মেসির শেষ মুহূর্তের গোলে পরাজয় এড়াল আর্জেন্টিনা

প্রকাশ: ২০১৯-১১-১৯ ৩:২০:৪৬ এএম
ক্রীড়া ডেস্ক | রাইজিংবিডি.কম

আক্রমণ আর পাল্টা আক্রমণে উত্তেজনা ছড়াল পুরো ম্যাচে। দুই অর্ধে দুই গোল করে উরুগুয়ে এগিয়ে গেল দুবার। পিছিয়ে পড়ে দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়িয়ে আর্জেন্টিনা সমতা ফেরাল দুবারই। আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচটি রোমাঞ্চকর লড়াইয়ে ২-২ গোলে ড্র হয়েছে।

ইসরায়েলের ব্লুমফিল্ড স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় সোমবার দিবাগত রাত সোয়া ১টায় শুরু ম্যাচের প্রথমার্ধে উরুগুয়েকে এগিয়ে দিয়েছিলেন এডিনসন কাভানি। দ্বিতীয়ার্ধে আর্জেন্টিনাকে সমতায় ফেরান সার্জিও আগুয়েরো। এরপর লুইস সুয়ারেজের দুর্দান্ত ফ্রি কিকে আবার এগিয়ে গিয়েছিল উরুগুয়ে। তবে যোগ করা সময়ে পেনাল্টি থেকে লিওনেল মেসির গোলে পরাজয় এড়ায় আর্জেন্টিনা।

তিন দিন আগে ব্রাজিলের বিপক্ষে মেসির একমাত্র গোলে জয়ের ম্যাচ থেকে শুরুর একাদশে চারটি পরিবর্তন এনেছিলেন আর্জেন্টিনা কোচ লিওনেল স্কালোনি। মেসির সঙ্গে আক্রমণভাগে নামেন সার্জিও আগুয়েরো ও পাউলো দিবালা। এই দুজনের সঙ্গে নামেন রেনজো সারাভিয়া ও মার্কস আকুনা।

উরুগুয়ের বিপক্ষে ম্যাচের শুরু থেকে বল দখলে আধিপত্য ছিল আর্জেন্টিনার। কিন্তু উরুগুয়ের রক্ষণে বারবার মুখ থুবড়ে পড়ছিল মেসি-দিবালাদের আক্রমণ।

 

 

উল্টো পাল্টা আক্রমণ থেকে ৩৪ মিনিটে কাভানির গোলে এগিয়ে যায় উরুগুয়ে। লুকাস তোরেইরার ক্রস ছয় গজ বক্সের ভেতর খুঁজে নেয় সুয়ারেজকে। ডান দিক থেকে বার্সেলোনা স্ট্রাইকারের বাড়ানো বলে পা ছুঁয়ে জালে পাঠান পিএসজি ফরোয়ার্ড।

চার মিনিট পর অবশ্য দিবালা উরুগুয়ের জালে বল পাঠিয়েছিলেন। তবে হ্যান্ডবলের কারণে গোল বাতিল করে দেন রেফারি। আকুনার পাস থেকে প্রথম শটের চেষ্টায় দিবালার হাতে লেগেছিল বল। পরের শটে বল জালে পাঠান জুভেন্টাস ফরোয়ার্ড।

বিরতির ঠিক আগে ডি বক্সের সামনে মেসি ফাউলের শিকার হলে ফ্রি-কিক পেয়েছিল আর্জেন্টিনা। তবে রক্ষণ দেয়ালের ওপর দিয়ে মেসির নেওয়া শট বাঁ দিকে ঝাঁপিয়ে ঠেকান উরুগুয়ের গোলরক্ষক মার্টিন কাম্পানা। ফলে পিছিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় আর্জেন্টিনা।

বিরতির পর ৬৩ মিনিটে আর্জেন্টিনাকে সমতায় ফেরান আগুয়েরো। উরুগুয়ের গঞ্জালেজের হ্যান্ডবলের জন্য বক্সের বাঁ দিকে ফ্রি-কিক পেয়েছিল আর্জেন্টিনা। মেসির ক্রসে খুব কাছ থেকে দারুণ এক হেডে বল জালে পাঠান ম্যানচেস্টার সিটি ফরোয়ার্ড আগুয়েরো।

 

 

দুই মিনিট পর এগিয়েও যেতে পারত আর্জেন্টিনা। তবে বক্সের সামনে থেকে মেসির বাঁ পায়ের শট উরুগুয়ের এক খেলোয়াড়ের পায়ে লেগে পোস্টের সামান্য বাইরে দিয়ে চলে যায়।

উল্টো ৬৮ মিনিটে সুয়ারেজের দুর্দান্ত এক ফ্রি-কিক গোলে আবার পিছিয়ে পড়ে আর্জেন্টিনা। বক্সের সামনে বিপজ্জনক জায়গায় সুয়ারেজ ফাউলের শিকার হলে ফ্রি-কিক পেয়েছিল উরুগুয়ে। ডান পায়ের জোরালো শটে বল জালে পাঠিয়ে উরুগুয়ের লিড পুনরুদ্ধার করেন সুয়ারেজ নিজেই। ডান দিকে ঝাঁপিয়ে বলে হাত ছোঁয়ালেও ঠেকাতে পারেননি আর্জেন্টিনা গোলরক্ষক এস্তেবান আন্দ্রাদে।

তিন মিনিট পর নিজের দ্বিতীয় গোলে আর্জেন্টিনাকে সমতায় ফেরানোর সুবর্ণ সুযোগ নষ্ট করেন আগুয়েরো। বক্সের ভেতর তাকে ফাঁকায় পাস দিয়েছিলেন লিয়ান্দ্রো পারেদেস। কিন্তু অবিশ্বাস্যভাবে বল পোস্টের ওপর দিয়ে উড়িয়ে মারেন আগুয়েরো।

পাঁচ মিনিটের যোগ করা সময়ের প্রথম মিনিটে পেনাল্টি পায় আর্জেন্টিনা। বক্সের ভেতর আগুয়েরোর ফ্লিক থেকে বল উরুগুয়ের কাসেরেসের হাতে লাগলে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। স্পট-কিকে গোলরক্ষককে ফাঁকি দিয়ে আর্জেন্টিনার পরাজয় এড়ান মেসি।

কোপা আমেরিকার সেমিফাইনালে ব্রাজিলের কাছে হারের পর টানা ছয় ম্যাচে অপরাজিত থেকে বছর শেষ করল দুবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন আর্জেন্টিনা।

 

ঢাকা/পরাগ


   



আজকের সর্বশেষ সংবাদ সমূহঃ

৫৮ পদক নিয়ে পঞ্চম স্থানে বাংলাদেশ

২০১৯-১২-০৬ ১২:৫২:২৮ এএম

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় চোলাই মদসহ আটক ৮

২০১৯-১২-০৬ ১২:২৭:২৪ এএম

নাটোরে টমেটোর ঝুড়িতে ফেন্সিডিল

২০১৯-১২-০৬ ১২:০৬:২৪ এএম

প্রেমের কারণে বন্ধুকে খুন!

২০১৯-১২-০৫ ১০:৩১:২৭ পিএম

তুই কি আমার হবি রে?

২০১৯-১২-০৫ ১০:০৯:১৭ পিএম