ইউরোপের অর্থনীতি প্রসারে ভূমিকা রাখছে হুয়াওয়ে

প্রকাশ: ২০১৯-১১-০৬ ১২:২৪:৪৬ পিএম
বিজ্ঞান-প্রযুক্তি ডেস্ক | রাইজিংবিডি.কম

অক্সফোর্ড ইকোনমি তাদের এক হিসাবে দেখিয়েছে যে, বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় তথ্যপ্রযুক্তি সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান হুয়াওয়ে ২০১৮ সালে ইউরোপের অর্থনীতিতে ১২.৮ বিলিয়ন ইউরোর সমপরিমাণ অবদান রেখেছে। এই সময়ে প্রতিষ্ঠানটি ইউরোপের অন্তত ১,৬৯,৭০০ মানুষকে কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি করেছে।

২০১৮ সালে ইউরোপের জিডিপিতে হুয়াওয়ে সরাসরি অবদান রেখেছে প্রায় ২.৫ বিলিয়ন ইউরো, যা ২০১৪ সালের তুলনায় প্রায় দ্বিগুণ। একই সময়ে সেখানে প্রতিবছর গড়ে প্রায় ১৩ শতাংশ কর্মসংস্থান এবং ১৭ শতাংশ রাজস্ব আয় বৃদ্ধি করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

সম্প্রতি প্যারিসে ইউরোপিয়ান ইনোভেশন ডে শীর্ষক অনুষ্ঠানে হুয়াওয়ের ইউরোপিয়ান ইউনিয়নভিত্তিক ইনস্টিটিউশনের প্রধান প্রতিনিধি আব্রাহাম লিউ একটি সমীক্ষাপত্র উপস্থাপনের মাধ্যমে তুলে ধরেন যে, ইউরোপের শীর্ষস্থানীয় প্রতিষ্ঠানগুলোকে হুয়াওয়ে নতুন নতুন পণ্য ও সেবা সরবরাহ করে চলেছে, যা ইউরোপীয় কমিশনের লক্ষ্য পূরণে সহায়তা করছে। তিনি জানান, গোটা মহাদেশ জুড়ে একটি শক্তিশালী প্রযুক্তিগত পরিমণ্ডল প্রতিষ্ঠা করে ইউরোপীয় ইউনিয়নকে (ইইউ) যে ডিজিটাল সার্বভৌমত্ব উপহার দিতে চায় নতুন ইউরোপীয় কমিশন সেখানে হুয়াওয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে চলেছে।

হুয়াওয়ের বোর্ডের পরিচালক এবং ইনস্টিটিউট অব স্ট্র্যাটেজিক রিসার্চের সভাপতি উইলিয়াম জু, উদ্ভাবন ক্ষেত্রে আঞ্চলিক নেতৃত্বকে আরো এগিয়ে নিতে চারটি উদ্যোগ গ্রহণ করার জন্য ইউরোপীয় নেতাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। প্যারিসে অনুষ্ঠিত ‘ইউরোপিয়ান ইনোভেশন ডে ২০১৯’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে বক্তব্য প্রদানকালে তিনি মৌলিক গবেষণায় জোর দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। এছাড়া ইউরোপ অঞ্চলকে এগিয়ে রাখতে এবং প্রতিযোগীদের থেকে এগিয়ে থাকতে উদ্ভাবিত সর্বশেষ তথ্যপ্রযুক্তির স্থাপনের পাশাপাশি টেকসই উন্নয়নের উপর জোর দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

ইউরোপ দীর্ঘদিন ধরেই বিশ্বের অন্যতম প্রধান উদ্ভাবনীকেন্দ্র হিসেবে কাজ করছে। তাই ক্রমবর্ধমান প্রতিযোগিতামূলক বিশ্ববাজারে নিজস্ব ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখতে এ অঞ্চলের স্টেকহোল্ডারদের কিছু মৌলিক উদ্যোগ প্রতিষ্ঠার জন্য ঐক্যবদ্ধ হওয়া জরুরি বলে মনে করেন মি. জু।

স্থানীয় অপারেটরদের সাথে দ্রুত ও নির্ভরযোগ্য নেটওয়ার্ক তৈরি এবং গবেষণা ও উন্নয়নে বিনিয়োগের মাধ্যমে ইইউর লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে যেসব কোম্পানিগুলো নেতৃত্ব প্রদান করছে, হুয়াওয়ে তাদের মধ্যে অন্যতম। এ লক্ষ্যে প্রতিষ্ঠানটি ইউরোপের ১২টি দেশে ২৩টি গবেষণাকেন্দ্র এবং ১৪০টি বিশ্ববিদ্যালয়ে নানান ধরনের গবেষণা কার্যক্রম পরিচালনা করছে, যেখানে ওয়্যারলেস থেকে অপটিক্যাল প্রযুক্তি, ক্লাউড কম্পিউটিং পর্যন্ত সব কিছুর উপর আলোকপাত করা হচ্ছে। যা ইউরোপের শিল্পখাতকে আরো শক্তিশালী হয়ে উঠতে সহায়তা প্রদান করছে।


ঢাকা/ফিরোজ


   



আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

রবিবার আখাউড়া স্থলবন্দর বন্ধ

২০১৯-১১-১৭ ২:২৫:৩০ এএম

বিপিএলে মাশরাফি-গেইলদের বেতন কত?

২০১৯-১১-১৭ ১২:০৪:৩৩ এএম

বিপিএলের লোগো উন্মোচন

২০১৯-১১-১৬ ১০:৪৩:৫৮ পিএম

কুষ্টিয়ায় পেঁয়াজের আড়তে অভিযান

২০১৯-১১-১৬ ১০:৪০:৪১ পিএম

ঝিনাইদহে স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ

২০১৯-১১-১৬ ১০:৩৫:৩৫ পিএম