজিংবিডি.কম

কয়েক দশক ধরে আনআইডেন্টিফাইড ফ্লাইং অবজেক্ট (ইউএফও) বা ফ্লাইং সসার শব্দ দুটি শুনে আসছি আমরা। ভিনগ্রহের প্রাণীরা এই ইউএফও নিয়ে বিশ্বের অনেক দেশেই ঘুরে বেড়াচ্ছে, এমন দাবি করছেন একদল গবেষক। অনেক দেশের মানুষ এসব ইউএফও বা ফ্লাইং সসার দেখেছেন বলেও দাবি করেন। তবে এসব নিয়ে সাধারণত গোপনীয়তা রক্ষায় আমেরিকা, রাশিয়া বা উন্নত দেশের সরকারি কোনো সংস্থা মন্তব্য করে না।

সম্প্রতি তিনটি ইউএফও’র ফুটেজ ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়ে। আর অনেকটা আশ্চর্যজনক হলেও এসব ফুটেজ সত্যিকারের ইউএফও’র বলেই স্বীকৃতি দিয়েছে আমেরিকান নেভি। ফুটেজগুলো ‘টু দ্য স্টারস একাডেমি অব আর্টস অ্যান্ড সায়েন্স’ এর মাধ্যমে ২০১৭ এর ডিসেম্বর ও ২০১৮ এর মার্চে প্রকাশ পায়।

ফুটেজগুলোতে দেখা যায়, কয়েকটি রহস্যময় বস্তু খুব দ্রুত গতিতে আকাশে ছুটে যাচ্ছে। আর সেসব ভিডিওর একটি ২০০৪ সালে ধারণ করা। অন্য দুটি ভিডিও ধারণ করা হয় ২০১৫ তে। আমেরিকান ফাইটার বিমানের পাইলটরা সেসব রহস্যময় উড়ন্ত বস্তু দেখে চমকে উঠেন। সেগুলো ড্রোন না অন্য কিছু তা বুঝতে পারেননি তারা।

তবে এবার আমেরিকান নেভি কর্তৃপক্ষ এসব ভিডিও সম্পর্কে বলছে, এগুলো রিয়েল ফুটেজ। আর ওই রহস্যময় বস্তুগুলো ইউএফও। ইউএস নেভির মুখপাত্র জোসেফ গ্রাডিশার বলেন, ‘ওই তিনটি ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে রহস্যময় বস্তুগুলো আমাদের মিলিটারি প্রশিক্ষণ এলাকায় ঢুকে পড়েছিল।’

গ্রাডিশার জানান, ২০০৪ সালের ভিডিওটি ক্যারিয়ার ইউএসএস নিমিটেজের একটি এয়ারক্রাফট থেকে ধারণ করা হয়েছিল। তখন জাহাজে থাকা ক্রুরা ওই ভিডিও অনলাইনে ছড়িয়ে দিয়েছে। তবে ২০১৫ সালের ভিডিও দুটি কিভাবে নিউ ইয়র্ক টাইমস সহ অন্য মিডিয়াতে ছড়িয়েছে, তা ইউএস নেভি জানে না। এছাড়া সেসময় আকাশে রহস্যময় বস্তু প্রায় সময় দেখা যেত উল্লেখ করে গ্রাডিশার আরো জানান, ‘আমাদের প্রশিক্ষণ এলাকায় কোনো এয়ারক্রাফট বা রহস্যময় বস্তু উড়ে এলে তা শনাক্ত করা যাক বা না যাক, নিরাপত্তার ক্ষেত্রে বিষয়টি খুব চিন্তার বিষয়।’ এ ব্যাপারে বিস্তারিত কিছু না জানিয়ে ইউএস নেভি কর্তৃপক্ষ বলছে ওই উড়ন্ত বস্তুগুলো ইউএফও ছিল।

তথ্যসূত্র: স্কাই নিউজ


ঢাকা/ফিরোজ


   



আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

বিপ্লবের ভগ্নিপতিসহ নিখোঁজ ২

২০১৯-১০-২২ ১১:৫৭:৩০ পিএম

আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেব : সাকিব

২০১৯-১০-২২ ১০:৪২:০৭ পিএম

জামালপুরের সেই সাধনা বরখাস্ত

২০১৯-১০-২২ ১০:২৩:২৯ পিএম