রকেট ও রোবট তৈরির কৌশল শিখল শিশুরা

প্রকাশ: ২০১৯-১০-১২ ৮:২৬:৩৯ পিএম
বিজ্ঞান-প্রযুক্তি ডেস্ক | রাইজিংবিডি.কম

বাংলাদেশ ইনোভেশন ফোরামের আয়োজনে রাজধানীর ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির স্থায়ী ক্যাম্পাসে দুই দিনব্যাপী আয়োজিত ‘স্পেস ইনোভেশন ক্যাম্প’ আজ শেষ হয়েছে। নার্সারি থেকে দশম শ্রেণির ৫০০ জন শিক্ষার্থী এ আয়োজনে রকেট তৈরি ও স্পেস রোবট তৈরির মতো বিষয়গুলো সম্পর্কে প্রাথমিক ধারণা পেয়েছে। হাতে-কলমে শিখেছে নানা কৌশল।

সমাপনী দিনে প্রধান অতিথি হিসেবে শিক্ষার্থীদের উৎসাহ দিতে ক্যাম্পে অংশগ্রহণ করেন বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলার। বাচ্চাদের মাঝে এসে আর্ল মিলার বলেন, তিনি শিক্ষার্থীদের উৎসাহ দেখে খুবই অভিভূত। বিশেষ করে ছোট ছোট শিক্ষার্থীরা এখন থেকেই রকেট তৈরি ও স্পেস রোবট তৈরির মতো বিষয়গুলো জানতে পারছে, যা ভবিষ্যত বাংলাদেশের জন্য অত্যন্ত আশাব্যঞ্জক একটি বিষয় বলে তিনি মনে করেন।

যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত বলেন, এই ক্যাম্পে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে আমি ভবিষ্যৎ নভোচারী দেখতে পাচ্ছি। তাছাড়া অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীদের মধ্যে ছাত্র এবং ছাত্রীর সংখ্যা প্রায় সমান উল্লেখ করে তিনি বলেন, নারী-পুরুষ সমতার ক্ষেত্রেও এটি একটি উজ্জ্বল উদাহরণ। তিনি এ সময় বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের আরো বেশি বিজ্ঞান, প্রযুক্তি, প্রকৌশল ও গণিত বিষয়ে আগ্রহী হওয়ার আহবান জানান।

গতকাল অনুষ্ঠানের প্রথম দিন সকালে স্পেস ইনোভেশন ক্যাম্পের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির উপাচার্য প্রফেসর ড. চৌধুরী মফিজুর রহমান। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ পুলিশের সাবেক অতিরিক্ত ডিআইজি (সিআইডি) আব্দুল কাহার আকন্দ ও সাবেক লেফটেন্যান্ট জেনারেল আব্দুল হাফিজ, নাসার সাবেক সিস্টেম ইঞ্জিনিয়ার আজাদুল হক, বাংলাদেশ ইনোভেশন ফোরামের প্রতিষ্ঠাতা আরিফুল হাসান অপু এবং ক্লাউডক্যাম্প বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা ও ডেল এর পরিচালক (সলিউশনস আর্কিটেকচার) মোহাম্মদ মাহদি উজ জামান।

প্রফেসর ড. চৌধুরী মফিজুর রহমান এ সময় বলেন, আজকের বাচ্চারা আগামীদিনের ভবিষ্যৎ। বাচ্চাদের জন্য এই ধরনের আয়োজন সত্যি প্রশংসনীয়। আজকের আয়োজনের মাধ্যমে বাচ্চারা স্পেস, রোবট, রকেট এগুলো নিয়ে আরো আগ্রহী হয়ে উঠবে।

সামিটের আহবায়ক আমেনা ইসলাম সিনথিয়া আয়োজন সম্পর্কে বলেন, ‘বাচ্চাদের মাঝে মহাকাশ বিজ্ঞানকে জনপ্রিয় করা এবং সায়েন্স, টেকনলোজি, ম্যাথমেটিক্স ও ইঞ্জিনিয়ারিং বিষয়গুলো বিশদভাবে তুলে ধরার জন্যে দুই দিনের এই ক্যাম্পের আয়োজন করা হয়। আমরা আশা করছি এই ক্যাম্পের মাধ্যমে আমাদের শিক্ষার্থীরা মহাকাশ বিজ্ঞান সম্পর্কে অনেক কিছু জেনেছে এবং এই বিষয়ে তারা ভবিষৎ গবেষণায় আগ্রহী হবে।

বাংলাদেশ ইনোভেশন ফোরামের প্রতিষ্ঠাতা আরিফুল হাসান অপু বলেন, ‘শিশু-কিশোরদের মহাকাশ বিজ্ঞান নিয়ে নতুন নতুন আবিষ্কারে উৎসাহিত করার মাধ্যমে ভবিষ্যতে বাংলাদেশ থেকেই স্পেস সায়েন্টিস্ট ও রকেট সায়েন্টিস্ট গড়ে তোলার লক্ষ্যে আগামী ১০ বছরের একটা পরিকল্পনা হাতে নেওয়া হয়েছে। তারই অংশ হিসেবে এই স্পেস ক্যাম্প অনুষ্ঠিত হয়েছে।

দুই দিনের এ আয়োজনে রকেট মেকিং ও লঞ্চিং ওয়ার্কশপ, স্পেস রোবট মেকিং ওয়ার্কশপ, অ্যাস্ট্রোনট ট্রেনিং, স্পেস প্রোগ্রামিং, স্পেস এডুকেশন, স্পেস লাইফ, টিম ওয়ার্ক, টিম বিল্ডিং স্কিল ডেভেলপমেন্ট, লিডারশিপ, ইত্যাদি বিষয়ে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়।

এবারের আয়োজনে সহযোগিতায় ছিল সিনেসিস আইটি, সিসটেক ডিজিটাল, ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি, স্পেস অ্যান্ড রকেট সেন্টার বাংলাদেশ, ঢাকা কাস্ট এবং লাইভ টু ওয়েব।



ঢাকা/ফিরোজ


   



আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

আবরার ফাহাদ হত্যা

বুয়েটের ২৬ শিক্ষার্থী বহিষ্কার, ৬ জনকে শাস্তি

২০১৯-১১-২২ ২:৪৭:২২ এএম

শুক্রবার মাঠে নামছে ওয়ালটন

২০১৯-১১-২১ ১১:০২:১০ পিএম

তিন পেসার নিয়ে নামবে বাংলাদেশ

২০১৯-১১-২১ ৯:৩৫:৫৭ পিএম

শুক্রবার ঢাকায় আসছেন বান কি মুন

২০১৯-১১-২১ ৯:২৫:০১ পিএম